বৃষ্টি, তাপমাত্রা ২৭.২ °C
 
২৯ সেপ্টেম্বর ২০১৬, ১৪ আশ্বিন ১৪২৩, বৃহস্পতিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

বাড়ি কেনার নামে বিদেশে অর্থপাচার করছেন চীনা বিলিয়নিয়াররা

প্রকাশিত : ১৩ জানুয়ারী ২০১৬

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ বাড়ি কেনার নাম করে বিদেশে অর্থপাচার করছেন চীনা বিলিয়নিয়াররা। বহুদিন থেকেই এমন অভিযোগ উঠে আসছে তাদের বিরুদ্ধে। বিশ্লেষকরা মনে করছেন, এখনই এ পাচার ঠেকাতে না পারলে অচিরেই দেশটির অর্থনীতিকে এর মাশুল গুণতে হবে।

প্রতিবছরই ধনীর সংখ্যা বাড়ছে চীনে। আর এর সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে এসব নব্য ধনীদের বাড়ি কেনার হার। দেশের অর্থনীতি মন্থর। এবং মুদ্রাবাজার অস্থির। এ অজুহাতে তারা বাড়ি কিনছেন বিশ্বের উন্নত দেশগুলোতে। আর এ তালিকায় তাদের পছন্দের শহরের শীর্ষে আছে সিডনি, নিউইয়র্ক, হংকং এবং ভ্যাঙ্কুবার। এক পরিসংখ্যানে দেখা গেছে, ২০১৪ সালে যুক্তরাষ্ট্রে বাড়ি কেনা বাবদ প্রায় ৩ হাজার কোটি ডলার খরচ করেছে চীনারা। আর বাড়ি প্রতি তাদের ব্যয়ের পরিমাণ ৮ লাখ ৩২ হাজার ডলার।

যুক্তরাষ্ট্রের আবাসন খাতে বিদেশী বিনিয়োগকারীদের মধ্যে শীর্ষে চীনারা। শুধু তাই নয় চীনাদের ওপর নির্ভর করেই চাঙ্গা হয়ে উঠেছে বিভিন্ন দেশের রিয়েল এস্টেট ব্যবসা। কিন্তু সম্প্রতি এক পর্যালোচনায় বের হয়ে এসেছে এসব বাড়ি কেনার পেছনের চমকপ্রদ তথ্য। বাড়ি কেনার অজুহাতে তারা আসলে বিদেশে মুদ্রা পাচার করছেন।

ইউবিএস এর তথ্যমতে, ২০১৪ সালে প্রায় ৩২ হাজার ৪ শ’ কোটি ডলার বিদেশে পাচার করেছে চীনারা। আর ২০১৫ সালে মুদ্রাবাজার অস্থিরতার সুযোগে শুধুমাত্র অগাস্ট ও সেপ্টেম্বর মাসেই প্রায় ২ হাজার কোটি ডলার চলে গেছে চীনের সীমানা পার হয়ে। অথচ দেশটির নিয়ম অনুযায়ী, একজন চীনা মাত্র ৫০ হাজার ডলার সমপরিমাণ অর্থ দেশের বাইরের নিতে পারেন। তাহলে কিভাবে হচ্ছে এ বিপুল পরিমাণ অর্থপাচার?

প্রকাশিত : ১৩ জানুয়ারী ২০১৬

১৩/০১/২০১৬ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

অর্থ বাণিজ্য



ব্রেকিং নিউজ: