রৌদ্রজ্জ্বল, তাপমাত্রা ২৬.১ °C
 
২৪ জানুয়ারী ২০১৭, ১১ মাঘ ১৪২৩, মঙ্গলবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

মুক্ত আমিরের ক্ষমা প্রার্থনা

প্রকাশিত : ৪ সেপ্টেম্বর ২০১৫

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ মঙ্গলবারই আইসিসি কর্তৃক পাঁচ বছরের নিষেধাজ্ঞার মেয়াদ শেষ হয়েছে কলঙ্কিত তিন পাকিস্তানী ক্রিকেটার সালমান বাট, মোহাম্মদ আসিফ ও মোহাম্মদ আমিরের। অপর দুজনকে নিয়ে বিতর্ক থাকলেও বয়স কম হওয়ায় পুনরায় দলে ফেরার জোরালো সম্ভাবনা রয়েছে পেসার আমিরের। ফর্ম-ফিটনেসের দিক থেকে পুরোপুরি প্রস্তুত হয়ে ফিরতে চান তিনি। পাশাপাশি নিজের অপকর্মের জন্য দেশের মানুষ এবং বিশ্বজুড়ে ভক্তদের কাছে ক্ষমা চেয়েছেন আমির, ‘আমি আমার অতীত ভুলের জন্য পরিবার, বন্ধু-বান্ধব, দেশবাসী এবং সব ভক্তের কাছে আন্তরিকভাবে ক্ষমা প্রার্থনা করছি। বলে বোঝাতে পারব না, এই ভুলের জন্য ভেতরে ভেতরে আমি কতটা কষ্টে বেড়াচ্ছি। ক্রিকেটের সেবা করেই তার মাসুল দিতে চাই।’ ভাল ক্রিকেটারের পাশাপাশি একজন ভাল মানুষ হয়ে ওঠার তাড়না অনুভব করছেন আমির। আবেগ জড়ানো কণ্ঠে তিনি আরও যোগ করেন, ‘নিষেধাজ্ঞার মেয়াদ শেষ হয়েছে, এটা আমার জীবনের অত্যন্ত সুখের খবর।

অতীতের ভুল থেকে শিক্ষা নিয়ে জীবনটাকে আরও ভালভাবে সাজাতে চাই।’ ২০১০ সালে পাকিস্তানের ইংল্যান্ড সফরে লর্ডস টেস্টে স্পট ফিক্সিংয়ে জড়িয়ে পড়েন তৎকালীন অধিনায়ক বাট, অপর পেসার আসিফ ও আমির। দোষ প্রমাণিত হওয়ায় সব ধরনের ক্রিকেট থেকে পাঁচ বছরের জন্য নিষিদ্ধ হন তারা। সে সময় মাত্র ১৮ বছর বয়স ছিল আমিরের। লন্ডনে কিশোর সংশোধন কেন্দ্রে শাস্তি ভোগের পর চলতি বছরের শুরুর দিকে ঘরোয়া ক্রিকেটে ফেরার অনুমতি পান তিনি। এবার বাট-আসিফের পাশাপাশি আন্তর্জাতিক ক্রিকেটেও নিষেধাজ্ঞার মেয়াদ শেষ হলো আমিরের। কলঙ্কিত এই সব ক্রিকেটারদের পুনরায় জাতীয় দলে ফেরানো নিয়ে পাকিস্তানজুড়ে ব্যাপক বিতর্ক চলছে। গ্রেট জাভেদ মিয়াদাদ, এমনকি বর্তমান টি২০ অধিনায়ক শহীদ আফ্রিদিও চান না এদের ফেরানো হোকা। তাদের যুক্তি, সেক্ষেত্রে ড্রেসিং রুমে বিরূপ প্রতিক্রিয়া হতে পারে। যদিও নিজের আচরণ দিয়েই সবার মন জয় করতে চান ২৩ বছর বয়সী আমির। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘ফেরা নিয়ে কারও আপত্তি থাকলে আমি নিশ্চিত যে তারা এবার আমার আচরণ ও ভাল পারফর্মেন্স দেখে দৃষ্টিভঙ্গি পাল্টাবেন। আমি নিশ্চিত যে আরও ভাল খেলোয়াড়, আর ভাল মানুষ তাদের মন জয় করতে পারব। এটাই আমার একমাত্র লক্ষ্য।’ তবে সমর্থনও পাচ্ছেন আমির। সাবেক তারকা ওয়াসিম আকরাম যেমন বলেন, ‘একজন তরুণ ভুল করেছিল, তাকে শাস্তি দেয়া হয়েছে। বয়সের বিবেচনায় ওকে আমাদের ক্ষমা করা এবং সুযোগ দেয়া উচিত।’ ২০০৯Ñএ অভিষেকের পর দুরন্ত পেস বোলিংয়ের পাশাপাশি টেলএন্ডে চমৎকার ব্যাটিংয়ে অল্পদিনে ক্রিকেটপ্রেমীদের মন জয় করে নিয়েছিলেন আমির।

প্রকাশিত : ৪ সেপ্টেম্বর ২০১৫

০৪/০৯/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: