পরিষ্কার, তাপমাত্রা ১৮.৯ °C
 
২৪ জানুয়ারী ২০১৭, ১১ মাঘ ১৪২৩, মঙ্গলবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

উবাচ

প্রকাশিত : ৪ সেপ্টেম্বর ২০১৫

আমিও একটু বেহায়া ॥ হান্নান শাহ

স্টাফ রিপোর্টার ॥ দেশের রাজনীতিতে বিশ্ববেহায়া খেতাবটি একজনের জন্যই বরাদ্দ রয়েছে। সেনানায়ক থেকে রাতারাতি রাষ্ট্রনায়ক হয়ে ওঠা এইচ এম এরশাদ। কিন্তু তার বন্ধু-বান্ধবরাও ইদানীং বলছেন তিনি আমার বন্ধু হওয়ায় আমিও একটু বেহায়া। তাও আবার দাবি করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য হান্নান শাহ। ভরা মজলিসে তিনি দাবি করছেন এরশাদ তার বন্ধু হওয়ায় তিনিও খানিকটা বেহায়া। জাতীয় প্রেসক্লাবে বুধবার ‘জাতীয়তাবাদী প্রত্যাগত প্রবাসী দল’ নামে এক নতুন দোকান আয়োজিত এক সমাবেশে বলেন, যে সরকার ‘বিশ্ববেহায়া নারী কেলেঙ্কারির সঙ্গে জড়িত’ এরশাদের সঙ্গে জোট বেঁধে বড় বড় কথা বলছে তাকে বলার কিছুই থাকে না। কিন্তু এরশাদ আমার বন্ধু। সেক্ষেত্রে আমিও মনে হয় একটু বেহায়া। কিন্তু হান্নান শাহ কী আসলেই ভুলে গেছেন না তিনি মনেই করতে চান না এক সময় তার দল বিএনপিই এরশাদের জাতীয় পার্টির সঙ্গে জোট করার জন্য কতটা মরিয়া ছিল। হান্নান শাহ এ সময় আরও বলেন, আমরা অতীতে এই সরকারের বিরুদ্ধে ছোটখাটো আন্দোলন করেছি। এবার দল পুনর্গঠন করে নতুন গতিতে আন্দোলন গড়ে তোলা হবে। বিগত দিনের মতো কমিটি গঠনে আর তদ্বির করে কেউ পদ পাবেন না।

ওরা আমাকেও মেরেছে ॥ শাবি ভিসি

স্টাফ রিপোর্টার ॥ বিশ্ববিদ্যালয়ের নানা কাজেই ছাত্র সংগঠনকে ভেতরে ভেতরে কাজে লাগানোর অভিযোগ আছে উপাচার্যদের বিরুদ্ধে। এর বিনিময়ে সাধারণত সরকার দলীয় ছাত্র সংগঠনকে নানা সুবিধাও দেয়া হয়। কিন্তু এসবই হয় অতিগোপনে। কিন্তু এবার সিলেটে ভিসি পদত্যাগের আন্দোলন থেকে শিক্ষকদের শায়েস্তা করতে ছাত্রলীগকে কাজে লাগানোর ঘটনা নজিরবিহীন। শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে উপাচার্যের পদত্যাগ দাবিতে আন্দোলনরত শিক্ষকদের ওপর ছাত্রলীগের হামলার ঘটনাটি রবিবার গণমাধ্যমের শিরোনামে উঠে আসে। কিন্তু উপাচার্য অধ্যাপক আমিনুল হক ভূইয়ার ভাবখানা এমন ছাত্রলীগ নয় বরং তিনিই নিজেই লাঞ্ছিত হয়েছেন আন্দোলনরত শিক্ষকদের হাতে। উপাচার্য সংবাদ মাধ্যমকে বলেন সকালে আমি আমার কার্যালয়ে ঢোকার সময় আন্দোলনরত শিক্ষকদের

হাতে লাঞ্ছিত হয়েছি। এ সময় ড. জাফর ইকবালের সহধর্মিণী ড. ইয়াসমিন হক, মোঃ ইউনুছ, ফারুক উদ্দিনসহ কয়েক শিক্ষক আমাকে লাঞ্ছিত করেন। শিক্ষকদের হামলায় তিনি নাকি পায়ে ব্যথাও পেয়েছেন। সংবাদ মাধ্যমে ও দিন বিষয়টি গুরুত্ব পাওয়ার পরও উপাচার্য বলছেন, ছাত্রলীগ শিক্ষকদের ওপর হামলা করছে এটা আমার জানা নেই। ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা শিক্ষকদের ওপর হামলা করেছে এমন অভিযোগও আমি পাইনি। ক্যাম্পাসে ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা কোন শিক্ষকের ওপর হামলা করার অভিযোগ পেলে তদন্ত করা হবে।

কর্মসূচী দিয়ে বিদেশ পালাবেন ড. কামাল ॥ কামরুল

স্টাফ রিপোর্টার ॥ সত্যিকার অর্থেই দেশের উন্নয়নের জন্য জাতীয় ঐক্যর কোন বিকল্প নেই। কিন্তু দেশে জাতীয় ঐক্য নিয়ে যারা কাজ করেন তাদের মধ্যে এই ঐক্য কতক্ষণ বজায় থাকবে তা নিয়ে যথেষ্ট সন্দেহ প্রকাশ করাটা দোষনীয় কিছু নয়। আগে জাতীয় ঐক্যের ডাক দিতে যে কজন সিনিয়র সিটিজেনকে পাওয়া যেত ক্রমেই তারা বিভিন্ন স্থানে নিজেদের জড়িয়ে ফেলায় আর এক সঙ্গে দেখা যায় না। ফলে জাতীয় ঐক্য বলে কেউ গলা ফাটালেও মানুষ আর তা কানে তোলে না। সরকারী দলও বিষয়টিকে খুব একটা পাত্তা দেয় না। সম্প্রতি গণফোরামের সভাপতি ড. কামাল হোসেনের ১১ দফা সনদের সমালোচনা করে খাদ্যমন্ত্রী কামরুল ইসলাম বলেছেন, আজ যারা জাতীয় ঐক্যের কথা বলছেন, দুদিন পর তারা বিদেশ পালাবেন। কর্মসূচী দিয়েই বিদেশে পালিয়ে যাবেন। পলায়ন যাদের ইতিহাস তাদের দিয়ে কখনও জাতীয় ঐক্য সম্ভব নয়। কামরুল ইসলাম বলেন, ইতিহাস বলে আজ যারা জাতীয় ঐক্য ঘোষণা করছে তারা জনগণের পক্ষে থাকবে না। তাদের ইতিহাস বলে তারা কখনও জনগণের পক্ষে ছিল না। যখন মানুষ আগুনে পুড়ে যায় তখন এরা কোথায় থাকে? যারা জাতিতে বিভেদ সৃষ্টি করে জাতীয় ঐক্যের ডাক দেয় তারা আমাদের বন্ধু হতে পারে না। তারা আমাদের মুক্তিযুদ্ধের বিপক্ষের শক্তি ও আল কায়েদাকেই পরোক্ষভাবে মদদ দিয়ে যাচ্ছে।

প্রকাশিত : ৪ সেপ্টেম্বর ২০১৫

০৪/০৯/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

প্রথম পাতা



ব্রেকিং নিউজ: