মূলত মেঘলা, তাপমাত্রা ২২.৮ °C
 
২২ ফেব্রুয়ারী ২০১৭, ১০ ফাল্গুন ১৪২৩, বুধবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

অধিবেশন শুরু প্রথম দিনই বিরোধী দলের ওয়াকআউট

প্রকাশিত : ২ সেপ্টেম্বর ২০১৫, ১২:২৫ এ. এম.

সংসদ রিপোর্টার ॥ বিদ্যুৎ ও গ্যাসের মূল্য বৃদ্ধির কঠোর সমালোচনা করে সংসদ অধিবেশনের প্রথম দিনই ওয়াকআউট করেছে বিরোধী দল। মঙ্গলবার সংসদে বিরোধী দলীয় নেতা রওশন এরশাদ পয়েন্ট অব অর্ডারে মূল্য বৃদ্ধির বিরুদ্ধে সরকারের সমালোচনা করে দলের সংসদ সদস্যদের নিয়ে ওয়াকআউট করেন। এর বিরোধিতা করেন শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু। পরে বিদ্যুত ও গ্যাসের মূল্য বৃদ্ধির ব্যাখ্যা দেন বিদ্যুত জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ।

স্পীকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে বিকেল পাঁচটায় সংসদের সপ্তম অধিবেশন শুরু হয়। চলবে ১০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত অধিবেশনের প্রথম দিনেই প্রশ্নোত্তর পর্ব শেষে অনির্ধারিত আলোচনা উত্থাপন করেন বিরোধী দলীয় নেতা রওশন এরশাদ। এ সময় সংসদ নেতা ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান এইচ এম এরশাদ সংসদে উপস্থিত ছিলেন। বিরোধী দলের ওয়াকআউটের সময় ফ্লোর নিয়ে শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু বিরোধী দলকে উদ্দেশ্য করে বলেন, উনি প্রশ্ন করলেন, কিন্তু সরকারের কথা না শুনেই চলে যাচ্ছেন। এটা গণতন্ত্র সম্মত হলো না।

বিরোধী দলীয় নেতা সংসদীয় কমিটির সমালোচনা করে বলেন, জনগণ যখন সরকারের সিদ্ধান্তের প্রতিবাদ জানাচ্ছে, তখন সংসদীয় কমিটি বলছে মূল্য আরও বাড়ানো উচিত। আরও বাড়ানোর ঘোষণাও দিচ্ছে। তারা স্বস্তির বদলে জনজীবনে অস্বস্তি দিতে চায়।

বিরোধী দলীয় নেতার বক্তব্যের জবাবে বিদ্যুত প্রতিমন্ত্রী বিদ্যুত ও গ্যাসের মূল্য বৃদ্ধি করা হয়নি বলে দাবি করে বলেন, মূল্য সমন্বয় করা হয়েছে। উৎপাদন মূল্যের থেকে কমে বিদ্যুত বিক্রি করতে হয়। আর বিদ্যুতের যে মূল্য বেড়েছে তা খুবই সামান্য।

অধিবেশন শুরুর আগে সংসদের কার্য উপদেষ্টা কমিটির বৈঠকে আগামী ১০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত অধিবেশন চালানোর সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। চলবে আট কার্যদিবস। প্রতি কার্যদিবসে বিকেল পাঁচটায় অধিবেশন শুরু হবে।

স্পীকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত কার্য উপদেষ্টা কমিটির বৈঠকে কমিটির সদস্য সংসদ নেতা ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, বিরোধীদলীয় নেতা রওশন এরশাদ, প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ দূত ও জাপা চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ, আমির হোসেন আমু, তোফায়েল আহমেদ, শেখ ফজলুল করিম সেলিম, সুরঞ্জিত সেনগুপ্ত, চীফ হুইপ আ স ম ফিরোজ, মইন উদ্দীন খান বাদল এবং আইন বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রী আনিসুল হক উপস্থিত ছিলেন। জাতীয় সংসদের সিনিয়র সচিব আশরাফুল মকবুলসহ সংসদ সচিবালয়ের উর্ধতন কর্মকর্তারা বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন।

এবার ৫ সদস্যের সভাপতিম-লী মনোনীত করা হয়েছে। সদস্যদের মধ্যে রয়েছেন আব্দুস শহীদ, কাজী কেরামত আলী, তাজুল ইসলাম, ফখরুল ইমাম এবং উম্মে কুলসুম স্মৃতি। পরে বিশিষ্ট জনের মৃত্যুতে শোক প্রস্তাব আনা হয় এবং নিজ নিজ আসনে দাঁড়িয়ে এক মিনিট নীরবতা পালন শেষে মোনাজাত করা হয়।

স্পীকার ভারতের সাবেক রাষ্ট্রপতি এ পি জে আবদুল কালাম, সাবেক সংসদ সদস্য ও এরশাদের প্রধানমন্ত্রী কাজী জাফর আহমেদ, সাবেক স্পীকার শেখ রাজ্জাক আলী, সাবেক সংসদ সদস্য মোঃ আলিম উদ্দিন, সুদীপ্তা দেওয়ান, ইয়াকুব আলী চৌধুরী, আবদুল লতিফ ভূঁইয়া, আবুল কালাম আজাদ, ভারতের রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখার্জীর স্ত্রী শুভ্রা মুখার্জী, সংসদ সচিবালয়ে সহকারী সার্জেন্ট এ্যাট আর্মস রফিক আহমেদ পাটোয়ারী, অফিস সহায়ক খোন্দকার শামসুজ্জামান সেলিমের মৃত্যুতে শোক প্রস্তাব উপস্থাপন করেন।

এছাড়া সাবেক উপদেষ্টা ও আইজিপি এ বি এম জি কিবরিয়া, সাবেক প্রধান নির্বাচন কমিশনার ও বিচারপতি সুলতান হোসেন খান, একুশে পদকপ্রাপ্ত সাংবাদিক হাবিবুর রহমান মিলন, একুশে পদকপ্রাপ্ত এ্যামিরিটাস অধ্যাপক ডা. মুজিবুর রহমান, ভাষা সৈনিক আবদুর রাজ্জাক, ভাষা সৈনিক সাংবাদিক এম ওবায়দুল হক, ভাষা সৈনিক আয়েশা জালাল, কৃষিবিজ্ঞানী জহিরুল ইসলাম, প্রাণ-আরএফএল গ্রুপের প্রতিষ্ঠাতা আমজাদ খান চৌধুরী, সঙ্গীতশিল্পী ফরিদা ইয়াসমিনের মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করা হয়।

প্রকাশিত : ২ সেপ্টেম্বর ২০১৫, ১২:২৫ এ. এম.

০২/০৯/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: