কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২৩.৯ °C
 
২০ ফেব্রুয়ারী ২০১৭, ৮ ফাল্গুন ১৪২৩, সোমবার, ঢাকা, বাংলাদেশ

গাজরের রসে ক্যান্সার জয়!

প্রকাশিত : ৩১ আগস্ট ২০১৫
গাজরের রসে  ক্যান্সার জয়!

শুধুমাত্র মনের জোরে এবং গাজরের রস খেয়েই ১৩ মাসে ক্যান্সার তাড়িয়ে মৃত্যুকে জয় করেছেন অ্যান। ২০১৩ সালেই অ্যান ক্যামেরনকে ডাক্তাররা জানিয়েছেন, ক্যান্সারের চতুর্থ স্টেজে রয়েছেন তিনি। তাই বড়জোর আর ২ বছর বাঁচবেন। অ্যান বলেন, ডাক্তারদের কথা শুনে দমে না গিয়ে অনলাইনেই নানা টোটকা খোঁজার চেষ্টা করি। তার স্বামীও ২০০৬ সালে ক্যান্সারেই মারা গিয়েছিলেন। সে সময় তিনি যন্ত্রণাদায়ক কেমোথেরাপির প্রতিক্রিয়া দেখেছিলেন। তাই ইন্টারনেটে ক্যান্সারের সঙ্গে যুদ্ধে জিতেছেন এমন মানুষজনের সঙ্গে কথা বলা শুরু করেন অ্যান। এভাবেই একদিন তিনি রাল্ফ কোলের একটি ই-মেল পান। যেখানে রাল্ফ জানান, শুধু গাজরের জুস খেয়ে তিনি ক্যান্সার থেকে সম্পূর্ণ মুক্তি পেয়েছেন। ই-মেলে নিজের অভিজ্ঞতার কথা জানান অ্যানকে।

রাল্ফ লেখেন, প্রতিদিন প্রায় আড়াই কিলো গাজরের সর পান করতেন তিনি। তবে প্রথমে তিনি জানতেন না ঠিক কতটা করে পান করা উচিত। তাই শুরুতে তিন পাউন্ড গাজরের জুস বানিয়ে পান করতেন প্রতিদিন।

ই-মেল পাওয়ার পর থেকে অ্যানও একই কাজ করতে আরম্ভ করেন। প্রতিদিন ১ লিটার গাজরের জুস বেশ কয়েকবার ধরে পান করতেন তিনি। এছাড়া তিনি তার জীবনযাত্রার অন্য কোন কিছু পাল্টাননি। খাওয়া-দাওয়া থেকে অফিস যাওয়া কোন কিছুই বন্ধ করেননি অ্যান।

৬ মাস পর থেকেই এর প্রভাব বুঝতে শুরু করেন তিনি। ১৩ মাস পর সিটি স্ক্যানে ধরা পড়ে ক্যান্সারের কোন কোষই আর অ্যানের শরীরে অবশিষ্ট নেই। নিজের অভিজ্ঞতা নিয়ে Ñ‘কিওরিং ক্যান্সার উইথ ক্যারট’ নামে একটি বইও লেখেন। Ñওয়েবসাইট।

প্রকাশিত : ৩১ আগস্ট ২০১৫

৩১/০৮/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

প্রথম পাতা



ব্রেকিং নিউজ: