আংশিক রৌদ্রজ্জ্বল, তাপমাত্রা ৩১.১ °C
 
২১ ফেব্রুয়ারী ২০১৭, ৯ ফাল্গুন ১৪২৩, মঙ্গলবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

রাজশাহীতে অন্যতম শিল্পাঞ্চল গড়ে তোলার প্রত্যয়

প্রকাশিত : ৩১ আগস্ট ২০১৫

স্টাফ রিপোর্টার, রাজশাহী ॥ রেশম শিল্পকে কেন্দ্র করে সরকারী সহযোগিতা ও দীর্ঘমেয়াদী পরিকল্পনা বাস্তবায়নের মধ্য দিয়ে অপেক্ষাকৃত পিছিয়ে পড়া রাজশাহী অঞ্চলকে অন্যতম শিল্পাঞ্চল হিসেবে গড়ে তোলা সম্ভব বলে দৃঢ় মতামত ব্যক্ত করেছেন এফবিসিসিআই সভাপতি আব্দুল মাতলুব আহমাদ।

তিনি বলেন, কৃষিনির্ভর রাজশাহী বিভাগে পাট, চিনি, বস্ত্র, লৌহ ও ইস্পাত ইত্যাদি বৃহৎ শিল্পের পাশাপাশি কৃষিভিত্তিক বিভিন্ন শিল্প, খাদ্য প্রক্রিয়াজাতকরণ শিল্প, চামড়া ও তাঁত শিল্পের প্রসার ঘটানো সম্ভব। তিনি শ্রমনির্ভর শিল্প গড়ে তোলার প্রত্যয় ব্যক্ত করে বলেন, বিভিন্ন সময় প্রকল্প পরিকল্পিতভাবে বাস্তবায়ন করতে পারলে এ অঞ্চলের কর্মস্থান ও দ্রুত আর্থ-সামাজিক উন্নয়ন ঘটানো সম্ভব। রবিবার সকালে রাজশাহী চেম্বার অব কমার্স এ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির সম্মেলন আয়োজিত সেমিনানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এফবিসিসিআই সভাপতি আব্দুল মাতলুব আহমাদ এসব কথা বলেন। রাজশাহী চেম্বার অব কমার্স এ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির সভাপতি মনিরুজ্জামান মনির সভাপতিত্বে সেমিনারে স্বাগত বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ রেশম শিল্প মালিক সমিতি রাজশাহীর সভাপতি মোঃ লিয়াকত আলী। মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন ফ্রেডরিক নুউম্যান ফাউন্ডেশনের বাংলাদেশ প্রতিনিধি অর্থনীতিবিদ ড. নাজমুল হোসেন। প্রবন্ধের ওপর আলোচনায় অংশ নেন রাবির আইবিএসএর অধ্যাপক ড. এম. মোস্তফা কামাল, এগ্রোনোমী এ্যান্ড এগ্রিল এক্সটেনশন বিভাগের অধ্যাপক ড. মোস্তাফিজুর রহমান।

বক্তারা বলেন, বাংলাদেশে বর্তমানে ১১টি রেশম নার্সারি রয়েছে। বর্তমানে ঢাকা, চট্টগ্রামের চেয়ে রাজশাহীতে জমির দাম কম। তাছাড়া এখানে শ্রমিক খরচ অনেক কম। যদি এখানে সঠিকভাবে বিনিয়োগ করা হয় সকলেই লাভবান হবেন। রাজশাহীতে বেসরকারীভাবে উদ্যোক্তা সৃষ্টি, ভর্তুকি প্রদান, স্বল্পসুদে ঋণ দান, উন্নতমানের কারখানা প্রতিষ্ঠা করা সম্ভব হলে রেশমকে পূর্বের অবস্থানে ফিরিয়ে আনা সম্ভব। প্রধান অতিথির বক্তব্যে এফবিসিসিআই সভাপতি আব্দুল মাতলুব আহমাদ আরও বলেন, রাজশাহীর নিজস্ব রেশম ঐতিহ্য ধরে রাখতে হবে। রাজশাহীকে আরও উন্নত করে তোলা সম্ভব শুধু সিল্কের মাধ্যমে। বর্তমান সরকারও সিল্ক নিয়ে ভাবনা শুরু হয়েছে। ব্যবসায়ীরা এগিয়ে আসলে রাজশাহী চেম্বার ও এফবিসিসিআই সিল্কের প্রসার ঘটাতে সহায়তা দিবে। তিনি দেশের ভিতরের মার্কেট আরও বাড়ানোর ওপর গুরুত্বারোপ করে বলেন, ‘আমরা আমাদের তৈরি সুতা দিয়ে রেশম কাপড় পড়তে চাই’।

প্রকাশিত : ৩১ আগস্ট ২০১৫

৩১/০৮/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

অর্থ বাণিজ্য



ব্রেকিং নিউজ: