আংশিক মেঘলা, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৬ ডিসেম্বর ২০১৬, ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, মঙ্গলবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

আইএস নির্মূলে সিরিয়ায় বিমান হামলার চিন্তা ব্রিটেনের

প্রকাশিত : ৪ জুলাই ২০১৫
  • লেবার সমর্থনে পার্লামেন্টে ভোটাভুটির প্রস্তুতি টোরির

ব্রিটেনের প্রধানমন্ত্রী ডেভিড ক্যামেরন বলেছেন, আইএসকে অবশ্যই তাদের সিরীয় প্রাণকেন্দ্রে ধ্বংস করতে হবে। তাদের একটি ‘সমুচিত জবাব’ দেয়া প্রয়োজন। তিউনিসিয়ায় সন্ত্রাসী হামলার পর লেবার পার্টি কনজারভেটিভ দলকে সমর্থন করতে প্রস্তুত বলে আভাস দেয়ার পর ব্রিটেন আগামী কয়েক মাসের মধ্যে সিরিয়ায় আইএসের বিরুদ্ধে বিমান হামলা শুরু করতে পারে। টোরি দলের কিছু সাধারণ সদস্যের বিরোধিতা সত্ত্বেও কনজারভেটিভরা হামলার প্রশ্নকে ভোটাভুটিতে দেয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছে। ওই সদস্যরা সতর্ক করে দিয়েছে যে, সামরিক হস্তক্ষেপ সিরিয়ার একনায়ক বাশার আল আসাদ সরকারের শক্তি বৃদ্ধি করবে। খবর টেলিগ্রাফের।

প্রতিরক্ষামন্ত্রী মাইকেল ফ্যালন বলেছেন, সরকার ‘পর্যাপ্ত ঐকমত্য’ নিশ্চিত করা গেলেই সিরিয়ায় বিমান হামলার বিষয়টি ভোটাভুটিতে দেবে। ছায়া প্রতিরক্ষামন্ত্রী ভার্নন কোকার বলেছেন, আইএসকে পরাজিত করতে লেবার ‘সরকারের সঙ্গে কাজ করতে প্রস্তুত আছে’ এবং এ ব্যাপারে যে কোন প্রস্তাব সযতেœ মূল্যায়ন করব।

অবশ্য লেবার এমপিদের সমর্থনের ওপর তিনি নির্ভর করতে পারেন কিনা তা নিশ্চিত করতে ক্যামেরনকে সেপ্টেম্বরে লেবারের একজন নতুন নেতাকে নিয়োগদান না করা পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হতে পারে। তিনি সিরীয় প্রেসিডেন্ট বাশার আল আসাদের বিরুদ্ধে সামরিক ব্যবস্থা গ্রহণের ওপর ২০১৩-এর ভোটাভুটির পুনরাবৃত্তি পরিহার করতে দৃঢ়সংকল্প। সে সময় তিনি কমন্স সভায় লেবার ও বিদ্রোহী কনজারভেটিভদের হাতে শোচনীয়ভাবে পরাজিত হন। ২০১৩-এর ওই ভোটাভুটিতে মোট ৩০ জন টোরি এমপি সরকারের বিরুদ্ধাচরণ করেন।

২০ জন ভোটদানে বিরত থাকেন। তাদের মধ্যে অনেকে বলেছেন, তারা আবার একই কাজ করতে প্রস্তুত।

ডিফেন্স সিলেক্ট কমিটির চেয়ারম্যান জুলিয়ান লুইস বলেন, আমরা আসাদকে সাহায্য না করেই, স্পষ্টত দায়েশের (আইএস) অপসারণ চাই। এই দুটি জিনিস সঙ্গতিপূর্ণ নয়। এটি হলো বদমায়েশদের মধ্য থেকে বাছাই করা। আমার সম্মানিত বন্ধুরা তাদের মধ্যে কাকে মন্দের ভাল বলে মনে করেন।

ফ্যালন বলেন, সিরিয়ার বোমাবর্ষণ আসাদের জন্য কোন ত্রাণ নিয়ে আসবে না। তিনি আরও বলেন, আইনের আওতার মধ্যেই অতিরিক্ত বিমান হামলা চালানো হবে। তিনি এ সত্য তুলে ধরেন যে, যুক্তরাষ্ট্র, কানাডা এবং অন্যান্য উপসাগরীয় দেশ এরই মধ্যে বিমান হামলা চালিয়ে যাচ্ছে।

প্রকাশিত : ৪ জুলাই ২০১৫

০৪/০৭/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

বিদেশের খবর



ব্রেকিং নিউজ: