কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৪ ডিসেম্বর ২০১৬, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ

মধ্য আয়ের দেশের নামে মিথ্যাচার: সিপিবি

প্রকাশিত : ৩ জুলাই ২০১৫, ০২:০১ পি. এম.

অনলাইন রিপোর্টার ॥ মিথ্যা হিসাব দিয়ে সরকার দেশকে মধ্য আয়ের দেশ দাবি করছে বলে মন্তব্য করেছেন বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি (সিপিবি)। শুক্রবার দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে আয়োজিত বিক্ষোভ সমাবেশে দলটির সভাপতি মুজাহিদুল ইসলাম সেলিম এ মন্তব্য করেন।

১০ জুলাইয়ের মধ্যেই শ্রমিকদের বেতন-বোনাস পরিশোধের দাবিতে সিপিবি ও বাংলাদেশ সমাজতান্ত্রিক দল (বাসদ) এ সমাবেশের আয়োজন করে।

সেলিম বলেন, দেশ মধ্য আয়ের হলেও মানুষ মধ্য আয়ের নয়। আমরা মধ্য আয়ের দেশ নয়, মধ্য আয়ের মানুষ চাই।

তিনি বলেন, বুধবার আন্তর্জাতিকভাবে একটি ঘোষণা এসেছে, যে দেশ মধ্য আয়ের দেশে পরিণত হয়েছে। বলা হচ্ছে-মাথাপিছু আয় বছরে ১ লাখ টাকা। কিন্তু দেশের সব মানুষের আয় কি ১ লাখ টাকা? কাজেই একটা মিথ্যা তথ্য দিয়েছে সরকার।

সেলিম বলেন, প্রকৃত মধ্য আয়ের দেশ হবে তখনই, যখন প্রত্যেক মানুষের আয় হবে অন্তত ১ লাখ টাকা। কাজেই যে মধ্য আয়ের দেশ বলা হচ্ছে, এটা মিথ্যাচার ছাড়া কিছুই না। আমরা এ মধ্য আয়ের দেশ চাই না, চাই মধ্য আয়ের মানুষ।

সিপিবি’র এই নেতা বলেন, স্বাধীনতা পর অর্থমন্ত্রী তাজউদ্দীন আহমদের কাছে বলেছিলাম সর্বনিন্ম ও সর্বোচ্চ বেতনের অনুপাত হবে ১:৫। অর্থাৎ সচিবের বেতন ৪০ হাজার টাকা হলে পিয়নের বেতন হবে ৮ হাজার টাকা। আমরা এখনো একই দাবি জানাই। কিন্তু প্রত্যেক সরকার ধনীকে আরও ধনী এবং গবীরকে আরও গরীব বানাচ্ছে।

প্রধান দু’দলের সমালোচনা করে তিনি বলেন, সাম্রাজ্যবাদী শক্তি ইসলামী জঙ্গীবাদ নামের নতুন এক শক্তি নামিয়ে দিয়েছে। আর বিএনপি তো জামায়াতে ইসলামীকে নিজেদের জোটে নিয়েছে। অন্যদিকে আওয়ামী লীগও বলছে, যুদ্ধাপরাধী ছাড়া জামায়াতে যারা আছে সবাইকে স্বাগতম। কাজেই বড় দলগুলো নিজেদের ক্ষমতাকে পাকাপোক্ত করতে সব সময় আপোষ করছে।

এ সময় তিনি দ্রুত শ্রমিকদের বেতন-বোনাস পরিশোধে কারখানা মালিকদের প্রতি আহ্বান জানান।

সমাবেশে সভাপতির বক্তব্যে বাসদের সাধারণ সম্পাদক খালেকুজ্জামান বলেন, এবার আগে থেকেই বেতন-বোনাস পরিশোধের দাবি জানানো হচ্ছে। কাজেই ব্যাংক বন্ধ, লোন পাওয়া যাচ্ছেনা ইত্যাদি কোনো ধরণের অজুহাত মেনে নেওয়া হবে না। আগামী ১০ জুলাইয়ের মধ্যেই শ্রমিকদের বেতন-বোনাস পরিশোধ করতে হবে।

সমাবেশে অন্যদের মধ্যে বাসদ নেতা বজলুর রশীদ ফিরোজ, সিপিবি নেতা মন্টু ঘোষ প্রমুখ বক্তব্য রাখেন। সামবেশ শেষে নেতৃবৃন্দ একটি মিছিল বের করেন। মিছিলটি জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে থেকে শুরু হয়ে পল্টনে গিয়ে শেষ হয়।

প্রকাশিত : ৩ জুলাই ২০১৫, ০২:০১ পি. এম.

০৩/০৭/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: