রৌদ্রজ্জ্বল, তাপমাত্রা ২৩.৯ °C
 
৮ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, বৃহস্পতিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

ঠাকুরগাঁওয়ে গুদামে জায়গা সঙ্কট ॥ চাল সংগ্রহ বন্ধ

প্রকাশিত : ৩ জুলাই ২০১৫

নিজস্ব সংবাদদাতা, ঠাকুরগাঁও, ২ জুলাই ॥ ঠাকুরগাঁওয়ের সরকারী খাদ্যগুদামে জায়গা সঙ্কটে জেলায় বোরো ধান-চাল সংগ্রহ অভিযান বন্ধ হয়ে গেছে। এতে খাদ্য বিভাগের সঙ্গে চুক্তিকারী চালকল মালিকরা গুদামে চাল সরবরাহ করতে না পারায় অর্থ সঙ্কটে পড়বেন বলে আশঙ্কা দেখা দিয়েছে।

গুদামে চাল সরবরাহ করতে না পারায় চালকল মালিকরা কৃষকের কাছ থেকে চাল কেনাও বন্ধ করে দিয়েছেন। জেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রকের কার্যালয় সূত্রে জানা যায়, চলতি মৌসুমে জেলায় বোরো চাল সংগ্রহের লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছে ৬৭ হাজার ৬২২ মেট্রিক টন। পাশাপাশি ধান সংগ্রহের লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছে ১ হাজার ২৫৯ মেট্রিক টন। গত ১ মে থেকে ধান-চাল সংগ্রহের সরকারী ঘোষণা থাকলেও ঠাকুরগাঁওয়ে ২৫ মে থেকে এ কার্যক্রম শুরু হয়। ৩০ জুন পর্যন্ত জেলায় চাল সংগ্রহ হয় ১৮ হাজার ২৩৫ মেট্রিক টন। জেলায় ১২টি সরকারী খাদ্যগুদাম (লোকাল স্টোরেজ ডিপো) রয়েছে। এসব গুদামের ধারণক্ষমতা ৪২ হাজার মেট্রিক টন। তবে জরুরী প্রয়োজনে আরও ২৫ ভাগ বেশি খাদ্যশস্য মজুত করা যায়। বর্তমানে গুদামে ৫৮ হাজার মেট্রিক টন খাদ্যশস্য মজুত রয়েছে। ফলে কিছু চাল সংগ্রহের পর এ কার্যক্রম বন্ধ রয়েছে।

ঠাকুরগাঁও শহরের চালকল মালিক তরিকুল ইসলাম জানান, ‘ব্যাংক ঋণ ও নগদ টাকায় কেনা আট হাজার মণ ধান আমার মিলে মজুত আছে। ধানগুলো চাল করে গুদামে দিতে পারলে ব্যাংকের সুদের বোঝা কমাতে পারতাম। চাল সংগ্রহ কার্যক্রম বন্ধ থাকায় আমরাও হাত গুটিয়ে বসে আছি।’

চাঁপাইয়ে বিষাক্ত গ্যাসে এক জনের মৃত্যু

স্টাফ রিপোর্টার, চাঁপাইনবাবগঞ্জ ॥ শিবগঞ্জ পৌর এলাকার তর্ত্তিপুর মহলায় পরিত্যক্ত কুয়ায় নেমে বিষাক্ত গ্যাসে নিহত এক ব্যক্তির লাশ বৃহস্পতিবার সকালে উদ্ধার করেছে ফায়ার সার্ভিস।

নিহত ব্যক্তি হচ্ছে, জেলার শিবগঞ্জ পৌর এলাকার তর্ত্তিপুর মহল্লার সাদিকুল ম-লের ছেলে মোহাম্মদ ডালিম (৫০)। চাঁপাইনবাবগঞ্জ ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের উপ-সহকারী পরিচালক অহিদুল ইসলাম জানান, বুধবার সকাল দশটার দিকে বাড়ির পাশে পরিত্যক্ত একটি কুয়ায় ডালিমের বালতি পড়ে যায়। তিনি ওই বালতি তুলতে কুয়ায় নামলে বিষাক্ত গ্যাসে অসুস্থ হয়ে পড়েন। এ সময় তার ছেলে রবিউল ইসলাম তার পিতাকে উদ্ধারের জন্য কুয়ায় নামলে সেও অসুস্থ হয়ে পড়ে।

ঠাকুরগাঁওয়ে টাকা ছাড়া মিলছে না প্রশংসাপত্র

নিজস্ব সংবাদদাতা, ঠাকুরগাঁও, ২ জুলাই ॥ পীরগঞ্জ পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ে টাকা ছাড়া মিলছে না প্রশংসাপত্র। এতে শিক্ষার্থী ও অভিভাবকরা ক্ষুব্ধ। এইচএসসিতে ভর্তির জন্য প্রশংসাপত্র আনতে গেলে অভিভাবক ও শিক্ষার্থীদের কাছে দু’শত টাকা করে নেয়া হচ্ছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

শিক্ষার্থী তামিম আহমেদ জানায়, প্রশংসাপত্রের জন্য অফিস তার কাছে দু’শত টাকা চায়। সঙ্গে টাকা না থাকায় বাড়ি থেকে টাকা এনে প্রশংসাপত্র নিতে হয়েছে। তাইবুর মাসুদ এ্যালবার্ট নামের আরেক শিক্ষার্থী বলে, ‘আমার বাবা এক মণ ধান বেচে সাড়ে তিন’শ টাকা পান।’ প্রশংসাপত্রের জন্যই দুশ’ টাকা দিতে হয়েছে।

এ বিষয়ে অফিস সহকারী বলেন, টাকা নেয়ার ব্যাপারে তারা কিছু জানেন না। ‘এটা প্রধান শিক্ষকের নির্দেশ।’

প্রকাশিত : ৩ জুলাই ২০১৫

০৩/০৭/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

দেশের খবর



ব্রেকিং নিউজ: