মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
৯ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শুক্রবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

আলোচনায় হ্যারি পটারের আফসানা আজাদ

প্রকাশিত : ২ জুলাই ২০১৫

সংস্কৃতি ডেস্ক ॥ দুনিয়াজোড়া তুমুল জনপ্রিয় ব্রিটিশ চলচ্চিত্র ‘হ্যারি পটার’ সিরিজগুলো দর্শকদের আলাদা বিনোদন দিয়ে থাকে। বিশেষ করে শিশু দর্শকদের জন্য এ চলচ্চিত্রগুলো বাড়তি আনন্দের। এ সিরিজের শেষ পাঁচটি চলচ্চিত্রে পদ্ম পাতিল চরিত্রে অভিনয় করেছেন বাংলাদেশী বংশোদ্ভূত অভিনেত্রী আফসানা আজাদ। এ চলচ্চিত্রের দর্শকদের নিশ্চয়ই মনে আছে? মনে থাকারই কথা। কারণ এ সিরিজের চলচ্চিত্রগুলো কে না দেখেছে। চলচ্চিত্রে হগওয়ার্টসের সেই মেয়েটি আর ছোট্টটি নেই, সে এখন সুন্দরী মডেল। সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম টুইটারে এ নিয়ে রীতিমতো হৈ চৈ পড়ে গেছে।

আফসানা আজাদের মা-বাবা দু’জনই বাংলাদেশী। মেয়েটি বেড়ে উঠেছে ইংল্যান্ডের ম্যানচেস্টারে। সাম্প্রতিক সময়ে তার সৌন্দর্যের পরিবর্তন দেখে অনেকেই চমকে গেছেন। তবে তাকে ঘিরে এ মাতামাতি মোটেই পছন্দ করেনি আফসানা। এ নিয়ে ক্ষোভও প্রকাশ করেছেন টুইটারে। তিনি বলেছেন, যা-তা করছেন আপনারা! পুরো মাতামাতিটাই হাস্যকর! এটা ভাল কিন্তু পাগলামি।

আফসানা ২০০৫ সালে যখন ‘হ্যারি পটার এ্যান্ড দ্য গবলেট অব ফায়ার’ চলচ্চিত্রে অভিনয় করেন, তখন তার বয়স ছিল ১৬ বছর। সর্বশেষ ২০১১ সালে ‘হ্যারি পটার এ্যান্ড দ্য ডেথলি হ্যালোস- পার্ট টু’ চলচ্চিত্রে পদ্ম চরিত্রে দেখা যায় তাকে। এখন তিনি ২৭ বছরের তরুণী। ‘হ্যারি পটার’ সিরিজে আফসানার সঙ্গে বাংলাদেশী বংশোদ্ভূত শেফালী চৌধুরীও অভিনয় করেছেন। ‘হ্যারি পটার এ্যান্ড দ্য গবলেট অব ফায়ার’ (২০০৫), ‘হ্যারি পটার এ্যান্ড দ্য অর্ডার অব দ্য ফিনিক্স’ (২০০৭) এবং ‘হ্যারি পটার এ্যান্ড দ্য হাফ-ব্লাড প্রিন্স’ (২০০৯) চলচ্চিত্রে পদ্মর যমজ

বোন পার্বতী পাতিলের ভূমিকায় দেখা গেছে তাকে। আশির দশকে শেফালীর মা-বাবা ইংল্যান্ডের অভিবাসী হন। শেফালী এখন আর অভিনয় না করলেও আফসানা মডেল হিসেবে নিয়মিত কাজ করছেন ব্রিটেনে।

প্রকাশিত : ২ জুলাই ২০১৫

০২/০৭/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: