মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
১১ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

‘ব্যঙ্গচিত্র’ সব সময়ই ব্যঙ্গ নয়

প্রকাশিত : ২ জুলাই ২০১৫

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ সদ্যই বাংলাদেশ থেকে সিরিজ হেরে দেশে ফিরেছে ভারতীয় ক্রিকেট দল। এ নিয়ে গত সোমবার একটি দৈনিকের রম্য ম্যাগাজিনে ভারতীয় দল ও বাংলাদেশের পেসার মুস্তাফিজুর রহমানকে নিয়ে একটি ব্যঙ্গচিত্র ছাপা হয়। ওই ব্যঙ্গচিত্র নিয়ে মঙ্গলবার ভারতীয় সংবাদমাদ্যমে বিরূপ প্রতিক্রিয়া দেখা গেছে। এর মধ্য দিয়ে ভারতীয় ক্রিকেটকে অবমাননা করা হয়েছে বলে দাবি দেশটির সংবাদমাধ্যমের। তবে বুধবার এর জবাবে ঐ দৈনিকটি ভারতের আনন্দবাজার পত্রিকাকে জানিয়েছে, ‘এটা একটা ফান ম্যাগাজিন। এর পেছনে কোন উদ্দেশ্য ছিল না। কাউকে আঘাত দিতে এটা করা হয়নি।’

রসআলোতে যে ব্যঙ্গচিত্র ছাপা হয়েছে সেটিতে দেখা যাচ্ছে, ‘টাইগার স্টেশনারি’ নামক এক দোকানে মুস্তাফিজুর কাটার পাওয়া যাচ্ছে। যেখানে লেখা আছে ‘এখানে বাংলাদেশে প্রস্তুতকৃত মুস্তাফিজ কাটার পাওয়া যায়’। পাশে কাটার হাতে দাঁড়িয়ে স্বয়ং মুস্তাফিজুর রহমান। এর ঠিক নিচে মহেন্দ্র সিং ধোনিসহ দাঁড়িয়ে সাত ভারতীয় ক্রিকেটার। সামনে একটা ব্যানারে লেখা ‘আমরা ব্যবহার করেছি, আপনারাও করুন।’ এই ছবিতে সাত ক্রিকেটারের মাথা অর্ধেক কামানো। বিতর্কটা ঠিক এখানে। ভারতীয় সংবাদমাধ্যমের অভিযোগ, বিজ্ঞাপনী যুদ্ধ পর্যন্ত এটা ঠিক ছিল। কিন্তু একটা সংবাদপত্র এটা কিভাবে করতে পারে? সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমেও এটা নিয়ে সমালোচনা ঝড় উঠেছে। তবে অভিযুক্ত পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, বাংলাদেশের ক্রিকেটাররা খারাপ করলে তাঁদেরও বাঘ থেকে বেড়ালে নামিয়ে আনা হয়। মন্ত্রী-আমলারাও বাদ যান না। আসলে যখন যে ব্যাপারটা শিরোনামে থাকে, সেটাকে নাকি এভাবে ‘ক্যারিকেচার’ করা হয়। বিশেষ এই ক্রোড়পত্রের চরিত্রই হলো, কৌতুক করা। নামেই তার প্রমাণ আছে।

তবে বিষয়টি নিয়ে সমালোচনা শেষ হচ্ছে না। ভারতের অন্যতম প্রথম সারির পত্রিকা আইবিএন বাংলাদেশী গণমাধ্যমের সমালোচনায় মুখর হয়ে উঠেছে। তারা টাইগারদের জয়কে খাটো করে বাংলাদেশের গণমাধ্যমকে ব্যাপকভাবে দোষারোপ করছে। ভারতীয় গণমাধ্যম লিখেছেÑ বাংলাদেশ খেলার মাঠে যা অর্জন করেছে তা তাদের দেশের মিডিয়ার দ্বারা ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে। ভারতকে আরও লজ্জা প্রদানের জন্য বাংলাদেশের পত্রিকাটি ২৯ জুন একটি ম্যাগাজিন বের করে। সেখানে ভারতের খেলোয়াড়দের নিয়ে একটি ছবি দেয়া হয়। ম্যাগাজিনটিতে একজন কর্তনকারীর জাল বিজ্ঞাপন তৈরি করে। সেখানে দেখা যায়, বাংলাদেশী ক্রিকেটার মুস্তাফিজুর তার বিখ্যাত ‘অফকাটার’ প্রতীক নিয়ে একজন ‘কর্তনকারী’ বা নাপিত হিসেবে দাঁড়িয়ে আছেন। তার সামনে ভারতীয়দের সাতজন ব্যাটসম্যান দাঁড়িয়ে আছেন।

পত্রিকাটি লিখেছে- অর্ধেক চুল কাটা দ্বারা আমরা সাধারণত অপমান করাই বুঝি। এরকম একটি বিজ্ঞাপন দেশের শীর্ষস্থানীয় পত্রিকায় দেয়া অবশ্যই মানায় না। এরকম বিজ্ঞাপন বাংলাদেশ ও ভারতের সম্পর্কে কোন উন্নয়ন করবে না।

প্রকাশিত : ২ জুলাই ২০১৫

০২/০৭/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

প্রথম পাতা



ব্রেকিং নিউজ: