মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
১০ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শনিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ

একাদশের বই নিয়ে কেলেঙ্কারির সুযোগ নেই

প্রকাশিত : ১ জুলাই ২০১৫, ০৩:৪৭ পি. এম.

স্টাফ রিপোর্টার ॥ একাদশ শ্রেণির শিক্ষার্থীদের জন্য নতুন প্রণীত বই নিয়ে কেউ কোনো কেলেঙ্কারির সুযোগ পাবে না বলে জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ।

২০১৫-১৬ শিক্ষাবর্ষে একাদশ শ্রেণির শিক্ষার্থীদের ক্লাস শুরুর দিন পরিমার্জিত তিনটি বইয়ের বিতরণ ও বিপণন কার্যক্রমের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে এ কথা বলেন শিক্ষামন্ত্রী।

বুধবার জাতীয় শিক্ষাক্রম ও পাঠ্যপুস্তক বোর্ড (এনসিটিবি) মিলনায়তনে এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

চলতি শিক্ষাবর্ষে একাদশ শ্রেণির বাংলা সাহিত্য, বাংলা সহপাঠ ও ইংলিশ ফর টুডে বই তিনটি নুতনভাবে প্রণয়ন করা হয়েছে।

শিক্ষানীতি-২০১০’র আলোকে পরিমার্জিত শিক্ষাক্রম অনুযায়ী একাদশ-দ্বাদশ শ্রেণির ‘ইংলিশ ফর টুডে’ বই সম্পূর্ণ নতুনভাবে প্রণয়ন করেছে এনসিটিবি।

নতুন প্রণীত ইংরেজি বই প্রসঙ্গে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, এ বইটি আন্তর্জাতিকমানের। এর মাধ্যমে শিক্ষার্থীরা ইংরেজি শিখতে আরও উৎসাহী হবে।

‘বাংলা সাহিত্য পাঠ’ (গদ্য ও কবিতা) এবং ‘সহপাঠ’ (উপন্যাস ও নাটক) বই দু’টিরও ব্যাপক পরিমার্জন ও সংশোধন করেছে এনসিটিবি।

একাদশ শ্রেণির ক্লাস শুরুর দিন দুপুরে এনসিটিবি মিলনায়তনে শিক্ষার্থীদের হাতে বই তুলে দিয়ে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, কেউ এই বই নকল করে বাজারজাত করার চেষ্টা করলে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী ব্যবস্থা নেবে। নতুন প্রণীত তিনটি ছাড়াও অন্যান্য বই বাজারে রয়েছে বলে জানান নাহিদ।

এনসিটিবি জানায়, বাংলা সাহিত্য পাঠ ৮ লাখ, বাংলা সহজ পাঠ ৮ লাখ ও ইংরেজি পুস্তক ৯ লাখ কপি মুদ্রণ করা হয়েছে। ১৭টি প্রতিষ্ঠান এই ২৫ লাখ বই প্রণয়ণ করেছে। বইগুলোর বাজার মূল্য যথাক্রমে ১০২, ৪৮ ও ৭৭ টাকা।

সঙ্কট মোকাবেলায় মুদ্রিত বইয়ের মধ্যে ২০ শতাংশ মজুদ রাখা হয়েছে বলে জানান শিক্ষামন্ত্রী।

অনুষ্ঠানের সভাপতিত্ব করেন এনসিটিবি চেয়ারম্যান নারায়ন চন্দ্র পাল।

প্রকাশিত : ১ জুলাই ২০১৫, ০৩:৪৭ পি. এম.

০১/০৭/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: