মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
৯ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শুক্রবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় দিবস আজ ॥ নানা কর্মসূচী

প্রকাশিত : ১ জুলাই ২০১৫

বিশ্ববিদ্যালয় রিপোর্টার ॥ আজ ১ জুলাই ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ৯৪তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী। ১৯২১ সালের এই দিনে প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল প্রাচ্যের অক্সফোর্ডখ্যাত এই বিশ্ববিদ্যালয়টি। এবারের মূল প্রতিপাদ্য ‘উচ্চ শিক্ষা ও টেকসই উন্নয়ন’। দিনব্যাপী নানা আয়োজনের মধ্য দিয়ে দিবসটি পালনের উদ্যোগ নিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। এ উপলক্ষে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক এক শুভেচ্ছা বাণীও প্রদান করেছেন। ওই বাণীতে তিনি বিশ্ববিদ্যালয় পরিবারের সবাইকে বিশ্ববিদ্যালয় দিবস অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণের আহ্বান জানান।

দিবসটি উপলক্ষে গ্রহণ করা নানা কর্মসূচীর মধ্যে রয়েছে বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা, আলোচনা সভা, দুর্লভ আলোকচিত্র প্রদর্শনী ইত্যাদি। বিশ্ববিদ্যালয় দিবস উপলক্ষে বিশ্ববিদ্যালয়কে অপরূপ সাজে সাজানো হয়েছে। একাডেমিক ভবন, প্রশাসনিক ভবন, টিএসসি, কার্জন হল, কলা ভবনসহ বিভিন্ন স্থানে আলোকসজ্জাও করা হয়েছে।

আজ সকাল ১০টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয় দিবসের কর্মসূচীর উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রীর আন্তর্জাতিক বিষয়ক উপদেষ্টা অধ্যাপক ড. গওহর রিজভী। প্রশাসনিক ভবন সংলগ্ন মলে জমায়েত হয়ে বিশ্ববিদ্যালয় ও হলসমূহের পতাকা উত্তোলন করা হবে। এরপর শোভাযাত্রা সহকারে টিএসসিতে যাওয়া হবে। বিশ^বিদ্যালয়ের ছাত্রছাত্রী, শিক্ষক ও কর্মকর্তা-কর্মচারীবৃন্দ শোভাযাত্রায় অংশগ্রহণ করবেন।

সকাল ১১টার দিকে ছাত্র-শিক্ষক কেন্দ্র (টিএসসি) মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হবে আলোচনা সভা। এছাড়া দিবসটি পালন উপলক্ষে বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল অনুষদ, বিভাগ, ইনস্টিটিউট ও হলসমূহ দিনব্যাপী নিজস্ব কর্মসূচী গ্রহণ করেছে। এর মধ্যে থেকে সকাল ১০টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত ‘দুর্লভ পা-ুলিপি প্রদর্শনী’ চলবে বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগারে। সকাল ১০টা থেকে বিকেল সাড়ে ৩টা পর্যন্ত বায়োমেডিকেল ফিজিক্স এ্যান্ড টেকনোলজি বিভাগের উদ্ভাবিত চিকিৎসা প্রযুক্তির যন্ত্রপাতি বা গবেষণার প্রদর্শনী চলবে কার্জন হল ভবনের দক্ষিণ-পূর্ব বারান্দায়। সকাল ১১টা থেকে চারুকলা অনুষদে চলবে শিশু চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা এবং বিকেল ৩টা থেকে ৪টা পর্যন্ত চারুকলা অনুষদ গ্যালারিতে চলবে শিক্ষার্থীদের সৃজনশীল শিল্পকর্মের প্রদর্শনী।

বিশ্ববিদ্যালয় নিয়ে উপাচার্য অধ্যাপক আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক বলেন, বাংলাদেশের অহংকার ‘ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়’ তার নিজস্ব ঐহিত্য ও গৌরবে অনন্য। আমাদের এই বিশ্ববিদ্যালয় শতবর্ষ বয়সের পথে। এই বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা দেশ ও বিদেশের বিভিন্ন ক্ষেত্রে নেতৃত্ব দিয়ে যাচ্ছেন। ইতিহাস ও ঐতিহ্যে বিশ্ববিদ্যালয়টি বিশ্বের যে কোন উচ্চ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান থেকে অনন্য।

প্রকাশিত : ১ জুলাই ২০১৫

০১/০৭/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

প্রথম পাতা



ব্রেকিং নিউজ: