আংশিক মেঘলা, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৬ ডিসেম্বর ২০১৬, ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, মঙ্গলবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

একাদশে ক্লাস শুরু করতে পারছে না এক লাখ শিক্ষার্থী

প্রকাশিত : ১ জুলাই ২০১৫
  • ফল প্রকাশে জটিলতা

বিশ্ববিদ্যাল রিপোর্টার ॥ ফল প্রকাশে কারিগরি জটিলতা এবং নিজেদের ভুলের কারণে প্রথমদিন একাদশ শ্রেণীর ক্লাস শুরু করতে পারছেন না প্রায় এক লাখ শিক্ষার্থী। দেশের বিভিন্ন কলেজে ২০১৫-১৬ শিক্ষাবর্ষে একাদশ শ্রেণীর ক্লাস আজ বুধবার থেকে শুরু হচ্ছে। ভর্তি নিয়ে সৃষ্ট জটিলতা নিরসনে দ্রুত পদক্ষেপ নেয়ার দাবি জানিয়ে মঙ্গলবার সকাল থেকে ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের সামনে ক্ষুব্ধ শিক্ষার্থী ও অভিভাবকরা জড়ো হয়।

নিয়ম মেনে আবেদন করেও পছন্দের কলেজ ও বিভাগ না পাওয়ায় ভর্তি প্রক্রিয়া নিয়ে প্রশ্ন তোলেন অভিভাবক সমন্বয় পরিষদের সাধারণ সম্পাদক নীপা সুলতানা। লাখো শিক্ষার্থী ও তাদের অভিভাবকরা এ নিয়ে উদ্বিগ্ন বলে সাংবাদিকদের কাছে দাবি করেন তিনি। মনোনয়ন দেয়ার ক্ষেত্রে রেজাল্ট শিটে কোন নম্বর না থাকায় ফল নিয়েও প্রশ্ন তোলেন তিনি।

ঢাকা সিটি কলেজ, মতিঝিল আইডিয়াল কলেজ, মনিপুর কলেজসহ কয়েকটি কলেজের অধ্যক্ষরা সাংবাদিকদের জানিয়েছেন, আজই (বুধবার) তারা প্রথম বর্ষের ক্লাস শুরু করবেন। আবেদন করেও বাদ পড়া ৫৩ হাজার ৮৫০ শিক্ষার্থী, যোগ্যতা না থাকলেও অন্য বিভাগে মনোনয়ন পাওয়াসহ বিভিন্ন কারণে প্রথমদিন ক্লাস শুরু থেকে বাদ পড়ছে প্রায় লাখো শিক্ষার্থী।

গত ২৫ জুন মনোনীতদের তালিকা প্রকাশের কথা থাকলেও চার দফা পিছিয়ে গত ২৮ জুন মধ্যরাতে একাদশে ভর্তির ফল প্রকাশ করে ঢাকা শিক্ষা বোর্ড। প্রথম দিনে মনোনীত শিক্ষার্থীদের তালিকা দিতে না পারায় ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের অনেক কলেজে দ্বিতীয় দিনে গতকাল মঙ্গলবার বাইরের শিক্ষার্থীদের ভর্তি নেয়। প্রথমদিন গত সোমবার নিজেদের শিক্ষার্থীদের ভর্তি করায় কলেজগুলো।

১১ লাখ ৫৭ হাজার ২২৪ আবেদনকারীর মধ্যে ১০ লাখ ৯৩ হাজার ৩৭৪ শিক্ষার্থীকে স্থান দিয়ে প্রথম মেধা তালিকা প্রকাশ করা হয়। এসব শিক্ষার্থীরা সোমবার ভর্তি প্রক্রিয়া শুরু করতে গেলেও কলেজগুলো তালিকা না পাওয়ায় শুধু নিজেদের শিক্ষার্থীদের ভর্তি করিয়ে নেয়। মতিঝিল আইডিয়াল স্কুল এ্যান্ড কলেজ, মনিপুর স্কুল এ্যান্ড কলেজ, সিটি কলেজসহ রাজধানীর অনেক কলেজে তালিকা পেয়েছে মঙ্গলবার বিকেলে। ফলে প্রথমদিন তারা বাইরের শিক্ষার্থী ভর্তি করাতে পারেননি। এছাড়া ভর্তি হতে গিয়ে একাডেমিক ট্রান্সস্ক্রিপ্ট জটিলতায় পড়ে শিক্ষার্থীরা। ঢাকা বোর্ড থেকে ট্রান্সক্রিপ্ট দেয়ার কথা থাকলেও পরে সোমবার বোর্ডের ওয়েবসাইটে ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থী ও কলেজ কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়, অনিবার্য কারণে বোর্ড থেকে একাডেমিক ট্রান্সস্ক্রিপ্ট সরবরাহ করা সম্ভব হয়নি। বিধায় ভর্তির সময় ওয়েবসাইট থেকে প্রাপ্ত গ্রেডসিট প্রিন্ট করে জমা দিতে হবে।

মতিঝিল আইডিয়াল স্কুল এ্যান্ড কলেজ এবং মনিপুর স্কুল এ্যান্ড কলেজে প্রথমদিন নিজেদের শিক্ষার্থী ভর্তি করানো হয়েছে। গত সোমবার বিকেলে তালিকা পাওয়ায় গতকাল বাইরের শিক্ষার্থীদের ভর্তি করানো হচ্ছে। একইভাবে রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন কলেজের ভর্তি প্রক্রিয়া বিলম্বিত হয়ে গেছে। এছাড়াও এক বিভাগের শিক্ষার্থী যোগ্যতা না থাকলেও অন্য বিভাগে মনোনীত হওয়ায় তারও ভর্তিতে বিলম্বের সৃষ্টি হচ্ছে।

বোর্ডের ঘোষণা অনুযায়ী, বিলম্ব ফি ছাড়া ২৯ জুন থেকে ২ জুলাই পর্যন্ত প্রথম মেধা তালিকা আর বিলম্ব ফি দিয়ে ভর্তি হওয়া যাবে ৮ জুলাই পর্যন্ত। আগামী ৬ জুলাই দ্বিতীয় মেধা তালিকা প্রকাশের পর ১০ জুলাই পর্যন্ত ভর্তি করানো হবে।

প্রকাশিত : ১ জুলাই ২০১৫

০১/০৭/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

প্রথম পাতা



ব্রেকিং নিউজ: