কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৫ ডিসেম্বর ২০১৬, ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, সোমবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

কলাপাড়ায় ইলিশের আকাল ॥ জেলেরা বেকার

প্রকাশিত : ৩০ জুন ২০১৫

নিজস্ব সংবাদদাতা, কলাপাড়া, ২৯ জুন ॥ ইলিশ ধরা না পড়ায় কুয়াকাটা সৈকতের অন্তত তিন হাজার খুটা জেলে বেকার হয়ে পড়েছে। কলাপাড়া উপকূলজুড়ে চলছে ইলিশের ভয়াবহ আকাল। ইলিশের আশায় উত্তাল সাগরে মাছ শিকারে গিয়ে এসব জেলেরা ফিরছে খালি হাতে। ভরা মৌসুমে ইলিশ না পেয়ে জেলেদের মাঝে বিরাজ করছে চরম হতাশা। সংসারের ভরন-পোষণের যোগান নিয়ে এদের রাতের ঘুম হারাম হয়ে গেছে।

কুয়াকাটা সৈকতের খাজুরা থেকে গঙ্গামতি পর্যন্ত ১৮ কিলোমিটার দীর্ঘ সৈকতে শত শত নৌকা কিনারে তুলে রেখেছে খুটা জেলেরা। জেলে ইউসুফ জানান, ৭-৮ দিন আগেও ইলিশ পেয়েছেন। এখন আর নেই। গত তিনদিনে একটি ইলিশও পাওয়া যাচ্ছে না। ফিরতে হচ্ছে খালি হাতে। একই বক্তব্য ছোবাহান হাওলাদার, শামসু ঘরামি, কালাম হাওলাদারসহ অধিকাংশ খুটা জেলেদের। জেলেরা জানান, একেকটি ডিঙি নৌকায় ৪-৫ জন জেলে মাছ শিকার করে আসছেন। ৪-৫টি পরিবারের জীবনজীবিকা নির্ভর করছে একটি নৌকায়। কিন্তু মাছ মিলছে না। লাখ লাখ টাকা দাদন নেয়া এসব জেলে ইলিশ না পেয়ে এখন দিশেহারা হয়ে পড়েছেন। কুয়াকাটার সব আড়ত ঘুরে দেখা গেছে কোন ইলিশের আমদানি নেই। খান ফিশের মালিক আব্দুর রহিম জানান, এক সপ্তাহকাল কোন ইলিশ পাওয়া যাচ্ছে না। তারাও পড়েছেন ইলিশের ব্যবসা নিয়ে চরম উৎকণ্ঠায়। শুধু খুটা জেলেরা নয়, গভীর সমুদ্রে ইলিশ শিকারি জেলেরাও ফিরছে শূন্যহাতে। মহিপুর ইলিশ ব্যবসায়ী ও আড়ত মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক নিমাই চন্দ্র দাস জানান, মৌসুম শুরু হয়ে গেছে আগেই।

কিন্তু ইলিশের দেখা নেই। তিনি জানান, প্রত্যেক ট্রলার মালিকের অন্তত এক থেকে দেড় লাখ টাকার লোকসান হয়ে গেছে। একেকটি ট্রলারে বাজারঘাট নিয়ে অন্তত তিন দফা সাগরে পাঠানো হয়েছে। কিন্তু মাছ ছাড়াই ফিরছে জেলেরা। মৌসুমের প্রথমদিকে ইলিশ না পেয়ে জেলেসহ ইলিশ সংশ্লিষ্ট ব্যবসায়ী, শ্রমিকরাও পড়েছেন চরম উৎকণ্ঠায়।

প্রকাশিত : ৩০ জুন ২০১৫

৩০/০৬/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

দেশের খবর



ব্রেকিং নিউজ: