রৌদ্রজ্জ্বল, তাপমাত্রা ২৩.৯ °C
 
৯ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শুক্রবার, ঢাকা, বাংলাদেশ

প্রাকৃতিক দুর্যোগ মোকাবেলার সব প্রস্তুতি আছে সরকারের ॥ স্বাস্থ্যমন্ত্রী

প্রকাশিত : ২৯ জুন ২০১৫, ০১:৫১ এ. এম.

স্টাফ রিপোর্টার ॥ যে কোন ধরনের প্রাকৃতিক দুর্যোগ মোকাবেলা করতে সরকারের সকল প্রস্তুতি রয়েছে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম। তিনি বলেন, কক্সবাজার ও বান্দরবানে পাহাড়ী ঢলের শিকার দুস্থ মানুষের জরুরী চিকিৎসা ব্যবস্থা ইতোমধ্যে নিশ্চিত করা হয়েছে। বন্যা পরবর্তী যে কোন ধরনের দুর্যোগ মোকাবেলার জন্যও আমরা প্রস্তুত আছি।

রবিবার মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে মার্স ভাইরাস মোকাবেলা এবং কক্সবাজার ও বান্দরবানে অতিরিক্ত বৃষ্টির ফলে ভূমি ধস ও বন্যা পরিবর্তী চিকিৎসা কার্যক্রম প্রস্তুতি সংক্রান্ত সভায় স্বাস্থ্যমন্ত্রী এ কথা বলেন। সভায় স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ সচিব সৈয়দ মন্জুুরুল ইসলাম, স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডাঃ দীন মোঃ নূরুল হকসহ স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয় এবং অধিদফতরের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

সভায় জানানো হয়, স্বাস্থ্যমন্ত্রীর নির্দেশে কক্সবাজার ও বান্দরবানে বন্যার্তদের চিকিৎসায় ইতোমধ্যে ১২৬টি মেডিক্যাল টিম কাজ শুরু করেছে। স্বাস্থ্য অধিদফতরে স্থাপিত ন্যাশনাল হেলথ ক্রাইসিস ম্যানেজমেন্ট সেন্টার ও কন্ট্রোল রুম এবং সংশ্লিষ্ট সিভিল সার্জন অফিস ও উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কন্ট্রোল রুমসমূহ বন্যাদুর্গত এলাকার পরিস্থিতি ২৪ ঘণ্টা মনিটরিং করছে। ইতোমধ্যে এই দুই জেলার সকল চিকিৎসকের ছুটি বাতিল করা হয়েছে।

খাবার স্যালাইন ৩ লাখ, স্যালাইন ব্যাগ ৪০ হাজার, ১ লাখ পানি বিশুদ্ধকরণ ট্যাবলেট, ৫০ হাজার এ্যান্টিবায়োটিক ঔষধসহ বিভিন্ন ধরনের প্রয়োজনীয় ঔষধ সরবরাহ করা হয়েছে। এ সময় স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী বলেন, অতিরিক্ত বৃষ্টিপাতের ফলে শুধু এই দুই জেলায় নয়, সারাদেশের বিভিন্ন জেলায় বন্যার আশঙ্কা রয়েছে। ফলে দেশের সকল প্লাবিত অঞ্চলের মানুষের জরুরী চিকিৎসার প্রস্তুতি গ্রহণের জন্য স্বাস্থ্য অধিদফতরসহ সকল সিভিল সার্জনকে সতর্ক থাকতে হবে।

সভায় সাম্প্রতিক সময়ে দক্ষিণ কোরিয়া ও মধ্যপ্রাচ্যে মার্স ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব দেখা দেয়ায় বাংলাদেশে তা মোকাবেলায় প্রস্তুত থাকার জণ্য স্বাস্থ্যমন্ত্রী সংশ্লিষ্ট সকলকে নির্দেশ দেন। তিনি এই ভাইরাস মোকাবেলায় জনসচেতনতার ওপর গুরুত্বারোপ করেন। মার্স ভাইরাস সংক্রান্ত পোস্টার ও প্যামফ্লেট দেশের সকল বিমান, স্থল ও নৌবন্দরে বিতরণের নির্দেশ দিয়ে তিনি বলেন, দ্রুত রোগ নির্ণয়, রোগ ব্যবস্থাপনা, রোগী পৃথকীকরণ এবং রোগ সংক্রমণ প্রতিরোধের জন্য চিকিৎসকদের বিশেষ প্রশিক্ষণ দেবার উদ্যোগ নিতে হবে। স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, মার্স ভাইরাস নিয়ে এখন আতঙ্ক বা উদ্বেগের কিছু নেই। বাংলাদেশ যেন আগেভাগেই এটি মোকাবেলায় প্রস্তুত হতে পারে সে লক্ষ্যে পর্যাপ্ত উদ্যোগ নেয়া হচ্ছে।

প্রকাশিত : ২৯ জুন ২০১৫, ০১:৫১ এ. এম.

২৯/০৬/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: