আংশিক মেঘলা, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৬ ডিসেম্বর ২০১৬, ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, মঙ্গলবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

বিশ্ব অর্থনীতি

প্রকাশিত : ২৮ জুন ২০১৫

ফাস্ট ট্র্যাক বিলের অনুমোদন

বারাক ওবামার বাণিজ্যিক এজেন্ডা হিসেবে বিবেচিত ট্রেড প্রমোশন অথরিটি (টিপিএ) বিল দীর্ঘ ছয় মাসের আইনী বিতর্ক শেষে সিনেটে অনুমোদন পেয়েছে। বিলটিকে ফাস্ট ট্র্যাক বিল বলে অভিহিত করা হচ্ছে। এর অনুমোদনের ফলে প্রশান্ত মহাসাগরের বারোটি রাষ্ট্রের মধ্যে ট্রান্স প্যাসিফিক পার্টনারশিপ বা টিপিপি চুক্তি সম্পাদনের পথে এক ধাপ এগিয়ে গেল যুক্তরাষ্ট্র। বিলটি অনুমোদন পাওয়ার অর্থ আন্তর্জাতিক বাণিজ্য চুক্তিগুলো সংশোধন কিংবা পরিমার্জনের ক্ষমতা থাকবে হোয়াইট হাউসের হাতে। কংগ্রেস শুধু পক্ষে বিপক্ষে ভোট দিয়ে বিভিন্ন বাণিজ্য চুক্তি সম্পাদনের ব্যাপারে সিদ্ধান্ত দিতে পারবে। বিলটির অনুমোদনের জন্য বারাক ওবামাকে রিপাবলিকানদের সঙ্গে হাত মেলাতে হয়েছে নিজ দলের বিরোধী ডেমোক্র্যাটদের বিরুদ্ধে। বিলটি সিনেটে অনুমোদনের পর এখন কেবল ওবামার স্বাক্ষরের অপেক্ষা। তারপরেই শুরু হয়ে যাবে শ্রমিক সহায়তার কাজ।

গ্রিসের ঋণ সঙ্কট আবারও আলোচনা শুরু

আন্তর্জাতিক ঋণদাতাদের সঙ্গে আবারও আলোচনায় বসতে যাচ্ছেন গ্রিসের প্রধানমন্ত্রী আলেক্সিস সিপরাস। ঋণ পরিশোধের সময়সীমা শেষ হয়ে যাচ্ছে, তবু ঋণ সঙ্কট নিয়ে কোন সমঝোতায় পৌঁছাতে পারছে না কেউই। এই তো কয়েকদিন আগে গ্রিসের সঙ্গে ইউরোপিয়ান কমিশন (ইসি), ইউরোপিয়ান ইউনিয়ন (ইইউ) এবং আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিলের (আইএমএফ) সঙ্গে আলোচনা কোন সমাধান ছাড়াই শেষ হয়ে যায়। আশার কথা, সব পক্ষই সমঝোতা চাচ্ছে। গ্রিসকে আগামী ৩০ জুনের মধ্যে আইএমএফের ১ দশমিক ৫ বিলিয়ন ইউরোর ঋণের কিস্তি পরিশোধ করতে হবে, ব্যর্থ হলে ঋণখেলাপী হিসেবে চিহ্নিত হবে দেশটি। এছাড়াও ইউরো অঞ্চল থেকে বেরিয়ে যেতে বাধ্য হতে পারে দেশটি। এত শঙ্কা সত্ত্বেও গ্রিস ঋণদাতাদের দেয়া সংস্কার প্রস্তাব মানতে নারাজ। অন্যদিকে ঋণদাতারা গোঁ ধরেছেন মেয়াদ বাড়াবে শুধু সংস্কার প্রস্তাব মানার শর্তে। এখন দেখার বিষয়, দু’পক্ষের মাঝে আদৌ কোন সমঝোতা হয় কি না।

অর্থনীতি ডেস্ক

প্রকাশিত : ২৮ জুন ২০১৫

২৮/০৬/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: