কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৪ ডিসেম্বর ২০১৬, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

পটুয়াখালী পৌর নির্বাচন ঠেকাতে সীমানা বাড়ানোর কৌশল

প্রকাশিত : ২৮ জুন ২০১৫

স্টাফ রিপোর্টার, গলাচিপা / নিজস্ব সংবাদদাতা, পটুয়াখালী ॥ পটুয়াখালী পৌরসভার আসন্ন নির্বাচন ঠেকাতে শুরু হয়েছে সীমানা বাড়ানোর কৌশল। একদিকে নির্বাচনে পরাজয়ের আশঙ্কা, আরেকদিকে নিজেদের গ-িভুক্ত এলাকা পৌরসভার আওতামুক্ত করার মধ্য দিয়ে ভোটব্যাংক বাড়ানোর উদ্দেশে একাধিক প্রভাবশালী মহল সীমানা বাড়ানোর এ কৌশল নিয়েছে। এতে করে পটুয়াখালী পৌরসভাকে সিটি কর্পোরেশনে উন্নীত করার প্রস্তাব ভেস্তে যেতে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। স্থানীয় আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ এবং নির্বাচিত প্রতিনিধিরা এ কৌশলের নিন্দা জানিয়ে অবিলম্বে সীমানা বর্ধিতকরণের প্রস্তাব বাতিলের আহ্বান জানিয়েছেন।

সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ সূত্রে জানা গেছে, পটুয়াখালী পৌরসভার সীমানা বাড়ানোর প্রস্তাব ইতোমধ্যে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ে নিরীক্ষাধীন রয়েছে, যা শীঘ্রই গেজেট আকারে প্রকাশিত হতে পারে। সীমানা বাড়ানোর এ প্রস্তাবটি আসলে নির্বাচন ঠেকানোর একটি কৌশল বলে জেলা আওয়ামী লীগসহ নির্বাচিত প্রতিনিধিদের অধিকাংশের ধারণা। কারণ আগামী ডিসেম্বর মাসে পটুয়াখালী পৌরসভার নির্বাচনের সম্ভাবনা রয়েছে। সে ক্ষেত্রে যে কেউ উচ্চতর আদালতে সীমানা বর্ধিতকরণের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করে নির্বাচন ঠেকিয়ে দিতে পারে। জেলায় এ ধরণের একাধিক উদাহরণ এরইমধ্যে সৃষ্টি হয়েছে। পটুয়াখালী রাঙ্গাবালী উপজেলার বড়বাইশদিয়া ইউনিয়নের সীমানা সংক্রান্ত এক মামলায় গত প্রায় ১২ বছর ধরে নির্বাচন বন্ধ রয়েছে। এক যুগ আগে নির্বাচিত প্রতিনিধিরাই কৌশলে মামলা দায়ের করিয়ে ক্ষমতায় রয়েছেন। একই ভাবে দুমকি উপজেলার লেবুখালী ইউনিয়নে ১১ বছর নির্বাচন হয়নি। এছাড়া, বর্তমান সীমানা বর্ধিত করণ প্রস্তাবের এলাকা নিয়েও পৌরবাসীর ঘোরতর আপত্তি রয়েছে। অধিকাংশ পৌরবাসীর মতে শহর পশ্চিম দিকে সম্প্রসারিত করার যথেষ্ট সুযোগ রয়েছে।

মা-মেয়ের আত্মহত্যার হুমকি

নিজস্ব সংবাদদাতা, রূপগঞ্জ, ২৭ জুন ॥ রূপগঞ্জে বিয়ের টাকা আত্মসাতের চেষ্টা ও জেলা পুলিশ সুপার কার্যালয়ে লুটপাটের মিথ্যা অভিযোগ দায়ের করায় মা-মেয়ে আত্মহত্যার হুমকি দিয়েছেন। শনিবার দুপুরে রূপগঞ্জ থানায় এসে এ হুমকি দেন ভুক্তভোগী মা-মেয়ে। উপজেলার পশ্চিমগাঁও এলাকার মুক্তিযোদ্ধা আব্দুস সামাদ মারা যাওয়ার পর থেকে তার স্ত্রী রাশিদা বেগম ও মেয়ে ঝর্ণা আক্তার চনপাড়া পুনর্বাসন কেন্দ্রে বসবাস করে আসছেন। পাওনা টাকা ফেরত না পেয়ে ও টাকার জন্য মেয়েকে বিয়ে দিতে না পেরে আত্মহত্যার হুমকি দেন।

১২০ ভেড়া খামারিকে অনুদান

স্টাফ রিপোর্টার, নীলফামারী ॥ সমাজ ভিত্তিক ও বাণিজ্যিক খামারে দেশী ভেড়ার উন্নয়ন সংরক্ষণ প্রকল্পের আওতায় সফল ভেড়া খামারিদের পুরস্কার বিতরণ ও দরিদ্র ভেড়ার খামারিদের শেড নির্মাণ সহায়তা প্রদান করা হয়েছে। শনিবার বিকালে জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে এই অনুদান ও পুরস্কার প্রদান করেন সংস্কৃতি মন্ত্রী আসাদুজ্জামান নুর এমপি। ছয় উপজেলার ২০ জন করে ১২০ জন ভেড়াপালনের খামারির প্রতিজনকে শেড নির্মাণে সাড়ে ছয় হাজার করে অনুদান ও ছয় তিনজন করে ভেড়া পালনের সফল খামারি হিসাবে মোট ১৮ জনকে পুরস্কৃত করা হয়।

প্রকাশিত : ২৮ জুন ২০১৫

২৮/০৬/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

দেশের খবর



ব্রেকিং নিউজ: