মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
৯ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শুক্রবার, ঢাকা, বাংলাদেশ

কৃষি খাতে ঋণ বিতরণ কমছে

প্রকাশিত : ২৮ জুন ২০১৫

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ চলতি অর্থবছরের (২০১৪-১৫) ১১ মাসে (জুলাই-মে) কৃষি খাতে বাণিজ্যিক ব্যাংকগুলো ১৩ হাজার ৬৯৬ কোটি টাকার ঋণ বিতরণ করেছে, যা গত অর্থবছরের একই সময়ের তুলনায় ৪২৫ কোটি টাকা বা ৩ শতাংশ কম। চলতি অর্থবছরের মোট লক্ষ্যমাত্রার ৮৮ দশমিক ০৮ শতাংশ। গত অর্থবছরের একই সময়ে এ খাতে বিতরণ করা হয় ১৪ হাজার ১২১ কোটি টাকা, যা ওই বছরের লক্ষ্যমাত্রার তুলনায় বিতরণের হার ছিল ৯৬ দশমিক ৭৫ শতাংশ। বাংলাদেশ ব্যাংকের হালনাগাদ প্রতিবেদনে এ তথ্য জানা গেছে।

কৃষি খাতকে অগ্রাধিকারমূলক খাত হওয়ায় এ খাতে ঋণ বিতরণ বাড়াতে কেন্দ্রীয় ব্যাংক বারবার নির্দেশনা দিলেও তা বাস্তবায়িত হচ্ছে না। কৃষিঋণ বাড়াতে এবং কৃষকদের সুবিধা দিতে প্রতিটি ব্যাংকে আলাদা কৃষিঋণ বিভাগ গঠনেরও নির্দেশ দিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক, যা আগামী ২০ জুলাইয়ের মধ্যে কার্যকর করতে হবে। জানা গেছে, কৃষি ঋণে তুলনামূলক সুদহার কম হওয়ায় ব্যাংকগুলোর এ খাতে আগ্রহ কম। কৃষিঋণ বিতরণ বাড়াতে সম্প্রতি কৃষি খাতে ব্যাংকগুলোর বিতরণ করা ঋণে বর্তমানে নির্ধারিত হারের তুলনায় দুই শতাংশ সুদ কমিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক। গত ১ জানুয়ারি থেকে কৃষকরা ১৩ শতাংশের পরিবর্তে সর্বোচ্চ ১১ শতাংশ সুদে কৃষিঋণ নিতে পারছেন।

বাংলাদেশ ব্যাংকের সর্বশেষ তথ্য বিশ্লেষণে দেখা গেছে, সরকারী ব্যাংকগুলোর ঋণ বিতরণ কমার ফলে সামগ্রিক পরিস্থিতির অবনতি হয়েছে। রাষ্ট্রীয় মালিকানার সোনালী, জনতা, অগ্রণী, রূপালী, বেসিক, বাংলাদেশ কৃষি ও রাজশাহী কৃষি উন্নয়ন ব্যাংক পুরো অর্থবছরের ৯ হাজার ২৪০ কোটি টাকা লক্ষ্যমাত্রার বিপরীতে ১১ মাসে ৭ হাজার ৯০১ কোটি টাকা বিতরণ করেছে।

রামপাল বিদ্যুত কেন্দ্রে বিনিয়োগে অস্বীকৃতি ফ্রান্সের তিন ব্যাংকের

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ বাংলাদেশের বহুল আলোচিত ও বিতর্কিত রামপাল বিদ্যুতকেন্দ্রে বিনিয়োগ করতে অস্বীকৃতি জানিয়েছে ফ্রান্সের তিনটি ব্যাংক। ওই বিদ্যুতকেন্দ্র নির্মাণে সামাজিক ও পরিবেশগত ন্যূনতম মানদ- বজায় না রাখায় ব্যাংকগুলো ওই প্রকল্প থেকে সরিয়ে নেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। যুক্তরাজ্যের গার্ডিয়ান এ প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। কয়লাভিত্তিক রামপাল বিদ্যুতকেন্দ্রের জন্য প্রস্তাবিত জায়গা বিশ্বের সর্ববৃহত ম্যানগ্রোভ বনভূমি সুন্দরবনের কাছাকাছি হওয়ায় পরিবেশবিদরা এর তীব্র বিরোধিতা করে আসছিলেন। গার্ডিয়ানের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, শুধু ফরাসি ব্যাংকগুলোই ওই প্রকল্পের বিরোধিতা করছে না। ছয় মাস আগে নরওয়ের দুটি পেনশন তহবিল ভারতের রাষ্ট্রনিয়ন্ত্রিত ন্যাশনাল থার্মাল পাওয়ার কর্পোরেশন (এনটিপিসি) থেকে নিজেদের বিনিয়োগ উঠিয়ে নিয়েছে। রামপালের ওই বিদ্যুতকেন্দ্র প্রকল্প নির্মাণ করছে এনটিপিসি। গত ৬ জুন বাংলাদেশ সফরে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি রামপালের ১৩২০ মেগাওয়াট কয়লাভিত্তিক বিদ্যুত প্রকল্পটি অনুমোদন করেন।

প্রকাশিত : ২৮ জুন ২০১৫

২৮/০৬/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: