মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
১০ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শনিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ

দরিদ্র ও মধ্যবিত্ত মার্কিনীদের জয়

প্রকাশিত : ২৭ জুন ২০১৫
  • সুপ্রীমকোর্টে স্বাস্থ্য সেবা আইন বহালে ওবামার প্রতিক্রিয়া

দরিদ্র ও মধ্যবিত্ত শ্রেণীর মানুষকে স্বাস্থ্যবীমা করতে সাহায্য করার জন্য ফেডারেল সরকারকে দেশজুড়ে ভর্তুকি দেয়ার অনুমতি দিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের সুপ্রীম কোর্ট বৃহস্পতিবার প্রেসিডেন্ট ওবামার আলোচিত স্বাস্থ্য সেবা আইন বহাল রেখেছে। ৬-৩ ব্যবধানের রায়ের অর্থ এটি প্রায় নিশ্চিত হওয়া যে, এই সুলভ স্বাস্থ্য সেবা আইন ২০১৭তে ওবামার দায়িত্ব ত্যাগের পরেও বহাল থাকবে। বৃহস্পতিবার সকালে রোজ গার্ডেনে তাড়াহুড়া করে আয়োজিত এক সমাবেশে বিজয়গর্বিত ওবামা রায়ের প্রশংসা করে বলেন, ‘সুপ্রীম কোর্টে এই আইন বহুবিধ চ্যালেঞ্জের সুম্মুখীন হওয়ার পর এখন সুলভ সেবা আইন টিকে থাকতে এসেছে।’ তিনি আরও বলেন, ‘এটি সারাদেশের কঠোর পরিশ্রমী আমেরিকানদের বিজয়। এই আইন কাজ করছে এবং ভবিষ্যতেও একইভাবে কাজ করবে।’ খবর নিউইয়র্ক টাইমস ও এএফপির।

তিন বছরের মধ্যে দ্বিতীয়বার এই আইনটি সুপ্রীম কোর্টে এসে টিকে থাকল। তবে এবার আদালতের সুর ছিল ভিন্ন। ২০১২ সালে সর্বোচ্চ আদালতের সিদ্ধান্ত ছিল চিড় খাওয়া এবং নিষ্পৃহ। তবে বৃহস্পতিবারের রায় দৃঢ়তাপূর্ণ। ছয়জন বিচারপতির সংখ্যাগরিষ্ঠ অবস্থানের এই রায়ে প্রধান বিচারপতি জন জি. রবার্টস জুনিয়র বলেন, ‘স্বাস্থ্যবীমা ব্যবস্থার উন্নতিকল্পে কংগ্রেস সুলভ সেবা আইন পাস করেছে-একে ধ্বংস করার জন্য নয়।’

সুপ্রীম কোর্টের এই রায় রিপাবলিকানদের জন্য একটি আঘাত যা, আইনটি প্রণীত হওয়ার পর থেকে এটিকে নস্যাত করার চেষ্টা করছে। কংগ্রেসের স্পীকার জন এ. বোয়েহনার আইনটির বিরুদ্ধে রাজনৈতিক লড়াই অব্যাহত রাখার অঙ্গীকার করেছেন। বোয়েহনার বলেন, ‘ওবামাকেয়ারের সমস্যা হলো এটি এখনও মৌলিকভাবে একই : আইন ভাঙ্গা হয়েছে।’ ‘এটি আমেরিকান পরিবারগুলোর জীবন যাত্রার ব্যয় বৃদ্ধি করছে। এটি ক্ষুদ্র ব্যবসায়ের ব্যয় বাড়াচ্ছে এবং এটি একেবারে মৌলিকভাবে ভেঙ্গে পড়েছে। আমরা অমেরিকান জনগণকে তাদের স্বাস্থ্যসেবার দায়িত্ব তাদেরই ফিরিয়ে দেয়ার জন্য আমাদের যথাসাধ্য প্রয়াস অব্যাহত রাখব এবং ফেডারেল সরকারকে এ ব্যাপারে কিছু করতে দেব না।’

ওবামাকেয়ারের বিরোধীরা যুক্তি দেখিয়েছেন, অঙ্গরাজ্যগুলোতে এভাবে ফেডারেল সরকারের বীমায় ভতুর্কি দেয়া অসাংবিধানিক, যারা তাদের নিজস্ব বীমা কেন্দ্র খুঁজতে অস্বীকার করেছে।

প্রকাশিত : ২৭ জুন ২০১৫

২৭/০৬/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

বিদেশের খবর



ব্রেকিং নিউজ: