কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৪ ডিসেম্বর ২০১৬, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

যেকোন কন্ডিশনে বাংলাদেশ ভাল খেলতে সক্ষম

প্রকাশিত : ২৬ জুন ২০১৫
যেকোন কন্ডিশনে বাংলাদেশ ভাল খেলতে সক্ষম
  • দাবি টাইগার অধিনায়ক মাশরাফির, রায়না মনে করেন বাংলাদেশের লক্ষ্য হওয়া উচিত দেশের বাইরে চমক দেখানো

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ দারুণ একটা সিরিজ শেষ হলো বাংলাদেশের জন্য। ভারতের বিপক্ষে সিরিজ জয়টা ঐতিহাসিক, অনেক দিন মনে রাখবে দেশের অগণিত ক্রিকেট ভক্ত-সমর্থকরা। ইতোমধ্যেই ঘরের মাটিতে নিউজিল্যান্ড, জিম্বাবুইয়ে ও পাকিস্তানকে হোয়াইটওয়াশ করার মতো গৌরবময় কীর্তি দেখিয়েছে বাংলাদেশ দল। সে কারণেই ক্যারিয়ারের সেরা অর্জন হিসেবে এটিকে দেখছেন বাংলাদেশ অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা। তবে দেশের মাটিতে ধারাবাহিকভাবে দুর্দান্ত নৈপুণ্য এখন বিদেশের মাটিতেও দেখানোর চ্যালেঞ্জ। ভারতের মিডলঅর্ডার ব্যাটসম্যান সুরেশ রায়না এমনটাই মনে করেন বাংলাদেশের জন্য। মাশরাফি অবশ্য দৃঢ় কণ্ঠেই জানালেন বর্তমানে টাইগাররা যেমন খেলছে বিশ্বের যেকোন কন্ডিশনে, যে কোন জায়গায় ভাল করতে সক্ষম বাংলাদেশ। সিরিজ হেরে অবশ্য বেশ চাপের মুখে আছে ভারতীয় দল। কিন্তু রায়নার দাবি পুরো মৌসুমটা ভাল গেলেও শেষটা খারাপ গেছে বলে সেটা দিয়ে দলের ভাল-খারাপ অবস্থা বিবেচনা করা যাবে না।

আইসিসি র‌্যাঙ্কিংয়ে বিশ্বের দুই নম্বর দল ভারতের বিপক্ষে অনেক বড় চ্যালেঞ্জ ছিল বাংলাদেশ দলের। কারণ ২০১৭ চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি খেলার জন্য র‌্যাঙ্কিং বাড়াতে হলে জিততে হবে, বিশ্বকাপে বিতর্কিত পরাজয়ের শোধ নিতে হবে। সবকিছুই ভালভাবে সম্পন্ন করেছে বাংলাদেশ দল। ক্রিকেট পরাশক্তি ভারতকে ঘরের মাঠে ২-১ ব্যবধানে হারিয়ে সিরিজ নিশ্চিত করেছে। আর প্রথমবারের মতো টাইগারদের কাছে ওয়ানডে সিরিজ হেরে সমালোচনার শিকার হচ্ছে টিম ইন্ডিয়া। এরচেয়ে বড় কথা টানা দুই ম্যাচে বিন্দুমাত্র প্রতিদ্বন্দ্বিতাও গড়ে তুলতে পারেনি ভারতীয় দল। কিন্তু দলের নির্ভরযোগ্য মিডলঅর্ডার ব্যাটসম্যান রায়না মনে করেন একটি সিরিজ হারে দলের মূল্যায়ন করা যাবে না। তিনি বলেন, ‘এ মৌসুমে এটি আমাদের শেষ ম্যাচ ছিল। আমরা জানি না পরবর্তীতে আমরা আবার কবে খেলব। আমরা ওয়ানডে ফরমেটে যথেষ্ট ভাল আর আমরা এখনও র‌্যাঙ্কিংয়ের দুইয়ে আছি। এছাড়া একটি সিরিজ দিয়ে কোন দলের মূল্যায়ন করা যায় না।’ ২০১৪-১৫ মৌসুমে ভারত ২০ একদিনের ম্যাচের মধ্যে ১৪টিতে জিতেছে। জয়ের ধারায় দলটি অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ডের পরেই রয়েছে। সে কারণেই রায়না এমন দাবি করছেন। তবে বাংলাদেশের বিপক্ষে দলটির হারকে বিশেষজ্ঞরা টাইগারদের অর্জনটাকেই বেশি করে দেখছেন। তৃতীয় ম্যাচে জয়ের পর সিরিজ সম্পর্কে রায়না বলেন, ‘তারা আসলেই ভাল খেলেছে। কৃতিত্ব তাদের দিতেই হবে। আমরা আরও উন্নতি করতে চাই। অনেক শিখতে হবে এখনও। এই সময় বাংলাদেশ অনেক ভাল ওয়ানডে ক্রিকেট খেলছে। তারপরও উন্নতি প্রমাণের জন্য দেশের বাইরে বেশি ম্যাচ খেলে ভাল করতে হবে।’

ভারতকে আগেভাগেই সিরিজে হারিয়ে দেয়ার পর এমনিতেই আত্মবিশ্বাসের তুঙ্গে বাংলাদেশ দলের ক্রিকেটাররা। টানা ১০ ম্যাচ ঘরের মাটিতে জেতার পর অবশেষে একটি পরাজয় দেখেছে তারা। কিন্তু তৃতীয় ওয়ানডে হারের পরও ম্লান হয়নি ভারতের বিপক্ষে বাংলাদেশের সিরিজ জয়ের কীর্তি। মাশরাফি মনে করেন দেশের বাইরেও ভাল করার ক্ষমতা আছে দলের। তিনি বলেন, ‘দেখুন দেশের বাইরে গেলে কমবেশি সব দলকেই সংগ্রাম করতে হয়। অস্ট্রেলিয়া-নিউজিল্যান্ডের কন্ডিশন কিন্তু আমাদের জন্য সহজ ছিল না। কিন্তু বিশ্বকাপে আমরা ভাল করেছি। ওই আত্মবিশ্বাস দলের সবার আছে। আমি মনে করি, এই দল বিশ্বের যেকোন জায়গায় সেরাটা দিতে পারে। যেকোন কন্ডিশনে সফল হতে পারে।’ তবে কিছুটা হতাশা কাজ করছে টাইগার অধিনায়ক মাশরাফির মধ্যে। কিন্তু হারের মধ্যেও শেখার যথেষ্ট উপাদান ছিল। মাশরাফি বলেন, ‘আশা করি, আজকে যারা ভুল করেছে তারা এগুলো রিভিউ করবে এবং সামনের সিরিজে তা কাজে লাগাবে। এসব থেকেই শিখতে হয়। আমাদের শেখার অনেক সুযোগ আছে। আমাদের সঙ্গে প্রতিপক্ষ ব্যাটসম্যানদের মধ্যে এমন পার্টনারশিপ অনেক হবে। এসব পরিস্থিতি মোকাবেলা করা শিখতে হবে।’ মাশরাফি নিজের ক্যারিয়ারে সেরা সিরিজ বলে মনে করছেন ভারতের বিপক্ষে ২-১ ব্যবধানের জয়টাকে। মাশরাফি ২২ ম্যাচে নেতৃত্ব দিয়ে ১৫টিতেই জিতিয়েছেন দলকে।

তিনি বলেন, ‘ভারতের বিপক্ষে সিরিজটাকেই আমি সেরা বলব। এর আগে আমরা আইসিসি র‌্যাঙ্কিংয়ের এক থেকে চার নম্বর দলের বিপক্ষে এভাবে কখনও সিরিজ জিতিনি। সেখানে ভারত ওয়ানডে র‌্যাঙ্কিংয়ের দুই নম্বর দল। তাদের সঙ্গে জেতা অবশ্যই আমার জন্য সেরা অর্জন। কোন জয়ই আমাদের জন্য কখনও ছোট ছিল না। এখনও মনে করি না, আমরা বিশ্বের সেরাদের একটা দল। যেভাবে খেলছি এভাবে খেলতে থাকলে হয় তো সবাই সমীহ করবে, আমরাও ভাল করব।’

প্রকাশিত : ২৬ জুন ২০১৫

২৬/০৬/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

খেলার খবর



ব্রেকিং নিউজ: