রৌদ্রজ্জ্বল, তাপমাত্রা ২৩.৯ °C
 
৮ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, বৃহস্পতিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

বাধ্য হয়ে বিরোধীদলের ভূমিকা পালন করতে হচ্ছে

প্রকাশিত : ২৪ জুন ২০১৫, ০৩:০২ পি. এম.

অনলাইন ডেস্ক ॥ সংসদে বিরোধীদল থাকা অবস্থায় আমাকে বিরোধীদলের ভূমিকা পালন করতে হচ্ছে বলে মন্তব্য করেছেন মহানগর আওয়ামী লীগের যুগ্মসাধারণ সম্পাদক ও স্বতন্ত্র সংসদ সদস্য হাজী মো. সেলিম।

তিনি বলেন, সংসদে বিরোধী দল থাকলেও আমাকেই বিরোধীদলের ভূমিকা পালন করতে হয়। আমি কালোকে কালো, সাদাকে সাদা বলি। এজন্য অনেকেই আমাকে বাঁকা চোখে দেখেন।

বুধবার জাতীয় সংসদে প্রস্তাবিত (২০১৫-১৬) অর্থবছরের বাজেটের ওপর সাধারণ আলোচনায় অংশ নিয়ে তিনি এ সব কথা বলেন।

এ সময় সভাপতির আসনে বসা ডেপুটি স্পিকার মো. ফজলে রাব্বী মিয়া অট্টহাসি দিয়ে তার উদ্দেশে বলেন, মাননীয় সদস্য আপনাকে কেউ বাকা চোঁখে দেখে না। সবাই আপনাকে ভালো চোখেই দেখে।

এ সময় হাজী সেলিম বলেন, সংসদে বিরোধীদল সেভাবে দায়িত্ব পালন করে না বলেই আমাকে বাধ্য হয়ে বিরোধীদলের ভূমিকা পালন করতে হয়।

প্রস্তাবিত বাজেটে ‘অর্থনৈতিক অঞ্চল’ করার জন্য বরাদ্দ দেওয়ায় সাধুবাদ জানিয়ে তিনি বলেন, অর্থনৈতিক অঞ্চল শিল্পখাতে বড় ধরনের পরিবর্তন আনবে।

শিশুদের জন্য প্রথমবারের মতো বরাদ্দ রাখায় প্রশংসা করেন তিনি।

হাজী সেলিম বলেন, মুক্তিযোদ্ধারা জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তান। একমাত্র শেখ হাসিনাই মুক্তিযোদ্ধাদের পক্ষে কাজ করেন। এছাড়া কিছু মন্ত্রী, এমপিরাও আছেন, মুক্তিযোদ্ধাদের কথা ভাবেন।

বাকি অনেকেই এ নিয়ে মুখে কথা বললেও বাস্তবে কিছু করে না। আওয়ামী লীগ যখনই ক্ষমতায় আসে, তখন মুক্তিযোদ্ধারা ভাবেন, আমাদের জন্য কিছু হবে। তাই, সব মুক্তিযোদ্ধাদের ১০ হাজার টাকা ভাতা দেওয়ার প্রস্তাব করেন।

শিক্ষাখাতে বরাদ্দ কমানোর সমালোচনা করে তিনি বলেন, শিক্ষাখাতে সাফল্য থাকলেও এবার বাজেটে বরাদ্দ কমানো হয়েছে, যা দুঃখজনক।

বিষয়টি ফের বিবেচনা করার জন্য অর্থমন্ত্রীর প্রতি আহ্বান হাজী সেলিম।

স্বাস্থ্যখাতে বরাদ্দ কমানোকে ‘অযৌক্তিক’ বলে মন্তব্য করে তিনি বলেন, স্বাস্থ্যই সকল সুখের মূল। তাই, স্বাস্থ্যখাতে বরাদ্দ কমানো হলো; স্বাস্থ্যসেবা দেবেন কী করে!

বিষয়টি চিন্তাভাবনা করারও দাবি করেন তিনি।

প্রকাশিত : ২৪ জুন ২০১৫, ০৩:০২ পি. এম.

২৪/০৬/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: