মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
১০ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শনিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ

প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সুজাতার সাক্ষাত ॥ নেপালের পক্ষে কৃতজ্ঞতা

প্রকাশিত : ২৪ জুন ২০১৫

স্টাফ রিপোর্টার ॥ ভূমিকম্পের পর সহায়তার জন্য বাংলাদেশের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন নেপালের সাবেক উপ-প্রধানমন্ত্রী ও পররাষ্ট্রমন্ত্রী সুজাতা কৈরালা। মঙ্গলবার জাতীয় সংসদ ভবনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাতের সময় এ প্রসঙ্গ উল্লেখ করে সুজাতা নেপালের জনগণের পক্ষ থেকে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন। পরে প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব ইহসানুল করিম এ বিষয়ে সাংবাদিকদের বিস্তারিত জানান।

গত ২৫ এপ্রিল রিখটার স্কেলে ৭ দশমিক ৯ মাত্রার শক্তিশালী ভূমিকম্পে নেপালে আট হাজারেরও বেশি মানুষের মৃত্যু হয়। ওই ঘটনার পর বাংলাদেশের পক্ষ থেকে ওষুধ এবং খাবার পানির পাশাপাশি চিকিৎসক দল পাঠানো হয়। এছাড়া গৃহহীনদের জন্য পাঠানো হয় তাঁবু। পরে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে নেপালের জনগণের জন্য ১০ হাজার মেট্রিক টন চাল পাঠানো হয় বাংলাদেশ থেকে। এছাড়া নেপালের প্রয়োজনে আরও এক লাখ মেট্রিক টন চাল পাঠানোর ঘোষণা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। ইহসানুল করিম জানান, সাক্ষাতকালে সুজাতা কৈরালা নেপালে ভূমিকম্পের পর ক্ষয়ক্ষতির চিত্র প্রধানমন্ত্রীর সামনে তুলে ধরেন। নেপালের সাবেক এই উপ-প্রধানমন্ত্রী বাংলাদেশের জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতি গভীর শ্রদ্ধা প্রকাশ করেন। প্রেস সচিব জানান, ‘প্রধানমন্ত্রী তাকে বলেন, প্রতিবেশী হিসেবে প্রতিবেশীদের সহায়তা করা বাংলাদেশের দায়িত্ব।’ দুর্যোগ মোকাবেলায় বাংলাদেশের অভিজ্ঞতারও প্রশংসা করেন নেপালের পররাষ্ট্রমন্ত্রী। তিনি বলেন, বাংলাদেশ, ভারত, নেপাল ও ভুটানের মধ্যে সড়ক যোগাযোগের জন্য সম্প্রতি স্বাক্ষরিত চুক্তিতে চার দেশই লাভবান হবে। শেখ হাসিনার উদ্যোগেই এ চুক্তি করা সম্ভব হয়েছে বলে উল্লেখ করেন সুজাতা। নেপালের ক্ষতিগ্রস্ত গ্রামগুলো পুনর্গঠনে চীনের চেম্বার অব কমার্স এবং নেপাল সরকার ও স্থানীয় বেসরকারী সংস্থার মধ্যে একটি সমঝোতা চুক্তি হয়েছে বলে তিনি শেখ হাসিনাকে জানান।

২৫ জুন ও ৯ জুলাই যুক্তরাষ্ট্রের স্টুডেন্ট ভিসা দিবস

কূটনৈতিক রিপোর্টার ॥ ঢাকার যুক্তরাষ্ট্র দূতাবাস স্টুডেন্ট ভিসা দিবস পালন করতে যাচ্ছে। দূতাবাসের কনস্যুলার সেকশন এবং দূতাবাসের ‘এডুকেশনইউএসএ’ যৌথভাবে আগামীকাল ২৫ জুন বৃহস্পতিবার ও ৯ জুলাই ‘স্টুডেন্ট ভিসা দিবস’-এর আয়োজন করতে যাচ্ছে। দুই দিনে সাত শ’রও বেশি বাংলাদেশী ছাত্র-ছাত্রী উচ্চশিক্ষা অর্জনের উদ্দেশে যুক্তরাষ্ট্রের ভিসার জন্য আবেদন করবে বলে ধারণা করা হচ্ছে। মঙ্গলবার আমেরিকান সেন্টার থেকে পাঠানো এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, ‘স্টুডেন্ট ভিসা দিবস’ ছাত্রছাত্রীদের উৎসবমুখর পরিবেশে ভিসার আবেদনপত্র জমা দেয়ার সুযোগ করে দেবে। আগ্রহীরা যুক্তরাষ্ট্রের ক্যাম্পাস জীবন ও শিক্ষা সম্পর্কিত বিষয়ে ‘এডুকেশনইউএসএ’-র বিশেষ সেশনে অংশ নিতে পারবে এবং ছাত্র উপদেষ্টাদের দেয়া ‘প্রি-ডিপারচার ওরিয়েন্টেশন’ অনুষ্ঠানে অংশ নিতে পারবে। অনুষ্ঠান চলাকালীন সময়ে যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত মার্শা বার্নিকাটের কনস্যুলার সেকশন পরিদর্শনের পরিকল্পনা রয়েছে। তাই এ সময় ছাত্রছাত্রীরা রাষ্ট্রদূতের সঙ্গে দেখা করারও একটি সুযোগ পেতে পারে। বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়, যুক্তরাষ্ট্রে পড়তে আগ্রহী শিক্ষার্থীরা স্টুডেন্ট ভিসা দিবসের দুই দিনের যে কোন একদিন ভিসার জন্য আবেদনপত্র জমা দিতে এবং ভিসা সাক্ষাতকারের সময়সূচী নির্ধারণ করতে পারবেন। তবে যেসব শিক্ষার্থী ইতোমধ্যেই যুক্তরাষ্ট্রে পড়ালেখা করছেন এবং যাদের ভিসা নবায়ন করতে হবে, তারা ‘ড্রপ বক্স’ সুবিধা বা সাক্ষাতকার ছাড়াই ভিসা লাভ করবেন।

প্রকাশিত : ২৪ জুন ২০১৫

২৪/০৬/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

অন্য খবর



ব্রেকিং নিউজ: