মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
১১ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

নাসির ভেল্কি

প্রকাশিত : ২২ জুন ২০১৫

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ শুরুটা কিন্তু করে দিলেন আগের ম্যাচের নায়ক মুস্তাফিজুর রহমান। দ্বিতীয় ওয়ানডের দ্বিতীয় বলেই তিনি শূন্য রানে সাজঘরে ফিরিয়ে দিলেন রোহিত শর্মাকে। শুরুটা বাজে হলেও শিখর ধাওয়ান আর বিরাট কোহলি বেশ ভালভাবেই এগিয়ে নিচ্ছিলেন দলকে। তবে সম্প্রতি প্রায়ই বল হাতে নেয়া অলরাউন্ডার নাসির হোসেন তার অনিয়মিত অফস্পিনে ভালভাবেই চেপে ধরলেন ভারতীয় টপঅর্ডারকে। রানের গতি কমানোর পাশাপাশি মূলবান দুটি উইকেট হিসেবে তুলে নিলেন ধাওয়ান ও কোহলিকে। রবিবার সিরিজের দ্বিতীয় ওয়ানডেতে দারুণ মিতব্যয়ী বোলিং করে নাসির ১০ ওভারে ৩৩ রান দিয়ে দখল করেন ২ উইকেট এবং ম্যাচের নিয়ন্ত্রণ ফিরিয়ে আনেন বাংলাদেশ দলের হাতে।

নাসির ঘরোয়া আসরে বর্তমান সময়ে নিয়মিতই বোলিং করেন। সর্বশেষ প্রিমিয়ার ডিভিশন ক্রিকেট লীগেও তিনি ১৬ ম্যাচে ১৩ উইকেট নিয়েছেন। মাঝে ব্যাটিংয়ে বেশ খারাপ সময় যাওয়ার কারণে দল থেকেই ছিটকে পড়েছিলেন ২০১২ এশিয়া কাপ এবং পরবর্তী একটা বছর ধারাবাহিকভাবে দুর্দান্ত নৈপুণ্য দেখানো নাসির। জিম্বাবুইয়ের বিরুদ্ধে গত বছর ডিসেম্বরে পুরো সিরিজেই খেলেননি। তবে বিশ্বকাপ দলে ঠাঁই করে নিয়েছিলেন প্রিমিয়ার লীগ ও জাতীয় লীগে ভাল নৈপুণ্য দেখানোর কারণে। দলে ফিরলেও ব্যাটিংয়ে তেমন সুবিধা করতে পারছিলেন না। আবার দলের ব্যাটসম্যানরা ফর্মে থাকায় ব্যাটিং অর্ডারে ৭ নম্বরে থাকায় তেমন সুযোগও পাচ্ছিলেন না নাসির। কিন্তু ফেরার পর থেকেই তিনি নিয়মিত বোলিং করছিলেন। গত বৃহস্পতিবার সফরকারী ভারতের বিরুদ্ধে সিরিজের প্রথম ওয়ানডেতেও বোলিং করেছেন নাসির। তবে সুবিধা করতে পারেননি তেমন। ৬.৪ ওভার বোলিং করে রান দিয়েছিলেন ৩১ এবং কোন উইকেট শিকার করতে ব্যর্থ হন। দ্বিতীয় ওয়ানডেতে টস জিতে আগে ব্যাটিংয়ে নেমেই মুস্তাফিজুরের কাটারে ড্রাইভ করতে গিয়ে সাব্বির রহমানের হাতে ক্যাচ দিয়ে ফিরে যান রোহিত। এরপর অবশ্য দ্বিতীয় উইকেটে ৭৩ রানের জুটি গড়ে বাংলাদেশী বোলারদের ওপর চেপে বসছিলেন ধাওয়ান ও কোহলি। দীর্ঘদিন পর কোহলির ব্যাটেও রান আসছিল ভাল গতিতেই। প্রথম ওয়ানডের মতো এদিন বাংলাদেশী পেসাররা তেমন সুবিধা করতে পারছিলেন না। ওই সময় সাকিব আল হাসান নয় বরং নাসিরের ওপরই আস্থা রাখলেন অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা। বল তুলে দিলেন নাসিরের হাতে। অধিনায়কের আস্থার প্রতিদান দিতে দেরি করেছেন মাত্র ৯ বল। তুলে নিয়েছেন মূল্যবান উইকেটটি। ভয়ঙ্কর হয়ে উঠছিলেন কোহলি। তাকে বোকা বানিয়ে এলবিডব্লিউর ফাঁদে ফেলেন নাসির। তবে এরপর আর তেমন প্রভাব খাটাতে পারেননি তিনি। উইকেটও শিকার করতে পারেননি। অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনি আগে ভাগে নেমে বেশ সাবলীল হয়ে উঠেছিলেন। তবে তাকেও ফাঁদে ফেলেছিলেন নাসির। ২১তম ওভারে সুইপ করতে গিয়ে গ্লাভসে লেগে উইকেটের পেছনে ক্যাচ গিয়েছিল। কিন্তু প্রথমবারের মতো ওয়ানডেতে নামা লিটন তা মিস করেন। তবে পরে নাসির ফিরিয়েছেন আক্রমণাত্মক ধাওয়ানকে। প্রথম স্পেলে ৭ ওভারে ২৫ রান দিয়ে দুই উইকেট নিলেও দ্বিতীয় স্পেলে কোন উইকেট পাননি। তবে ৩ ওভারে মাত্র ৮ রান দিয়ে ভারতীয় দলকে ফেলেছেন চাপে।

প্রকাশিত : ২২ জুন ২০১৫

২২/০৬/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: