কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৫ ডিসেম্বর ২০১৬, ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, সোমবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

রায়নার মুখে পাগলের প্রলাপ!

প্রকাশিত : ২১ জুন ২০১৫
  • তবু পাত্তা দিচ্ছেন না বাংলাদেশকে

শাকিল আহমেদ মিরাজ ॥ প্রথম ওয়ানডেতে টাইগারদের নৈপুণ্যে মুগ্ধ গ্রেট সুনীল গাভাস্কার, বিতর্কের মাঝেও মাশরাফিদের প্রশংসা করেছেন স্বয়ং অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনি। অথচ বাংলাদেশকে পাত্তা দিচ্ছেন না সুরেশ রায়না! লজ্জার হারের পরও বাকি দুই ম্যাচ নিয়ে ‘দম্ভ’ ঝরেছে ভারতীয় ব্যাটসম্যানের কণ্ঠে। বলেছেন, তারাই সেরা এবং সিরিজ জিতেই সেটি প্রমাণ করে দেবেন। এ কথা শুনে ‘টগবগ’ করে ফুটতে থাকা টাইগার ভক্তরা হয়ত বলবেন ‘হাতি ঘোড়া গেল তল, পিঁপড়া বলে কত জল!’ বাবা রায়না, সিরিজ জয় পরে, আগে সিরিজ হার তো ঠেকাও; দগদগে ক্ষত নিয়ে প্রথমে আজ সাকিব-তামিমদের মোকাবিলা কর!

‘হারটা আমাদের কষ্ট দিয়েছে, এটা যথেষ্ট পীড়াদায়ক। হ্যাঁ, একদিনের জন্য ওরা ভাল খেলেছে, তবে আমরা বাংলাদেশের চেয়ে অনেক ভাল দল’Ñ বলেন রায়না। প্রথম ওয়ানডেতে ৭৯ রানের ব্যবধানে লজ্জাজনকভাবে হারে সাবেক বিশ্বচ্যাম্পিয়নরা। তিন ওয়ানডের সিরজে পিছিয়ে পড়ে ১-০তে। এক ম্যাচ আগেই সিরিজ খোয়াতে না চাইলে আজ জিততে হবে তাদের। মান বাঁচাতে আর বিকল্প পথ নেই ক্রিকেট-মোড়লদের। ‘এত ছি ছি পড়ে যাওয়ার কী আছে? একটা ম্যাচেই তো হেরেছি, ওয়ানডেতে এমন অঘটন ঘটতেই পারে। সিরিজে এখনও দুটি ম্যাচ বাকি। শক্তভাবে ঘুরে দাঁড়াতে কী করণীয়, আমরা তা ভাল করেই জানি। নিজেদের যোগ্যতার প্রমাণ দিয়ে ভারত শেষ দুটি ম্যাচে জেতার জন্য প্রস্তুত’Ñ আরও যোগ করেন তিনি।

বিশ্বকাপের কোয়ার্টার ফাইনালে আম্পায়ারদের বিতর্কিত সিদ্ধান্তের জন্য হেরে যাওয়া বাংলাদেশের ভেতরের আগুনটা যে আরও দাউদাউ করে জ্বলছিল, প্রথম ওয়ানডেতে মাশরাফি বিন মর্তুজাদের ‘আউটস্ট্যান্ডিং’ পারফর্মই তা প্রমাণ করে। মোড়ল ভারতকে নিয়ে অনেকটা ছেলেখেলা করেন তরুণ মুস্তাফিজুর রহমান-তাসকিন আহমেদরা। ব্যাটিং-বোলিং-ফিল্ডিং কোন বিভাগেই পাত্তা পায়নি ধোনিরা। রায়নার কথা ঠিক, একটা ম্যাচে অনেক কিছুই ঘটতে পারে, তাই বলে এমন অসহায় আত্মসমর্পণ মেনে নিতে পারছেন না গাভাস্কার, কপিল দেবসহ অনেক সাবেক ভারতীয় তারকা। দেশটির মিডিয়াজুড়ে চলছে বিরাট কোহলি-মহেন্দ্র সিং ধোনিদের কচুকাটা। চারিদিকে ছি ছি রব। এখানটাতেই আপত্তি রায়নার।

তিনি বলেন, ‘প্লিজ একটি হারের পর আমাদের এভাবে বাজে দল বানাবেন না! কিভাবে ঘুরে দাঁড়াতে হয়, নিজেদের জাত চেনাতে হয়, সেটা রবি ভাই (অস্থায়ী কোচ) আমাদের বলে দিয়েছেন। দ্বিতীয় ম্যাচ থেকেই সবাই তা দেখতে পাবেন!’ নিজেদের যোজন এগিয়ে রাখলেও বাংলাদেশ যে উন্নতি করেছে সেটি মানছেন ২৮ বছর বয়সী উত্তরপ্রদেশ ক্রিকেটার। বিশেষ করে ওয়ানডেতে। ‘এটা অস্বীকার করার উপায় নেই, রঙিন পোশাকের ক্রিকেটে বাংলাদেশ উন্নতি করছে। গত কয়েক বছর ধরেই তা দেখা যাচ্ছে। ৫০ ওভারের ম্যাচে দৃশ্যপট বদলে দেয়ার মতো বেশ কয়েকজন খেলোয়াড় রয়েছেন। তবে আমি বিশ্বাস করি, নিজেদের সামর্থ্যরে স্বাক্ষর রেখে ঠিকই ঘুরে দাঁড়াব আমরা।’ উন্মাদনার ম্যাচে ৫ উইকেট নিয়ে অভিষেকেই নায়ক বনে যান সাতক্ষীরায় জন্ম নেয়া ১৯ বছর বয়সী বাঁহাতি পেসার মুস্তাফিজুর রহমান। অধিনায়ক ধোনির মতো রায়নাও উঠতি এই বোলারের প্রশংসা করেছেন, ‘আসলেই ওর বোলিং বৈচিত্র্য অনেক, সেটা কাজে লাগিয়েই সফল হয়েছে। ম্যাচের ভিডিওফুটেজ নিয়ে গবেষণা হচ্ছে। আশা করছি মুস্তাফিজুরকে মোকাবিলার কৌশল বের হবে!’ মুস্তাফিজুরকে নিয়ে গবেষণা হওয়াটা স্বাভাবিক। পাকিস্তানের বিপক্ষে টি২০ দিয়ে আন্তর্জাতিক অঙ্গনে আবির্ভাব। ওয়ানডে অভিষেকে ভারতকে একাই ধসিয়ে দিয়েছেন। এখন তাই সাকিব-তামিম নয়, ভারতীয়দের গবেষণার টেবিলে ‘পিচ্চি’ মুস্তাফিজুর!

একতরফাভাবে রায়নার হুঙ্কারকে অবহেলা করার সুযোগ কম। কারণ ভারতীয় দলের খোঁজ রাখা অনেকেই জানেন, দলকে উজ্জীবিত করার ‘জাদুকরি’ এক ক্ষমতা রয়েছে চেন্নাই সুপার কিংস তারকার। গত ইংল্যান্ড সফরে টেস্টে একের পর এক হারে দল যখন কোণঠাসা, তখন এমনি হুঙ্কার দিয়ে ইংল্যান্ডে উড়ে গিয়েছিলেন, অবিশ্বাস্যভাবে ৫ ওয়ানডের সিরিজ ৩-১এ জিতেছিল ভারত! চার ম্যাচে ৫৩ গড়ে ১৬০ রান করে সিরিজসেরা হয়েছিলেন এই রায়নাই!

প্রকাশিত : ২১ জুন ২০১৫

২১/০৬/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

খেলার খবর



ব্রেকিং নিউজ: