কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৪ ডিসেম্বর ২০১৬, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ

আজই সিরিজ নিশ্চিত করতে চায় বাংলাদেশ

প্রকাশিত : ২১ জুন ২০১৫
আজই সিরিজ নিশ্চিত করতে চায় বাংলাদেশ
  • সমতা ফেরাতে মরিয়া ভারত

মিথুন আশরাফ ॥ আহ্, কী আনন্দ। কী সুখ! আগে বলা হতো- সিরিজ হার না সমতা? এখন বদলে গিয়ে ‘হারে’র স্থানে ‘জয়’ হয়ে যাচ্ছে। আর বলা হচ্ছে, সিরিজ জয় না সমতা? ভারতের বিপক্ষে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজের প্রথমটিতে ৭৯ রানে জেতার পর আজ যেমন দ্বিতীয় ওয়ানডের আগে বদলে যাওয়া প্রশ্নটিই উঠছে।

আগে শক্তিশালী কোন দলের বিপক্ষে দ্বিপক্ষীয় সিরিজে খেলতে নামলে তিন ম্যাচের সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচে লিখতে হতো, বাংলাদেশ সিরিজ হারবে না সমতায় আসবে? এখন লেখা হয়Ñ বাংলাদেশ কি আজই সিরিজ জিতে নেবে, না সমতা আসবে? এতে তো আনন্দ হওয়ারই কথা। বদলে যাওয়া বাংলাদেশের ছবিই যে ফুটে উঠছে বারবার।

এমনই বদলে গেছে বাংলাদেশ যে এখন বিশ্বকাপ জেতার প্রশ্নও উঠছে! ’৮০-এর দশকে ভারত, ’৯০-এর দশকে পাকিস্তান ও শ্রীলঙ্কা বিকশিত হয়ে বিশ্বকাপ জিতে। শনিবার কোচ চন্দিকা হাতুরাসিংহেকেই প্রশ্নটি করা হয়েছেÑ পারফর্মেন্সের ধারাবাহিকতায় কী আসবে বিশ্বকাপ? কূটনৈতিক জবাবই দিয়েছেন হাতুরাসিংহেÑ ‘আসলে আমরা বিশ্বকাপ জিততে পারব কী, পারব না; সেটা আসলে সময়ই বলে দেবে। আপাতত আমাদের দৃষ্টি আগামী ম্যাচের (দ্বিতীয় ওয়ানডে) দিকে। সেই ম্যাচ সামনে রেখেই আমরা পরিকল্পনা করছি। দেখুন, শ্রীলঙ্কা যখন ১৯৯৬ সালে বিশ্বকাপ জেতে, তখন দলটা অনেক অভিজ্ঞতা নিয়ে এসেছিল। সেদিক থেকে বাংলাদেশকে আরও অনেক পথ পাড়ি দিতে হবে।’

জিম্বাবুইয়েকে টানা ৫ ওয়ানডেতে হারানোর পর দেশের মাটিতে পাকিস্তানকেও টানা ৩ ওয়ানডেতে হারিয়েছে বাংলাদেশ। জিম্বাবুইয়ের বিপক্ষে সিরিজ থেকেই নির্ধারিত ওভারে কোন হার নেই বাংলাদেশের। ভারতের বিপক্ষে প্রথম ওয়ানডেতে জয়ে দেশের মাটিতে টানা ৯ ওয়ানডেতে জিতেছে বাংলাদেশ। এরপরই বাংলাদেশের বিশ্বকাপ জয় নিয়ে কথা উঠতে শুরু করে। হাতুরাসিংহে এখনই বিশ্বকাপ জয়ের স্বপ্ন দেখছেন না। তবে ভারতের বিপক্ষে সিরিজে ১-০ ব্যবধানে এগিয়ে যাওয়ায় সিরিজ জয়ের স্বপ্ন ঠিকই দেখছেন।

দ্বিতীয় ওয়ানডে ম্যাচপূর্ব সংবাদ সম্মেলনে সিরিজ জয় নিয়ে বদলে যাওয়া বাংলাদেশের গুরু হাতুরাসিংহেই বলেছেন, ‘আমরা সিরিজ জয়ের ব্যাপারে আত্মবিশ্বাসী। তবে এখনও অনেক জায়গায় আমাদের উন্নতি করতে হবে।’ সেই সিরিজ জয়ের দিন আজই?

ভারতের বিপক্ষে এর আগে ৩টি ওয়ানডে সিরিজ খেলে বাংলাদেশ। সব সিরিজ বাংলাদেশে অনুষ্ঠিত হয়। প্রতিটি সিরিজেই হারে বাংলাদেশ। ২০০৭ ও ২০১৪ সালে হোয়াইটওয়াশ হয়। তবে ২০০৪ সালে যে ভারতের বিপক্ষে প্রথমবার তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ খেলেছিল বাংলাদেশ, সেই সিরিজ জয়ের আশা তৈরি করেছিল। প্রথম ওয়ানডে হারের পর দ্বিতীয় ওয়ানডে জিতে সমতায় ফিরে বাংলাদেশ। তৃতীয় ওয়ানডেতে হেরে সিরিজ হারে। সেবার কিন্তু সিরিজ জয়ের স্বপ্ন থাকলেও তাতে বাস্তবতা ছিল না। বাংলাদেশের জেতার সম্ভাবনা অনেক বেশি, সেইরকম কোন বিশ্বাসও ছিল না।

এবার বাংলাদেশ যে সিরিজ জিতেই যেতে পারে, সেই আত্মবিশ্বাস আছে। প্রথম ওয়ানডে জেতায়, আরও ২ ওয়ানডে বাকি থাকায়, জেতার সম্ভাবনা বাংলাদেশের অনেক বেশি হয়ে গেছে। যদি প্রথম ওয়ানডের ধারাবাহিকতা বজায় রাখতে পারে বাংলাদেশ। আজ না জিতলেও যদি বুধবার তৃতীয় ওয়ানডেতে জিতে বাংলাদেশ, তাহলেও সিরিজ জয় হবে।

সিরিজ জয়ের স্বপ্ন আজই পূরণ করে ফেলতে চায় বাংলাদেশ। জিম্বাবুইয়ে, পাকিস্তানের পর ভারতকেও হারাতে চায়। বিশ্বকাপের কোয়ার্টার ফাইনালে আম্পায়ারদের সিদ্ধান্তগুলো বাংলাদেশের বিপক্ষে না গেলে সেদিন ভারতই হারতে পারত। তা যে হওয়া স্বাভাবিক ছিল, সেই প্রমাণ প্রথম ওয়ানডেতেই মিলে গেছে। বিশ্বকাপের প্রতিশোধ নেয়াও হয়ে গেছে। যতই বাংলাদেশ ক্রিকেটাররা বলুক প্রতিশোধ বলে কিছু নেই। কিন্তু পাকিস্তানকে হোয়াইটওয়াশ করার পরও এত আনন্দ মিলেনি, যতটা ভারতকে প্রথম ওয়ানডেতে হারানোর পর করেছে বাংলাদেশ। নেচেছে, গেয়েছে, আনন্দ, উল্লাস করেছে। তাতেই কী বোঝা যায় না ক্রিকেটারদের মনেও প্রতিশোধের আগুন জ্বলছিল।

প্রতিশোধ নেয়া হয়ে গেছে। এখন সিরিজ জয়ের স্বপ্ন দেখার পালা। যে স্বপ্নে আজও চার পেসারের অন্তর্ভুক্তিই থাকছে। দলে কোন পরিবর্তনের সম্ভাবনাও নেই। যে দলটি নিয়ে ভারতকে হারানো গেছে, বড় ব্যবধানেই; সেই দল বদলানোর কোন মানেই হয় না। তাই একাদশ একই থাকছে। এই একাদশ নিয়েই আবার ভারতকে বধ করতে চায় বাংলাদেশ। তাই বলে বাংলাদেশকে ফেভারিট মনে করে ফেলছেন না কোচ হাতুরাসিংহে। বলেছেন, ‘আমি কিন্তু আমাদের ফেভারিট বলছি না। তবে আমরা অনেক আত্মবিশ্বাসী।’

প্রথম ওয়ানডে জয়ে পুরো জাতি আনন্দে বাকবাকুম হলেও হাতুরাসিংহে কিন্তু খুশি নন। এর পেছনে যুক্তিও দাঁড় করিয়েছেন। বলতে চেয়েছেন, পাকিস্তানের বিপক্ষে কয়েকটি ম্যাচ দারুণ খেলেছে বাংলাদেশ। কিন্তু ভারতের বিপক্ষে প্রথম ম্যাচে কিছু ভুল ছিল, যা শুধরে নিতে হবে। জয় এসেছে ঠিক। তবে আরও ভাল করতে হবে। বাকি থাকা দুই ম্যাচে সেই উন্নতি দেখাতে হবে। তখন খুশি হবেন হাতুরাসিংহে। এমনও হতে পারে আজই হাতুরাসিংহের সেই খুশির দিনটি আসতে পারে। জিতলেই যে সিরিজ জয় হয়ে যাবে। হারলে সিরিজে আসবে সমতা। আজ সিরিজ জয় না সমতা আসবে?

প্রকাশিত : ২১ জুন ২০১৫

২১/০৬/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

খেলার খবর



ব্রেকিং নিউজ: