মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
৯ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শুক্রবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

আজ থেকে কার্যকর হচ্ছে স্ট্যান্ডার্ড ইন্স্যুরেন্সের লাইসেন্সের স্থগিতাদেশ

প্রকাশিত : ২১ জুন ২০১৫

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ আজ রবিবার থেকে পরবর্তী তিন মাসের জন্য স্ট্যান্ডার্ড ইন্স্যুরেন্সের লাইসেন্স স্থগিত করেছে বীমা উন্নয়ন ও নিয়ন্ত্রণ কর্তৃপক্ষ (আইডিআরএ)। স্ট্যান্ডার্ড গ্রুপের অগ্নিকা-ের ঘটনায় বীমা দাবির টাকা তুলতে অনিয়মের অভিযোগ ওঠে। পরবর্তীতে তদন্ত সাপেক্ষে এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে বলে সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে।

জানা গেছে, গত বৃহস্পতিবার স্ট্যান্ডার্ড ইন্স্যুরেন্সেকে চিঠি দিয়েছে আইডিআরএ। আর চিঠির অনুলিপি অর্থ মন্ত্রণালয়ে প্রেরণ করা হয়েছে। এর আগে গাজীপুরের কোনাবাড়ীর জারুন এলাকায় স্ট্যান্ডার্ড গ্রুপের বহুতলবিশিষ্ট পোশাক কারখানা ভবন ২০১৩ সালের ২৮ নবেম্বর মধ্যরাতে আগুনে পুড়ে যায়। কীভাবে আগুন লাগে, সে রহস্য এখনো উদ্ঘাটিত হয়নি। এ ঘটনায় সহানুভূতি জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পুড়ে যাওয়া স্ট্যান্ডার্ড গ্রুপের কারখানা পরিদর্শন করেন। পরবর্তীতে বীমা দাবির টাকা উত্তোলন করে। আর তখনই অনিয়মের ঘটনা ঘঠে। তখনই স্ট্যান্ডার্ড ইন্স্যুরেন্স, স্ট্যান্ডার্ড গ্রুপের বিভিন্ন কারখানা ও সাধারণ বীমা কর্পোরেশনের (এসবিসি) বিরুদ্ধে যোগসাজশের মাধ্যমে বিপুল অঙ্কের টাকা নিয়ে যাওয়ার অভিযোগ ওঠে। পরবর্তীতে কমিটি তদন্ত প্রতিবেদন তৈরি করে। আগুনে ভস্মীভূত কারখানা ভবনটিতে থাকা কাজীপুর ফ্যাশনস, তুলাগাঁও ফ্যাশনস এবং ইন্টারন্যাশনাল ট্রেডিং সার্ভিসেস লিমিটেড নামের স্ট্যান্ডার্ড গ্রুপের তিনটি প্রতিষ্ঠানের অনিয়মের বিষয়টি চিঠিতে উল্লেখ করেছে আইডিআরএ।

এতে বলা হয়েছে, আগুন লাগার তিন মাস আগে ৪৯ কোটি টাকার অগ্নিবিমা পলিসি দেখানো হয় কাজীপুর ফ্যাশনসের। পরে ১১ কোটি টাকা বাড়িয়ে দেখানো হয় ৬০ কোটি টাকা। কিন্তু ১১ কোটি টাকার কোন পুনঃবীমা নেই। আবার সাড়ে তিন মাস আগে পলিসি করা ইন্টারন্যাশনাল ট্রেডিং সার্ভিসেসের ২৪ কোটি ৪০ লাখ টাকার পলিসি পরে ৬০ কোটি টাকায় উন্নীত করা হয়। কিন্তু ৩৪ কোটি ৫০ লাখ টাকার কোন পুনঃবীমা করা হয়নি। চার মাস আগে করা তুলাগাঁও ফ্যাশনসেরও পুনঃবীমার বাইরে রয়েছে ৮৩ লাখ টাকা।

প্রকাশিত : ২১ জুন ২০১৫

২১/০৬/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

অর্থ বাণিজ্য



ব্রেকিং নিউজ: