কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৫ ডিসেম্বর ২০১৬, ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, সোমবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

ভাবনায় বাবা দিবস

প্রকাশিত : ২০ জুন ২০১৫
  • সবাই মিলে উৎযাপন করব

ছোটবেলায় আব্বু আমাকে কাঁধে নিয়ে বেড়াতেন। কিন্তু এখন আর তেমনটি হয় না বলে কাঁধে চড়া খুব মিস করি। সাইকেল চালানোটা আব্বু শিখিয়েছে। আব্বু কথা কম বলে এবং খুবই শান্ত স্বভাবের। তাই বলে যে আদর কম করে এমনটি কখনও না। আব্বু মূলত একজন শিক্ষানুরাগী এবং সাংস্কৃতিমনা মানুষ। গ্রামে একটি স্কুল প্রতিষ্ঠা করেছেন। আব্বু স্কুলে তার সর্বোচ্চ সময় ব্যয় করেন বলে আমরা পরিবারের সদস্যরা তাঁকে তেমন একটা কাছে পাই না। আব্বু বইপাগল মানুষ। আব্বুর ব্যক্তিগত বই সংগ্রহশালা রয়েছে। যা থেকে মাঝে মাঝে আমি বই নিয়ে পড়ি। বাবার স্কুলে তার সব শিক্ষার্থীরা, আমার পরিবার, বন্ধু-বান্ধব সবাইকে নিয়ে বিশাল এক কেক কেটে বাবা দিবস উৎযাপন করব। আব্বুই আমার আদর্শ। আমি আমার আব্বুর মতো হতে চাই। বাবা দিবসে বাবার প্রতি শ্রদ্ধা আর ভালবাসা।

দেওয়ান ফাহিম ফয়সাল

কচুয়া পাবলিক উচ্চ বিদ্যালয়, দশম শ্রেণী

সখীপুর, টাঙ্গাইল

আইসক্রিম খাওয়াব

পৃথিবীতে যে আমার সবচেয়ে প্রিয়, সে হলো আমার বাবা। আমি বাবাকে সব থেকে বেশি ভালবাসি। বাবাও আমাকে খুব ভালবাসে। আমার অসুখের সময় বাবা আমার পাশে অনেক রাত পর্যন্ত জেগে থাকে। একবার আমার কঠিন রোগ হয়েছিল। বাবা তখন আমাকে কোলে নিয়ে ঘুমাতেন। মুখে তুলে খাওয়াতেন। আমাকে বাবা কখনও মারেন না। আমার স্কুল থেকে ফিরতে দেরি হলে বাবা খুব টেনশন করেন। আমি বাবাকে কষ্ট দিতে চাই না। আমি এই বাবা দিবসে বাবাকে আইসক্রিম খাওয়াব।

আমেনা রায়হান

ভিকারুননিসা নূন স্কুল এ্যান্ড কলেজ

দশম শ্রেণী

উপহার দেব

পৃথিবীতে প্রত্যেক সন্তানের কাছেই তার বাবা সেরা। আমার কাছেও আমার বাবা সেরা। বাবা আমাকে সবচেয়ে বেশি ভালবাসে। আমিও আমার বাবাকে খুব ভালবাসি। বাবা আমার সব আবদার পূরণ করেন। কোন কিছু প্রয়োজন হলে কিনে দেন।

আমার সব ইচ্ছাপূরণ করেন। বাবা সবসময় আমাকে ভাল মানুষ হওয়ার শিক্ষা দেন। এবার বাবা দিবসে বাবাকে একটা উপহার দেব। বন্ধুরা, তোমরাও সুন্দরভাবে বাবা দিবস উদযাপন কর।

সাদিয়া খান ফারাহ

অগ্রণী স্কুল এ্যান্ড কলেজ

৮ম শ্রেণী, ঢাকা

ভাল বন্ধু

বাবা আমায় খুবই ভালবাসে। হয়ত আমি যতটা ভালবাসি তার চেয়েও অনেক বেশি। বাবার কাছে আজও কোন জিনিস চাইতে হয় না। কেমন করে জানি না, বাবা বুঝে ফেলে আর চাওয়ার আগেই সেই জিনিসটা আমার সামনে নিয়ে আসে। আমি কখনও কোন ভুল কাজ করলে বাবার রাগ ওঠে ঠিকই, কিন্তু পরক্ষণেই সেটি ভুলে গিয়ে আমাকে ক্ষমা করে দেন। আমাদের সকল কাজের পেছনেই বাবার অবদান মায়ের চেয়ে কোন অংশে কম নয়। বাবা আমাদের বন্ধুর মতো। মাঝে মাঝে একটু বকাবকি করলেও মুহূর্তেই সেটা আদরে বদলে যায়। বাবা দিবসে বাবার জন্য একটি কলম উপহার হিসেবে কিনেছি। প্রতিবারই বাবা আমাদের উপহার দেয়। এবার আমরা দেব।

তারানা হাসান

নিউসান স্কুল, নবম শ্রেণী, রাজশাহী

জীবনের আদর্শ

প্রত্যেক সন্তানের কাছেই বাবা একজন শ্রদ্ধেয় ব্যক্তি। আমার বাবাও আমার কাছে পরম শ্রদ্ধেয় ও পূজনীয় ব্যক্তিত্ব। তিনি পেশায় একজন শিক্ষক । আধো আধো ভাষায় ছড়া-কবিতা বলাতো বাবার কাছ থেকেই শিখেছি।

বাবা খুব ভ্রমণপ্রিয় মানুষ। ইতোমধ্যে তিনি আমাকে অনেক সুন্দর সুন্দর স্থান ঘুরিয়ে দেখিয়েছেন। ঐতিহাসিক স্থানে আমাকে নিয়ে যেতে পারলে তাঁর মধ্যে বেশি প্রশান্তি দেখতে পাই। বাবার উৎসাহেই আমি ভ্রাম্যমাণ লাইব্রেরি নিয়মিত পাঠক সদস্য হই। আমার যখন কোন অসুখ হয় তখন বাবাকে খুব বিষণœ হতে দেখি। শিক্ষক হিসেবে সবাই যখন বাবাকে শ্রদ্ধা করে তখন আমার মধ্যে এক ধরনের গর্ববোধ কাজ করে। এমন একজন আদর্শবান বাবার সন্তান হতে পেরে আমি গর্বিত ও ধন্য।

নাহিদুল আছহাব (অনিক)

বাংলাদেশ গ্যাস ফিল্ড স্কুল এ্যান্ড কলেজ

৬ষ্ঠ শ্রেণী, ব্রাহ্মণবাড়িয়া

প্রকাশিত : ২০ জুন ২০১৫

২০/০৬/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: