আংশিক মেঘলা, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৭ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, বুধবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

এবার দৃষ্টি চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতে

প্রকাশিত : ২০ জুন ২০১৫

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ ক্রিকেটভক্ত-সমর্থকরা আত্মবিশ্বাসী, প্রত্যয়ী ছিলেন ভারতকে পরবর্তী মোকাবেলায় হারিয়ে বিশ্বকাপ হারের প্রতিশোধ নেবে বাংলাদেশ। এবার বিশ্বকাপে বাংলাদেশ দল যেমন খেলছিল তাতে করেই টাইগারদের ওপর এই আত্মবিশ্বাস জন্মেছিল দেশবাসীর। সেই স্বপ্ন সত্যি হয়েছে। মাশরাফি বিন মর্তুজা বাহিনীর কাছ থেকে প্রত্যাশার সব শেষ হয়ে গেছে। কারণ প্রথম ওয়ানডেতেই ৭৯ রানের বড় ব্যবধানে ভারতকে পরাজিত করেছে বাংলাদেশ। মনের তীব্র বাসনা পূর্ণ হয়েছে দেশবাসীর। কিন্তু বাংলাদেশ অধিনায়ক এটিকে কোনভাবেই প্রতিশোধ বলতে নারাজ। তাছাড়া এখনও লক্ষ্য অটুট রাখতে চান তিনি। সেই লক্ষ্য হচ্ছে আগামী চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতে সরাসরি খেলার সুযোগ পাওয়া। এক ম্যাচ জিতে এই মুহূর্তে সাত নম্বরে উঠলেও সেটা টিকে রাখার জন্য আরেকটি ম্যাচ জিততেই হবে বাংলাদেশ দলকে। এমন লক্ষ্যের কথাই জানালেন মাশরাফি। অপরদিকে, পরাজয়ের পর সিরিজে ইতোমধ্যেই ১-০ ব্যবধানে পিছিয়ে থাকায় ভারতের ঘুরে দাঁড়ানো কঠিন চ্যালেঞ্জ বলে মনে করছেন সফরকারী দলের অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনি। বাংলাদেশ দল সম্প্রতি যে ধরনের ক্রিকেট খেলছে তাতে এ জয়ের পর তিনি বিন্দুমাত্র আশ্চর্য হননি।

বাংলাদেশের ক্রিকেট ভক্ত-সমর্থকদের আর যেন কিছুই পাওয়ার নেই। বিশ্বকাপের কোয়ার্টার ফাইনালে ভারতের কাছে হেরে বিদায়টা মেনে নিতে পারেনি এ দেশের ক্রিকেট অন্তঃপ্রাণ মানুষ। তারপর থেকে প্রতি মুহূর্তেই ক্রিকেট-ভক্তরা প্রতীক্ষার প্রহর গুনেছেন আবারও ভারতকে মোকাবেলার, প্রতিশোধ নেয়ার। মাশরাফি বাহিনী সেটাই করে দেখিয়েছে। কিন্তু সিরিজ শুরুর আগে থেকেই যেমন বলেছেন সেটাই আবার বললেন অধিনায়ক মাশরাফি। তিনি বলেন, ‘প্রতিশোধ ঠিক না। আমি এটা খেলায় বিশ্বাস করি না। আমরা ম্যাচ শেষে একসঙ্গে যাই। হোটেলে গিয়ে তাদের সঙ্গে গল্প করি। খেলার মধ্যে এসব চিন্তা না থাকাই ভাল। এতে স্বাভাবিক খেলাটা নষ্ট হয় বাড়তি চাপের কারণে।’ তবে ভারতকে এক প্রতিদ্বন্দ্বিতাহীন লড়াইয়ে হারিয়ে দেয়ার পর দারুণ খুশি মাশরাফি। তিনি যেমনটা চেয়েছিলেন দলের ক্রিকেটারদের কাছে তেমনটাই পেয়েছেন। বিশেষ করে দলের ব্যাটসম্যানদের ওপর দারুণ সন্তুষ্ট তিনি। মাশরাফি বলেন, ‘শুধু আমি নই, ছেলেরা সবাই খুশি। দলের পারফর্মেন্সে আমি অবশ্যই আনন্দিত। বাংলাদেশ ভয়হীন ক্রিকেট খেলছে। আমি আগেও বলেছিলাম, একটা একটা ম্যাচ করে এগোতে চাই আমরা। একটা জিনিস ভাল লাগছে, বিশেষ করে ছেলেরা এই ম্যাচটি নিয়েই চিন্তা করেছে। যেভাবে আমরা চেয়েছি সেটাই হয়েছে। আমাদের ব্যাটিংটা পাকিস্তান সিরিজ থেকেই ভাল হচ্ছে। আজও ওপেনাররাই গতিপথ ঠিক করে দিয়েছে। তামিম ও সৌম্য দুর্দান্ত শুরু করে শতরানের জুটি গড়ে। বৃষ্টির ব্যাঘাতে আমরা কিছুটা খেই হারিয়ে ফেলেছিলাম। তবে সাকিব ও সাব্বির সেটা সামলে নেয়। এখন আমাদের লক্ষ্য চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি। ’

ভারতকে হারিয়ে দেয়ার পর আইসিসি র‌্যাঙ্কিংয়ে সাত নম্বরে উঠে এসেছে বাংলাদেশ দল। চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি খেলার জন্য আগামী সেপ্টেম্বরের মধ্যে র‌্যাঙ্কিংয়ে অন্তত আট নম্বর অবস্থান ধরে রাখতে হবে। কাজেই এখনও চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতে সরাসরি খেলা নিশ্চিত হয়নি। বিষয়টি জানেন মাশরাফি নিজেও। তিনি বলেন, ‘আমার মনে হয় না, আমরা এখনও নিশ্চিত করতে পেরেছি। আমার ধারণা, আমরা এখন সাত নম্বরে উঠে এসেছি। চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি নিশ্চিত করতে আমাদের এখনও আরেকটি ম্যাচ জিততে হবে। আমরা এর প্রত্যাশায় আছি।‘ প্রথম ম্যাচেই বাংলাদেশের কাছে নাস্তানাবুদ হওয়ার পরে অনেকটাই আশাহত হয়ে পড়েছে ভারতীয় শিবির। এবার সিরিজে টিকে থাকতে হলে দ্বিতীয় ওয়ানডে জিততেই হবে। সেটাকে তেমন সহজ কাজ মনে করছেন না ভারতীয় অধিনায়ক ধোনি। তিনি বলেন, ‘অবশ্যই এটা কঠিন চ্যালেঞ্জ। প্রথম ম্যাচ হেরে যাওয়ার পর যে কোন সিরিজেই ঘুরে দাঁড়ানো সহজ নয়।’ তবে বাংলাদেশের এমন নৈপুণ্য দেখে বিন্দুমাত্র অবাক হননি ধোনি। তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশের কাছে হেরে আমি বিস্মিত নই। বর্তমান সময়ে তারা খুব ভাল ক্রিকেট খেলছে। তাছাড়া বড় পার্টনারশিপ না হলে ৩০৭ রান অতিক্রম করে জেতা সহজও নয়। এই দিনটিতে আমরা ভাল খেলিনি। তিন শ’ বা তিন শ’র বেশি স্কোর তাড়া করতে হলে জুটি খুব গুরুত্বপূর্ণ। মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যানরা সেটা করতে পারেনি। বাংলাদেশের বোলাররাও নিজেদের মাঠে ভাল জায়গায় বল করেছে।’

প্রকাশিত : ২০ জুন ২০১৫

২০/০৬/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

খেলার খবর



ব্রেকিং নিউজ: