আংশিক মেঘলা, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৬ ডিসেম্বর ২০১৬, ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, মঙ্গলবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

ইউনানী মেডিক্যালে শিক্ষার্থী পুলিশ সংঘর্ষ

প্রকাশিত : ২০ জুন ২০১৫

স্টাফ রিপোর্টার ॥ রাজধানীর মিরপুরের ১৩ নম্বর ইউনানী ও আয়ুর্বেদিক মেডিক্যাল কলেজের শিক্ষার্থীদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষ হয়েছে। এতে ১৩ জন আহত হয়েছেন। তাদের ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। আহতরা হচ্ছেন, আল-আমিন, আবু সাঈদ, শাহজালাল, বোরহান উদ্দিন, শবদের আলী, সুমন, রাহুল, সুদীপ দত্ত, মওদুদ আহমেদ, মোহতাসীন, লিমন, শফিউল ও শুভ। তাদের সবার বয়স ২০ থেকে ২৩ বছরের মধ্যে।

আহত শিক্ষার্থীরা জানায়, বহিরাগত বখাটেরা এক ছাত্রকে মারধরের জের ধরে বৃহস্পতিবার রাত পৌনে ১০টার দিকে কলেজের সামনের সড়কে অবরোধ করে তরা। এ সময় পুলিশ তাদের ওপর লাঠিচার্জ ও টিয়ারশেল নিক্ষেপ করে। তারা জানায়, কয়েকদিন ধরে কলেজ ক্যাম্পাসে বহিরাগত ছেলেরা খেলতে আসে। হোস্টেলের জানালার গ্লাস ভেঙে ফেলে ও চুরি হয়। অনেকবার কর্তৃপক্ষকে বলা সত্ত্বেও তা বন্ধ হচ্ছে না। তাই বৃহস্পতিবার নিজেরা উদ্যোগ নিয়ে বাইরের লোকজনকে খেলতে বাধা দেয়। এরই জের ধরে বহিরাগতরা এক ছাত্রকে মারধর করে। পরে কলেজের সামনের রাস্তায় শিক্ষার্থীরা অবরোধ শুরু করে। খবর পেয়ে রাত পৌনে ১০টার দিকে পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে তাদের রাস্তা থেকে সরে যেতে বলে। কিন্তু শিক্ষার্থীরা অনড় অবস্থানে ছিল। পরে পুলিশ টিয়ারশেল ও রাবার বুলেট ছুড়ে তাদের ছত্রভঙ্গ করে দেয়। এতে ওই ১৩ জন শিক্ষার্থী আহত হয়। পরে তাদের চিকিৎসার জন্য ঢামেক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে কাফরুল থানার ডিউটি অফিসার মোহাম্মদ ইদ্রিস আলী জানান, রাস্তা অবরোধের খবর পেয়ে পুলিশ সেখানে যায়। তাদের রাস্তা থেকে সরে যেতে বলা হয়। কিন্তু তারা সরে না গিয়ে উল্টো পুলিশের ওপর ইট-পাটকেল ছুড়ে মারে। পরে পুলিশ বাধ্য হয়ে তাদের ছত্রভঙ্গ করে দিতে টিয়ারশেল ছুড়ে মারে। এতে কয়েকজন ছাত্র সামান্য আহত হয়ে থাকতে পারে।

প্রকাশিত : ২০ জুন ২০১৫

২০/০৬/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

শেষের পাতা



ব্রেকিং নিউজ: