কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৫ ডিসেম্বর ২০১৬, ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, সোমবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

মধ্যরাতে ছড়াল আনন্দের বন্যা

প্রকাশিত : ১৯ জুন ২০১৫, ০১:১৩ এ. এম.

স্টাফ রিপোর্টার ॥ মুহূর্তেই মধ্যরাতে আনন্দ ছড়িয়ে গেল সবখানে। মধ্যরাতের এই আনন্দ উল্লাসে ক্রিকেটপ্রেমী বাংলাদেশী মাত্রই অংশ নিয়েছেন। সাকিবের শেষ আঘাতে বিধস্ত ধোনির ভারত যখন ভাবছে এ কি হলো, তখন গোটা বাংলাদেশে বিজয় উল্লাস ফেটে পেড়েছে। ৭৯ রানের বিশাল ব্যবধানে ভারতকে হারিয়ে জয়ী টাইগার বাহিনী। তিন ম্যাচ সিরিজে বাংলাদেশ এক-শূন্যের লিড। বিশ্বকাপে ভারতের মোড়লিকে বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়ে দিল বাংলাদেশ। আর এ অবস্থায় কি ঘরে মন টেকে। না সে তো টেকায় দায়। তাই তো রাতের নিস্তব্ধতা ভেঙ্গে উল্লাস করতে রাস্তায় নেমে আসেন সাধারণ মানুষ। বাংলাদেশ বাংলাদেশ স্লোগানে মুখরিত করে তোলে চারপাশ। আর ইয়াং মুস্তাফিজকে স্বাগত জানাতেও কার্পণ্য করেননি। কেননা তিনি অভিষেকেই আওয়াজ দিয়েছেন বহুদূর যাওয়ার। সঙ্গত কারণে মধ্যরাতের বাংলাদেশ, ক্রিকেটপাগল বাংলাদেশ আনন্দে ভেসেছে আনন্দে হেসেছে বিজয় উল্লাস করেছে।

মধ্যরাতেই ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসি এলাকা, মিরপুর স্টেডিয়াম থেকে শুরু করে ঢাকার সবখানেই প্রায় উৎসবে মাতে সাধারণ মানুষ। ধারাবাহিকভাবে ভাল ক্রিকেট খেলা বাংলাদেশ দলকে নেচে গেয়ে স্বাগত জানায় তারা। জয়ের স্লোগানে জয়ের উৎসব মানুষের ঢল ছিল চোখে পড়ার মতো।

সাকিবের শেষ বলটি ধনীর ভারতকে গুঁড়িয়ে দেয়ার পর পরপরই শিক্ষার্থীরা আবাসিক হলগুলো থেকে মিছিল নিয়ে বেরিয়ে আসেন রাজপথে। অল্প সময়েই কানায় কানায় পরিপূর্ণ টিএসসি ও রাজু ভাস্কর্য এলাকা। মুহূর্তেই ওই এলাকা হয়ে উঠে উৎসবের রঙিন এক ক্যানভাস। রাতের ঢাকার আঁধারকে দূরে ঠেলে রঙিন হয়ে ওঠে আনন্দ মিলিছে। উল্লাসে শামিল হন হাজারো মানুষ। গায়ে লাল-সবুজ পতাকা জড়িয়ে স্রোগানে স্লোগানে একটাই শব্দ বাংলাদেশ, বাংলাদেশ।

টিএসসিতে তরুণ, কিশোর, ছাত্র-শিক্ষক-কর্মকর্তা-কর্মচারীসহ বিভিন্ন শ্রেণী- পেশার মানুষ এই উচ্ছ্বাসে যোগ দেন। কেউ নেচেছে, কেউ গাইছে, কেউবা শুধুই বাংলাদেশ বাংলাদেশ বলে চিৎকার করছেন। এই তো সত্যিকারের বিজয় উল্লাস। টিএসসিজুড়েই শুধু উৎসবের আমেজ। সবার মুখে মুখে ছিল বাংলাদেশের খেলোয়াড়দের উচ্ছ্বসিত প্রশংসা। বিশেষ করে মুস্তাফিজের অভিষেকেই দেশের মানুষের হৃদয় জয় করার গল্প ছিল মুখে মুখে।

বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের অসাধারণ এই জয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীদের সঙ্গে দাঁড়িয়ে উপভোগ করেন পথচারীরাও। নেচে-গেয়ে সবাই প্রিয় দেশের খেলোয়াড়দের অভিনন্দন জানান। একই সঙ্গে সামনের খেলাতে বাংলাদেশ দলের সাফল্য কামনা করেন তারা। সকলের এখন একটাই প্রত্যাশা ভারতকে এই সিরিজে হারাতেই হবে। জয় ছাড়া বাংলাদেশ আর কোন কিছুই চিন্তা করতে পারছে না।

শুধু রাজধানী ঢাকায় নয় মধ্যরাতেই উৎসবের আবহ ছড়িয়ে পড়ে দেশজুড়ে। দেশের সব বিভাগীয় এবং জেলা শহরেও টাইগারদের বিজয়ে আনন্দ উল্লাস হয়েছে। শুধু রাজপথেই নয় খেলা শুরুর পর থেকে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও ভাল ব্যাটিংয়ের প্রশংসা করতে দেখা গেছে দর্শকদের। আর ভারতের ইনিংস শুরু হলে ধারাবাহিক উইকেট পতনে টিপ্পনি কেটেছে অনেকে। আর শেষটায় আনন্দ আনন্দ শুধুই আনন্দ বিজয়ের আনন্দ। জয় বাংলাদেশ। জয় বাংলা স্লোগান।

প্রকাশিত : ১৯ জুন ২০১৫, ০১:১৩ এ. এম.

১৯/০৬/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: