মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
১১ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

বাঁক

প্রকাশিত : ১৯ জুন ২০১৫

গতানুগতিকতার ছকে আবদ্ধ হয়েই গল্প বা গদ্যের কাগজ ‘বাঁক’ জানান দিল আমি এসেছি। বাঁকের জন্ম ঘোষণা সংখ্যাকে ‘মোটামুটি’ বলতে হচ্ছে। ছোট কাগজ হিসেবে উৎরে যাওয়ার সুযোগটি হাতছাড়া হয়ে গেছে নেপথ্য শব্দ- কারিগরদের।

গল্প-বিষয়ক প্রবন্ধ দিয়েই শুরু হয়েছে সূচনা লেখা। ‘বাংলাদেশের গল্প পর্যালোচনা : করতলে যা দেখি’ লিখেছেন প্রশান্ত মৃধা। গল্প নিয়ে ভাবনা চিন্তা করেছেন চন্দন চৌধুরী, মেহেদী উল্লাহ। গল্প উপহার দিয়েছেন ইমদাদুল হক মিলন, দীলতাজ রহমান, হামীম কামরুল হক, স্বকৃত নোমান, শুভাশিস সিনহা, পীযূষ কান্তি বড়ুয়া, তছলিম হোসেন হাওলাদার, মনসুর আজিজ, জয়দীপ দে, রফিকুজ্জামান রনি, শাহ ইয়াছিন বাহাদুর, সাইফুল্লাহ সাইফ, মুহাম্মদ ফরিদ হাসান প্রমুখ।

হিলারি ম্যান্টালের গল্প অনুবাদ করেছেন শামস আরেফিন ‘শীতের ভাঙন’ নামে।

দুটি সাক্ষাতকারে কথা বলেছেন শাহ নেওয়াজ বিপ্লব ও সাদিয়া মাহ্্জাবীন ইমাম।

সৈয়দ মনজুরুল ইসলাম আলোচনা করেছেন আহমদ মোস্তফা কামালের গল্পগ্রন্থ ‘অন্ধকারে কিছুই দেখা যাচ্ছে না বলে’।

হাসান আজিজুল হকের নামলিপিধন্য ‘বাঁক’ এর এ সূচনা সংখ্যায় সম্পাদকের মুন্সিয়ানা দেখানোর অনেক সুযোগ ছিল। মোমিন উদ্দীন খালেদের মানানসই প্রচ্ছদ।

ক্রমান্বয়ে উত্তরণের পথে পা বাড়াবে বলে আমরা প্রত্যাশা করি।

‘বাঁক’-এর হাত ধরে বাংলা গদ্য ও গল্পের বাঁক বদল হোক এমন কামনা রইল। মুদ্রণ সামগ্রীর উর্ধগতির বাজারে ‘বাঁক’-এর মূল্য ৫০ টাকা সুলভই বটে। স্বাগত যাত্রা শুরু সংখ্যা, অব্যাহত থাকুক এর প্রকাশনা।

প্রকাশিত : ১৯ জুন ২০১৫

১৯/০৬/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: