আংশিক মেঘলা, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৭ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, বুধবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

তারুণ্যের ঈদ ফ্যাশন সমাচার

প্রকাশিত : ১৯ জুন ২০১৫
  • পান্থ আফজাল

তারুণ্যের ফ্যাশন বলতে আধুনিক সময়ের ফ্যাশন সচেতন ছেলেমেয়েদের ফ্যাশনকেই বোঝানো হয়ে থাকে। ফ্যাশনে একচ্ছত্র আধিপত্য কেবল মেয়েদেরই নয়, ছেলেদের রয়েছে সমান সুযোগ-চাহিদা। তাই যুগ পাল্টেছে, পাল্টেছে মানুষের দৃষ্টিভঙ্গি; সেইসঙ্গে বদলেছে তারুণ্যের ফ্যাশনের ধারা। সময় ও সুযোগের মেলবন্ধনে তারুণ্যের ফ্যাশন হয়ে ওঠে সবার নিকট আদর্শ ও অনুসরণীয়। তবে মনে রাখা দরকার, সব কাজের মাঝে বুদ্ধি করে পোশাকের ধরনের সঙ্গে মিলিয়ে অন্যান্য অনুষঙ্গ ঠিক করে নিলে আপনি হয়ে উঠবেন ফ্যাশনেবল ও ব্যক্তিত্ববান একজন আইকন।

তরুণীর পোশাক বিচিত্রতা

যাঁরা বাইরে কাজ করেন, তাঁদের জন্য সুতি ও ভয়েল কাপড় বেশি উপযোগী। মেয়েরা ফতুয়া বা সালোয়ার-কামিজ বেছে নিতে পারেন। ব্লক প্রিন্টের নকশা করা পোশাক পরতে পারেন গরমে। ঘরে পাতলা কাপড়ের টপ পরতে পারেন। বাঙালী নারীদের সবচেয়ে প্রিয় পোশাক হচ্ছে শাড়ি। শাড়ি কিনতে যেতে পারেন বসুন্ধরা সিটি, গাউছিয়া, নিউমার্কেট, ধানম-ি হকার্স মার্কেট, মৌচাক, মিরপুর বেনারসি পল্লীতে। তাছাড়া সম্পূর্ণ দেশীয় আমেজের জন্য আমাদের বুটিক শপগুলো তো আছেই। আড়ং, কে ক্রাফট, নগর দোলা, বাংলার মেলা, অন্যমেলা, অঞ্জনসে ট্র্যাডিশনালসহ সব রকম শাড়িই পাওয়া যায়। আজকাল ডিজাইনার পালাজ্জো খুব চলছে। তাই চাইলে ঐ রকম একটা পালাজ্জো কিনে তার সঙ্গে ম্যাচিং কামিজ ও ওড়না করে নিতে পারেন। রেডিমেড সালোয়ার-কামিজ কিনতে যেতে পারেন বিপণি বিতানগুলোতে।

ফ্যাশনে তারুণ্য

ছেলেদের ফ্যাশনের মধ্যে টিশার্ট একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়, বিশেষ করে কম বয়সের ছেলেদের জন্য। নিজ নিজ গায়ের রং অনুযায়ী পছন্দমতো ফুলশার্ট পছন্দ করতে পারেন। হাফশার্ট থেকে ছেলেদের ফুলশার্টে বেশি ভাল দেখা যায়। যারা নিয়মিত স্যুট পরেন তারা স্যুটের রঙের ওপর নির্ভর করে শার্ট পরবেন। স্যুট গাঢ় রঙের হলে শার্ট পরবেন হাল্কা রঙের। গরমের সময় স্যুট পরতে না চাইলে শর্ট শার্ট, ফতুয়া এবং জিন্স পরতে পারেন। আর বর্ষা মৌসুমে আরামদায়ক পোশাক পরা আবশ্যক।

তারুণ্যের পাদুকা সমাচার

ছেলেমেয়েদের ফ্যাশন এ্যাকসেসরিজ হিসেবে প্রথমেই আসে জুতার প্রসঙ্গ। আর এখন স্যান্ডেলের ট্রেন্ড হিসেবে একটু পা ঢাকা স্যান্ডেলের চলই বেশি। ছেলেরা শার্টের সঙ্গে মিলিয়ে পরতে পারেন সামনের দিকে গোলাকার সু বা একটু চৌকানো সু। এছাড়া হালকা ডিজাইনের নানা স্যান্ডেল পরতে পারেন পাঞ্জাবির সঙ্গে। মেয়েদের রয়েছে জুতার প্রতি বিশেষ দুর্বলতা। মেয়েরা পোশাকের সঙ্গে মানানসই স্টাইলিশ জুতার জন্য প্রথমেই ঢুঁ মারা যেতে পারে যমুনা ফিউচার পার্ক বা বসুন্ধরা সিটিতে। এখানেই রয়েছে বাটা, বে-এম্পোরিয়াম এবং এ্যাপেক্সের সবচেয়ে বড় শোরুম।

তারুণ্যের ফ্যাশনে বেল্ট

জুতার পর ছেলেমেয়েদের আরেকটি গুরুত্বপূর্ণ অনুষঙ্গ হলো বেল্ট। বিশেষ করে যারা একটু ওয়েস্টার্ন লুকে নিজেদের ফুটিয়ে তুলতে চান তাদের ক্ষেত্রে বেল্ট কিংবা কোমরবন্ধনীটি স্মার্ট কিংবা স্টাইলিশ হওয়াই বাঞ্ছনীয়। আর এ জাতীয় স্টাইলিশ বেল্টের জন্য ঢুঁ মারতে পারেন এক্সটেসি, সোল ড্যান্স কিংবা ডিজেলের মতো ফ্যাশন আউটলেটগুলোতে।

ফ্যাশনে ব্যাগ

বাইরে বের হতে মেয়েদের সঙ্গে থাকতে হয় অতিপ্রয়োজনীয় কিছু জিনিস। ছেলেদের বেলায় এত কিছু না থাকলেও পকেটে টাকা তো থাকতেই হয়। আর এসব বহনে থাকা চাই একটি ভাল ব্যাগ। প্রয়োজনের এমন তাগিদে ব্যবহারকৃত মেয়েদের হ্যান্ডব্যাগ থেকে শুরু করে ছেলেদের পকেটের ওয়ালেটেও আজকাল দেখা যায় রকমারি। মেয়েদের ফ্যাশনে বেশ বড়সড় জায়গায়ই দখল করে নিয়েছে নানা রকম হাতব্যাগ। আর ছেলেদের মানিব্যাগ বা ওয়ালেট তো থাকা চাই-ই চাই। আবার ব্যাগ-প্যাকের বেলায় ছেলেমেয়ে সবার পছন্দ মোটামুটি একই রকম। আর বিভিন্ন ধরনের ব্যাগের ডিজাইনেও দেখা দেয় যায় ভিন্নতা। সময় আর ট্রেন্ডের সঙ্গে আসে নতুন নতুন ডিজাইনের ব্যাগ।

তারুণ্যের ফ্যাশন সচেতনতা

চুলের স্টাইল, পোশাক, জুতা, রোদচশমা ইত্যাদি সব ব্যাপারেই ছেলেমেয়েরা এখন আগের চেয়ে অনেক বেশি সচেতন। তারুণ্যের ফ্যাশন ইন্ডাস্ট্রিও এখন সামনের দিকে এগিয়ে যাচ্ছে। তাই কোন ছেলেমেয়ে যদি ফ্যাশনেবল হতে চায়, তাহলে তাকে কিছু বিষয়ে লক্ষ্য রাখতে হবে। যেমন কোন্ জিনিসগুলো তার সঙ্গে মানায় কিংবা কোন্ ধরনের পোশাক পরলে তাকে ভাল দেখাবেÑ এ বিষয়গুলো মাথায় রাখতে হবে।

বয়সটাই যখন এলোমেলো, খেয়ালখুশিমতো চলার, সেখানে এসব নিয়ে কথা বলতে যাওয়া একটু সমস্যাই। তবে কৈশোরের উচ্ছ্বাস, তারুণ্যের জোয়ারকে লাগাম পরানোর জন্য নয়; বরং নিজেকে আরও সাবলীলভাবে উপস্থাপন করার জন্যই দরকার এ ব্যাপারে একটু সচেতন হওয়া। ফ্যাশন, স্টাইল সব তার জায়গামতো থাকবে। তবু কোন্ উপলক্ষে, কোথায় নিজেকে কিভাবে উপস্থাপন করা দরকার সেটাও ভাবতে হবে।

প্রকাশিত : ১৯ জুন ২০১৫

১৯/০৬/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: