কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৫ ডিসেম্বর ২০১৬, ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, সোমবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

জোড়া সেঞ্চুরিতে সমতায় ফিরল ইংল্যান্ড

প্রকাশিত : ১৯ জুন ২০১৫

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ জো রুট আর ইয়ন মরগানের জোড়া সেঞ্চুরির সৌজন্যে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে চতুর্থ একদিনের ম্যাচে জয় পেয়েছে ইংল্যান্ড। বুধবার প্রথমে ব্যাট করে ৩৪৯ রানের বিশাল টার্গেট ছুড়ে দিয়েছিল ইংলিশদের। এরপর রুট আর অধিনায়ক মরগানের তৃতীয় উইকেটে রেকর্ড জুটির ওপর ভিত্তি করেই ৩৫০ রানের স্কোর তাড়া করে জয়ের স্বাদ পায় ইংল্যান্ড। এটি তাদের একদিনের ম্যাচে সর্বোচ্চ রান তাড়া করে জয়ের রেকর্ডও। সেইসঙ্গে সফরকারী নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে চতুর্থ একদিনের ম্যাচ জিতে ২-২ ব্যবধানে সমতায় ফিরল স্বাগতিক ইংল্যান্ড।

বুধবার ট্রেন্ট ব্রিজে চতুর্থ একদিনের ম্যাচ জিতলেই এক ম্যাচ হাতে রেখে সিরিজ নিজেদের করে নেয়ার সুযোগ ছিল নিউজিল্যান্ডের। অন্যদিকে ইংলিশদের সামনে ছিল সমতায় ফেরার সুযোগ। শেষ পর্যন্ত নিউজিল্যান্ড নয় ইংলিশদের মুখেই দেখা গেল জয়ের হাসি। চতুর্থ ম্যাচে কিউইদের ৩৪৯ রানের জবাবে ৩৬ বল হাতে রেখেই সাত উইকেটে জয় পায় ইংল্যান্ড। তবে কিউইদের দেয়া পাহাড়সম রানের ধাক্কা ভালই সামাল দেন ইংলিশ দুই ওপেনার জেসন রয় ও এ্যালেক্স হেলস। দু’জনে মিলে ১১ ওভারেই ১০০ রানের জুটি গড়েন। তবে হেলস ৬৭ আর রয় ৩৮ রানে আউট হলেও মরগান ও রুট মিলে তৃতীয় উইকেট জুটিতে ১৯৮ রান করে জয়ের ভিত্তি গড়ে দেন। এ সিরিজের শুরু থেকেই দুর্দান্ত পারফর্মেন্স উপহার দিয়েছেন মরগান। নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে সিরিজের সব ম্যাচেই হাফ সেঞ্চুরি কিংবা তারও বেশি রান তুলেন তিনি। প্রথম তিন ওয়ানডেতেই অর্ধশতক করা এই ইংলিশ অধিনায়ক বুধবার থামলেন শতরানের ইনিংস পূর্ণ করেই। ৮২ বলে তার ঝড়ো গতির ইনিংসটি শেষে ১১৩ রানে থেমে যায়। কিউ বোলার টিম সাউদির বলে আউট হয়ে সাজঘরে ফিরেন তিনি। বাঁহাতি এ ব্যাটসম্যানের ইনিংসে ১২ চারের পাশাপাশি পাঁচটি বিশাল ছক্কার মার ছিল। শতরানের ইনিংস খেলে জয়ের ভিত গড়ে দিয়ে মরগান আউট হলেও একপাশ ধরে খেলেন রুট। শেষ পর্যন্ত জয়ের স্বাদ নিয়েই মাঠ ছাড়েন তিনি। এদিন ৯৭ বলে ১৩ চারের সাহায্যে ১০৬ রান করে অপরাজিত থাকেন জো রুট। আর অন্যদিকে ১৯ রানে অপরাজিত থেকে মাঠ ছাড়েন বেন স্টোকস।

বুধবার গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে টসে জিতে প্রথমে ব্যাট করতে নামে নিউজিল্যান্ড। শুরুটা দারুণভাবেই করে তারা। কেন উইলিয়ামসনের ৯০ রানের ওপর ভর করে বড় সংগ্রহ দাঁড় করায় নিউজিল্যান্ড। এছাড়া গ্র্যান্ট এলিয়ট ৫৫ ও মার্টিন গাপটিল ৫৩ জোড়া অর্ধশতক পূর্ণ করেন। ইংলিশদের হয়ে দুটি করে উইকেট লাভ করেন ডেভিড উইলি ও স্টোকস। সর্বোচ্চ ১১৩ রান করে ম্যাচ সেরার পুরস্কার জিতেন ইংলিশ অধিনায়ক মরগান। চতুর্থ একদিনের ম্যাচ জিতে সমতায় ফেরায় এই মুহূর্তে স্বস্তি বিরাজ করছে ইংলিশ শিবিরে। এ বিষয়ে মরগান বলেন, ‘এই জয়ের পর দলের মধ্যে স্বস্তি ফিরেছে। আসলে আমরা খেলার ফলাফলে নয় বরং আমাদের প্রক্রিয়ার দিকে বেশি গুরুত্ব দিচ্ছি।’ এর পেছনের কারণটার কথাও জানালেন তিনি।

কারণ, আগামী ২০১৯ বিশ্বকাপ অনুষ্ঠিত হবে নিজেদের মাটিতে। আর সেই টুর্নামেন্টের আগে নিজেদের মধ্যে একটা পরিবর্তন আনতে চাচ্ছেন তারা। এ বিষয়ে ইংলিশ অধিনায়ক ইয়ন মরগান বলেন, ‘আমি মনে করি পদ্ধতিটা খেলার জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ। আমরা কিছু একটা পরিবর্তন করার জন্য খুব করেই চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি। আসলে যেটা অন্য জাতিসমূহের মধ্যে স্বাভাবিকভাবে লক্ষ্য করা যায় না ... প্রকৃতপক্ষে এই মুহূর্তটা খুবই উৎসাহব্যঞ্জক।’ বিশাল টার্গেট ছুড়ে দিয়েও জয় হাতছাড়া হওয়ায় হতাশ নিউজিল্যান্ডের অধিনায়ক ব্রেন্ডন ম্যাককুলাম। এ বিষয়ে তিনি বলেন, ‘আসলে রান তাড়া করার এমন জয়টা অবিশ্বাস্যই। তবে কৃতিত্বটা তাদেরই দিতে হবে। কেননা ৪৪ ওভারেই এই ম্যাচ জেতাটা কষ্টকর। আর তারা সেই কাজটাই করেছে। আমাদের চেয়ে তারা খুবই ভাল খেলেছে।’ সিরিজের পঞ্চম ও শেষ একদিনের ম্যাচটি হবে শনিবার। চেস্টার-লি-স্ট্রিটে অনুষ্ঠিত সেই ম্যাচে জয়ী দলই উৎযাপনের জোয়ারে ভাসবে।

স্কোর ॥ নিউজিল্যান্ড ইনিংস ৩৪৯/৭ (৫০ ওভার; উইলিয়ামসন ৯০, এলিয়ট ৫৫*, গাপটিল ৫৩ ; উইলি ৮৯/২, স্টোকস ৭৩/২)

ইংল্যান্ড ইনিংস ৩৫০/৩ (রুট ১০৬*, মরগান ১১৩, হেলস ৬৭; হেনরি ৭৭/২, সাউদি ৭০/১)

ফল ॥ ইংল্যান্ড ৭ উইকেটে জয়ী

ম্যাচসেরা ॥ মরগান (ইংল্যান্ড)

সিরিজ ॥ পাঁচ ওয়ানডে সিরিজ ২-২ ব্যবধানে সমতা।

প্রকাশিত : ১৯ জুন ২০১৫

১৯/০৬/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

খেলার খবর



ব্রেকিং নিউজ: