রৌদ্রজ্জ্বল, তাপমাত্রা ২৩.৯ °C
 
৮ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, বৃহস্পতিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

ব্যস্ত পড়শী

প্রকাশিত : ১৮ জুন ২০১৫

পড়শীর কাছে প্রথমেই জানতে চাইলাম কেমন আছেন ? তিনি মিষ্টি হাসি হেসে বললেন ভালো আছি। সময় ভালো কাটছে। তবে কাজ নিয়ে খুব ব্যস্ত আছি। যেহেতু অন্য কাজে সাথে আমাকে পড়াশোনায় ও সময় দিতে হয়। পড়শীর গানের প্রতি ভাল লাগা ছোট বেলা থেকেই। তিনি এ বিষয়ে আরোও বলেন, আমি ছোট বেলা থেকে গান ও নাচ করতাম। কিন্তু কেন জানি না নাচের চেয়ে গানের প্রতি আমার বেশী ভাললাগা তৈরি হয়। সংগীতে জগতে আসার পথে কার অবদান সবচেয়ে বেশী ছিল ? এ বিষয়ে তিনি জানান, আমি ছোট বেলা থেকে গান ও নাচ করতাম। আমার নানু ও মা গান করেন। আমি নানুর কাছ থেকে প্রথমে গান শিখি। নানুর কাছ থেকে গান শেখার পর ওস্তাদ নিয়াজ মামুন স্যারের কাছে থেকে গান শিখেছি। এছাড়া আমার ভাইয়া মাঝেমধ্যে গান করে, গিটার বাজায়। আসলে আমি ছোট বেলা থেকে একটা গানের আবহে বড় হয়েছি।

পড়শী ক্ষুদে গানরাজের ২০০৮ সালের আসরে ছিলেন। এতদূর আসার পেছনে তার নানু ও মায়ের অবদান অনেক। পড়শী বলেন, বলতে পারেন এই দুজন মানুষের জন্য আজকে আমি পড়শী হতে পেরেছি। আর আমি ক্ষুদে গানরাজে সেকেন্ড রানার আপ হয়েছিলাম। পড়শীর তার বর্তমান ব্যস্ততা নিয়ে বলেন, নিয়মিত ভাবে সিনেমায় প্লেব্যাক করছি। সিনেমায় গানের পাশাপাশি বিঞ্জাপনে জিঙ্গেলের কাজ করছি। তবে আমি জিঙ্গেলের কাজ একটু বেছে করি। এছাড়া মেন্টাল ছবিতে অভিনয় করছি। আর ভাবছি কিছুদিনের মধ্যে আমার চতুর্থ এককের কাজে হাত দিবো। এছাড়া বর্তমানে ষ্টেজ, টিভি লাইভ শো নিয়ে ব্যস্ত সময় পার করছি। পড়শী প্রথম সিনেমায় প্লেব্যাক করেন”চাচ্চু আমার চাচ্চু” ছবিতে ২০০৮ সালে। তখন তিনি ক্ষুদে গানরাজে ছিলেন। গানটির কথাও সুর করেছিলেন কবির বকুল, আর সংগীত পরিচালনা করেছিলেন ইমন সাহা। আপনি যেহেতু মেন্টল সিনেমায় অভিনয় করছেন, নিয়মিত অভিনয় ,মডেলিং এর অফার পেলে কি করবেন ? পড়শী এ প্রশ্নের ঊত্তের হেসে বলেন, আমি একটি বিঞ্জাপনে কাজ করেছিলাম শখের বসে। তবে ভালো সাড়া পেয়েছিলাম সবার কাছ থেকে। আসলে গানটা আমার রক্তের সাথে মিশে আছে। আমার প্রথম পছন্দ শুধুই গান। আমি গানটাই ভালো ভাবে করতে চাই। আমি ইতিমধ্যে অভিনয়ে ও মডেলিং কাজ করার জন্য অফার পাচ্ছি। কিন্তু কাজ করা হয় ওঠেনি। তবে খুব ভালো কাজ পেলে এবং আমার মন মতো হলে বেছে বেছে কিছু করার ইচ্ছে আছে। পড়শী গান নিয়ে তার স্বপ্নের কথা ব্যক্ত করে বলেন, আমি ছোট বেলা থেকেই গান শিখি। আমি ছোট বেলায় দেখতাম নানু, মা গান

করেন। তখন থেকেই আমার মনে গান জায়গা করে নেয়। আর আমিও চেয়েছি গান শিখতে। আমি ছোট বেলা থেকেই গান শুনতে এবং গাইতে খুব ভালবাসতাম। তাই আমার গান নিয়ে স্বপ্ন হলো শুধু আমার দেশে নয় আমি যেন বিশ্বের সব দেশে বাংলা গান দিয়ে বাংলাদেশকে পরিচিত করাতে পারি। পড়শী অবসর সময় খুব বেশী একটা পান না। এখনও যেহেতু তিনি পড়াশোনা করেন। এরপর ও তার কাজের ফাঁকে যেটুকু সময় পান তখন তিনি প্রচুর গান শুনেন। পড়শী বলেন, আমি গুন গুন করে সব সময় গান গাই। এমন ও হয় আমি স্বপ্নের মাঝে গান গাই। পরিবারের সাথে সময় কাটাতে আমার খুব ভালো লাগে। পড়শীর স্বপ্ন ভালো কিছু গান গাইতে চাই। আমি চাই আমার শ্রোতারা আমাকে নিজের গানে চিনবে। আমি এ্যালবামে যেভাবে গান করি শ্রোতারা আমাকে ঠিক সেভাবে লাইভে পাবে। আমি সকলের দোয়া ও ভালবাসা চাই যেন ভাল বাংলা করতে পারি এবং সারা জীবন বাংলা গানের সাথে থাকতে পারি। ঊল্লেখ্য এ পর্যন্ত তার তিনটি সলো অ্যালবাম প্রকাশিত হয়েছে। তার প্রকাশ হওয়া প্রথম সলো অ্যালবামটির নাম হলো ‘পড়শী’ (২০১০) সালে এটি বাজারে আসে লেজার ভিশনের ব্যনারে। প্রকাশ হওয়া দ্বিতীয় সলো অ্যালবামটি নাম হলো ”পড়শী ২”(২০১২) সালে এটা বাজারে আসে জি সিরিজের ব্যনারে এবং প্রকাশ হওয়া তৃতীয় সলো অ্যালবামটি নাম হলো ”পড়শী ৩”(২০১৩) সালে এটাও বাজারে আসে জি সিরিজের ব্যনারে।

সজীব শাহরিয়ার

প্রকাশিত : ১৮ জুন ২০১৫

১৮/০৬/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: