রৌদ্রজ্জ্বল, তাপমাত্রা ২৩.৯ °C
 
৯ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শুক্রবার, ঢাকা, বাংলাদেশ

নাইকো মামলা ॥ খালেদার আবেদনের রায় বৃহস্পতিবার

প্রকাশিত : ১৭ জুন ২০১৫, ০১:০৬ পি. এম.

স্টাফ রিপোর্টার ॥ নাইকো দুর্নীতি মামলার বৈধতা নিয়ে প্রশ্ন তুলে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার করা আবেদনের রায় জানা যাবে বৃহস্পতিবার।

দুর্নীতি দমন কমিশনের করা এই মামলা নিয়ে সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদার করা আবেদনের শুনানি শেষে বিচারপতি মো. নূরুজ্জামান ও বিচারপতি জাফর আহমেদের হাই কোর্ট বেঞ্চ গত ২৮ মে বিষয়টি রায়ের জন্য অপেক্ষমান রেখেছিল। এই বেঞ্চের বৃহস্পতিবারের কার্যতালিকায় বিষয়টি রায়ের জন্য রাখা হয়েছে।

হাই কোর্টে খালেদার পক্ষে শুনানি করেন সাবেক অ্যাটর্নি জেনারেল এ জে মোহাম্মদ আলী ও রাগীব রউফ চৌধুরী। তাদের সঙ্গে ছিলেন আইনজীবী এ কে এম এহসানুর রহমান। অন্যদিকে দুদকের পক্ষে ছিলেন খুরশীদ আলম খান।

সেনা নিয়ন্ত্রিত তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সময় খালেদা গ্রেপ্তার হওয়ার পর ২০০৭ সালের ৯ ডিসেম্বর তার বিরুদ্ধে এ মামলা দায়ের করে দুদক। পরের বছর ৫ মে খালেদাসহ ১১ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দেওয়া হয়।

এতে অভিযোগ করা হয়, কানাডীয় কোম্পানি নাইকোর সঙ্গে তেল-গ্যাস অনুসন্ধান চুক্তির মাধ্যমে আসামিরা রাষ্ট্রের প্রায় ১৩ হাজার ৭৭৭ কোটি টাকার ক্ষতি করেছেন।

খালেদা জিয়া উচ্চ আদালতে গেলে ২০০৮ সালের ৯ জুলাই দুর্নীতির এই মামলার কার্যক্রম স্থগিত করে হাই কোর্ট, সেই সঙ্গে দেওয়া হয় রুল।

প্রায় সাত বছর পর চলতি বছর শুরুতে রুল নিষ্পত্তির মাধ্যমে মামলাটি সচল করার উদ্যোগ নেয় দুদক। খালেদার আবেদনে রুলের ওপর শুনানি শুরু হয় ১৯ এপ্রিল।

রাগীব রউফ শুনানিতে বলেন, খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে অর্থ আত্মসাতের সুনির্দিষ্ট কোনো অভিযোগ এ মামলায় নেই।

“তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী হিসেবে তিনি চুক্তিতে অনুমোদন দেওয়ায় তার বিরুদ্ধে ফৌজদারি মামলা হতে পারে না। একই ঘটনা থেকে উদ্ভূত বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বিরুদ্ধে হওয়া মামলা খারিজ হয়েছে। খালেদা জিয়ার মামলাও চলতে পারে না।”

অন্যদিকে দুদকের আইনজীবী খুরশীদ আলম খান বলেন, নাইকো মামলায় অপরাধ সংগঠনের ‘যথেষ্ট প্রাথমিক উপাদান’ রয়েছে। তাছাড়া শেখ হাসিনা ও খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে করা দুই মামলার মধ্যেও ‘তফাৎ আছে’।

প্রকাশিত : ১৭ জুন ২০১৫, ০১:০৬ পি. এম.

১৭/০৬/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: