কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৪ ডিসেম্বর ২০১৬, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ

আইএসের বর্ষপূর্তি

প্রকাশিত : ১৭ জুন ২০১৫

রক ব্যান্ডের মতো নাম পরিবর্তন করা জঙ্গী সংগঠন আইএসের খেলাফত ঘোষণার এক বছর পূর্তি হলো। ২০১৪ সালের পবিত্র রমজানের প্রথম দিনে সংগঠনটির প্রধান বাগদাদী সিরিয়া ও ইরাকের বিশাল অঞ্চল দখল করে ইসলামী খেলাফত ঘোষণা করেন।

বছরের পঞ্জিকা পাল্টে আবারও পবিত্র রমজানের আগমন। কিন্তু তাবৎ বিশ্বের উদ্বেগের মধ্যেও বহাল তবিয়তে আইএস। বর্তমানে সংগঠনটি ইরাক ও সিরিয়ার অঞ্চল ছাড়িয়ে ইয়েমেন ও লিবিয়ায় তাদের কর্মকা- বিস্তার করেছে। মধ্যপ্রাচ্যের দেশগুলোর গৃহযুদ্ধের সুযোগে বিস্তৃতি ঘটাচ্ছে নিজেদের উগ্রপন্থার।

আইএস জঙ্গী দমনে পশ্চিমা ও আরব রাষ্ট্রগুলোর বিমান হামলার পরও আইএস তাদের দখলকৃত অঞ্চল হতে পিছু হটেনি। বরং, তাদের দমনে দিনপ্রতি মার্কিন ব্যয় দাঁড়িয়েছে ৯০ লাখ মার্কিন ডলার। গত এক বছরে আইএস তাদের ঘৃণ্য কর্মকা-ের জন্য সব সময় সংবাদপত্রের শিরোনাম হয়ে থেকেছে। গলা কেটে হত্যা, জর্দানের বৈমানিককে পুড়িয়ে মারা কিংবা ইয়াজিদি মেয়েদের দাসী হিসেবে বিক্রির এমন মধ্যযুগীয় কায়দা কেবল মানবতাকেই প্রশ্নবিদ্ধ করেনি, বরং বিশ্বজুড়ে ইসলামের ভাবমূর্তি ক্ষুণœ করে। সিরিয়া ও ইরাকের বেশ কিছু পুরাকীর্তিও আইএস ধ্বংস করেছে। এতসব অপকীর্তির মাঝেও পশ্চিমা যুবক তরুনীদের আইএসে যোগদান ঠেকানো যাচ্ছে না। ফরেন ফাইটারের মিছিলের স্রোত এসে লাগছে সিরিয়া-তুরস্কের সীমান্তে। ফরেন ফাইটারের প্রকৃত সংখ্যা সম্পর্কে ধূম্রজাল থাকলেও ধারণা করা হয়, আনুমানিক ২৫ হাজার বিদেশী যোদ্ধা এখন সংগঠনটির সদস্য। বিশ্বের অন্যান্য অঞ্চলের সন্ত্রাসী সংগঠনও দলটির আনুগত্য স্বীকার করেছে। বোকো হারাম কিংবা আইকিউএস তাদের মধ্যে অন্যতম। আল-কায়েদার নতুন সংস্করণ আইএস বর্তমানে সন্ত্রাস ও জঙ্গীবাদের ধারণা নতুনভাবে সংজ্ঞায়িত করেছে, যা সমগ্র বিশ্ব শান্তির জন্য হুমকি।

চলমান ডেস্ক

প্রকাশিত : ১৭ জুন ২০১৫

১৭/০৬/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: