মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
১১ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

জয় ধরে রাখতে পারল না বাংলাদেশ

প্রকাশিত : ১৭ জুন ২০১৫
  • তাজিকিস্তানের বিরুদ্ধে দুর্ভাগ্যজনক ড্র, (১-১) ফিফা বিশ্বকাপ ও এশিয়া কাপ বাছাই

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ কথায় আছে, ‘যেই লাউ, সেই কদু।’ শেষ সময়ে গিয়ে গোল হজম করা এবং সেটপিস থেকে গোল খাওয়া নিয়ে কত কথা, কত অঙ্গীকার-প্রতিশ্রুতি, কত দৃঢ় মানসিকতা ... কিন্তু সবই বৃথা গেছে। শেষ মুহূর্তে এবং সেটপিস থেকে গোল হজম- দুটো বিষয়ই একসঙ্গে ঘটেছে বাংলাদেশের বিপক্ষে। বিশ্বকাপ ও এশিয়ান কাপ বাছাইপর্বে ‘বি’ গ্রুপে স্বাগতিক বাংলাদেশ মঙ্গলবারের ম্যাচে ১-১ গোলে ড্র করেছে প্রতিপক্ষ তাজিকিস্তানের সঙ্গে। প্রথমার্ধে কোন পক্ষই গোল করতে পারেনি। দ্বিতীয়ার্ধে বাংলাদেশ এক গোল করে এগিয়ে যায়। ৬৮ মিনিটে সফরকারী দলের এক খেলোয়াড় লাল কার্ড পেলে বাকি ২২ মিনিট তাদের খেলতে হয় দশজন নিয়ে। তারপরও ঠিকই খেলা শেষ হওয়ার দুই মিনিট আগে ঠিকই গোল শোধ দিয়ে ‘বেঙ্গল টাইগার্স’দের হৃদয়ে রক্তক্ষরণ ঘটায় ‘দ্য ক্রাউন’রা। দুর্ভাগ্যের ড্র করে বাংলাদেশ দল। ২ ম্যাচে এটা উভয়দলেরই প্রথম ড্র, প্রথম পয়েন্ট। পয়েন্ট টেবিলে ৩ পয়েন্ট নিয়ে জর্দান প্রথম, সমান পয়েন্ট নিয়ে (গোল গড়ে পিছিয়ে) কিরগিজস্তান দ্বিতীয়, ১ পয়েন্ট নিয়ে তাজিকিস্তান তৃতীয়, সমান পয়েন্ট নিয়ে বাংলাদেশ চতুর্থ এবং কোন ম্যাচ না খেলা অস্ট্রেলিয়া আছে পঞ্চম স্থানে। নিজেদের প্রথম ম্যাচে বাংলাদেশ ৩-১ গোলে হারে কিরগিজস্তান এবং তাজিকিস্তান একই ব্যবধানে হারে জর্দানের কাছে। মঙ্গলবার বিকেলে বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে তাজিকিস্তান বনাম বাংলাদেশ ম্যাচ দেখতে হাজির ছিলেন প্রায় হাজার দশেক ফুটবলপ্রেমী। উপস্থিত ছিলেন বাফুফে সভাপতি কাজী মোঃ সালাউদ্দিন, সাধারণ সম্পাদক আবু নাইম সোহাগ, জেলা ফুটবল লীগের চেয়ারম্যান মনজুর কাদের এবং নৌ পরিবহনমন্ত্রী শাজাহান খান।

এ পর্যন্ত বাংলাদেশ ও তাজিকিস্তান ফিফা স্বীকৃত ৭ ম্যাচে পরস্পরের মোকাবেলা করেছে। তাজিকিস্তান জিতেছে ৪ ম্যাচ, বাংলাদেশ ১। ড্র হয়েছে ২ ম্যাচ। বাংলাদেশ জাতীয় দল তাদের সর্বশেষ জয় পেয়েছিল গত ৬ ফেব্রুয়ারি, বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে। ‘বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ’ ফুটবলের সেমিতে তারা ১-০ গোলে হারিয়েছিল থাইল্যান্ড যুবদলকে। তাজিকদের হারিয়ে আবারও জয়ের ধারায় ফেরার সুযোগ নষ্ট করল তারা। আগামী ৩ সেপ্টেম্বর বাংলাদেশের পরের ম্যাচ অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে, পার্থে (এ্যাওয়ে ম্যাচ)।

এই ম্যাচটিকে কঠিন চ্যালেঞ্জ হিসেবেই নিয়েছিলেন বাংলাদেশের ডাচ্ কোচ লোডভিক ডি ক্রুইফ। বাংলাদেশের জন্য না হোক, ক্রুইফের জন্য ম্যাচটি ছিল ‘এসিড টেস্ট।’ কেননা, বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন (বাফুফে) ইতোমধ্যেই জানিয়ে দিয়েছে, তাজিকিস্তানের সঙ্গে জিততে না পারলে বিদায় করে দেয়া হবে ক্রুইফকে! এখন দেখার বিষয়, ক্রুইফকে কোচ হিসেবে রাখা হয় কি না। মঙ্গলবার তাজিকিস্তানের বিরুদ্ধে ম্যাচে ডাগআউটে থাকতে পারেননি ক্রুইফ। কেননা গত ১১ জুন কিরগিজস্তানের বিপক্ষে ম্যাচে রেফারির সঙ্গে তর্কে জড়িয়ে ডাগআউট থেকে বহিষ্কৃত হন তিনি। এরপরই তার বিরুদ্ধে রিপোর্ট যায় ফিফায়। সেখান থেকে জানানো হয় এমন আচরণের কারণে পরের ম্যাচে ডাগআউটে থাকতে পারবেন না তিনি। তবে গ্যালারিতে বসে ম্যাচ দেখতে পারবেন।

মঙ্গলবার তাজিকিস্তানের বিপক্ষে শুরু থেকেই চড়াও হয়ে খেলতে থাকে বাংলাদেশ। এ ম্যাচে বাংলাদেশ দলে একাধিক খেলোয়াড় পরিবর্তন করা হয়। ইয়ামিন মুন্নার স্থানে রায়হান হাসান, এনামুলের স্থানে জুয়েল রানা ও নাসির চৌধুরী জায়গায় খেলেন নাসিরুল ইসলাম নাসির।

৩ মিনিটে জামাল ভুঁইয়ার কাছ থেকে বল পেয়ে হেড নেন জুয়েল রানা। কিন্তু বল তাজিকদের পোস্ট ছুঁয়ে মাঠের বাইরে চলে যায়। ২৩ মিনিটে হেমন্ত ভিনসেন্টকে ফাউল করেন তাজিকিস্তানের রক্ষণভাগের খেলোয়াড়। ফলে ডি বক্সের ঠিক বাইরে বিপজ্জনক স্থানে দ. কোরিয়ান রেফারি লি মিন হু ফ্রি কিকের নির্দেশ দেন। জাহিদ হাসান এমিলির শট বারের ওপর দিয়ে চলে যায় মাঠের বাইরে। এরপর আশা জেগেছে বহুবার। ২৭ মিনিটে রায়হান হাসানের হেড খুঁজে পায়নি জালের ঠিকানা। আর ৩২ মিনিটে ডি বক্সের মধ্যে বল পেয়ে একে একে গোলের চেষ্টা করেন এমিলি, নাসিরুল ইসলাম ও জুয়েল রানা। কিন্তু গোল হয়নি। প্রথমার্ধে দারুণ খেলেও কাক্সিক্ষত গোলের দেখা পায়নি ক্রুইফের শিষ্যরা।

৩৬ মিনিটে তাজিক দলের ফাতুল্ল উড়ন্ত বলে মাথা ছোঁয়ালেই গোল পেতে পারতেন। কিন্তু ব্যর্থ হন তিনি। ৫০ মিনিটে ডানপ্রান্ত থেকে মামুনুলের ফ্রি কিক বক্সের মধ্যে পেয়ে হেড নেন মিডফিল্ডার হেমন্ত ভিনসেন্ট বিশ্বাস। বক্সের মধ্যে থাকা এমিলি আলত ছোঁয়ায় বল পাঠান তাজিকিস্তানের জালে (১-০)। ৬৭ মিনিটে মাঝমাঠে হেমন্তকে ফাউল করেন প্রতিপক্ষ ডিফেন্ডার আসরভ সিয়ভোস। রেফারি হলুদ কার্ড দেখান তাকে। প্রথমার্ধে আরেকটি হলুদ কার্ড থাকায় মাঠ ছাড়তে হয় আসরভকে। ফলে দশজনের দলে পরিণত হয় তাজিকিস্তান। ৬৯ মিনিটে জুয়েল রানা বাঁপ্রান্ত থেকে ক্রস দিলে বক্সে হেড নেন এমিলি। কিন্তু বল বারের ওপর দিয়ে বাইরে চলে যায়। এটা গোল হলে জয় এক রকম নিশ্চিত হয়ে যেত বাংলাদেশের। ৮৮ মিনিটে নিজেদের বক্সের কাছে প্রতিপক্ষ খেলোয়াড়কে ফাউল করেন হেমন্ত। ফ্রি কিক থেকে গোল করেন তাজাক মিডফিল্ডার ফাতুলোয়েভ ফাতুল্ল (১-১)। শেষ পর্যন্ত পয়েন্ট ভাগাভাগি করেই মাঠ ছাড়ে দুই দল।

প্রকাশিত : ১৭ জুন ২০১৫

১৭/০৬/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

খেলার খবর



ব্রেকিং নিউজ: