মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
১১ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

পটুয়াখালীর মুগডাল যাচ্ছে জাপানে

প্রকাশিত : ১৬ জুন ২০১৫

মোঃ মোখলেছুর রহমান, নিজস্ব সংবাদদাতা, পটুয়াখালী ॥ দেশের সব থেকে বেশি মুগডাল চাষ হয় পটুয়াখালীতে। ভাল দাম পাওয়ায় ও ফলন ভাল হওয়ায় দিন দিন এই জেলায় মুগডাল চাষ ও উৎপাদনের পরিমাণ বেড়েই চলছে। এরই ধারাবাহিকতায় এবারও জেলায় মুগডালের বাম্পার ফলন হয়েছে। তবে ভাল ফলন হওয়ায় ও বাজারে ব্যাপক সরবরাহের কারণে দাম কিছুটা কমে গেছে বলে দাবি কৃষকদের। এদিকে জেলায় উৎপাদিত মুগডাল বিদেশে রফতানির পরিমাণও দিন দিন বাড়ছে। সংশ্লিষ্টরা বলছেন, মুগডাল উৎপাদন ও রফতানির এই প্রক্রিয়া অব্যাহত থাকলে কৃষকরা যেমন লাভবান হবেন তেমনি জাতীয় অর্থনীতিতেও এর অবদান স্বীকৃত হবে।

সরকারী হিসেবে জেলা কৃষি বিভাগের তথ্য মতে, এবার পটুয়াখালী জেলায় প্রায় ৬৭ হাজার ৪শ’ ৩০ হেক্টর জমিতে মুগডালের আবাদ করা হয়েছে। কিন্তু কৃষি বিভাগ থেকে লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারিত ছিল ৫৫ হাজার ৪৮০ হেক্টরের। লক্ষ্যমাত্রার থেকেও ১২,০২২ হেক্টর জমিতে বেশি মুগডাল আবাদ হয়েছে।

পটুয়াখালী জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতরের প্রশিক্ষণ অফিসার মুহম্মদ জিয়াউল ইসলাম জানান, পটুয়াখালী অঞ্চলের আবহাওয়া ও জমি মুগডাল চাষের উপযোগী হওয়ায় কৃষক এই ডাল চাষ করে অধিক লাভবান হচ্ছেন। এর পাশাপাশি কৃষি বিভাগের পক্ষ থেকেও প্রয়োজনীয় সাহায্য সহযোগিতা প্রদান করা হচ্ছে। সাধারণত বারী ৪, ৫ ও ৬ এবং বীনা ৬ জাতের মুগডাল এ অঞ্চলের কৃষকরা আবাদ করে থাকেন। তবে এর মধ্যে বারী ৬ ও বীনা ৬ জাতের ডাল সব থেকে বেশি আবাদ করা হয়। এবার ফলন ভাল হওয়ায় হেক্টর প্রতি ৯৫০ কেজি ও কোন কোন জমিতে এর থেকেও বেশি ডাল উৎপাদন হয়েছে। তবে ভাল ফলন হওয়ার কারণে অনেক এলাকায় ডালের দাম কিছুটা কমে গেছে। গত বছর ২৮শ’ থেকে ৩ হাজার টাকা দরে প্রতিমণ মুগডাল বিক্রি হলেও এ বছর তা বিক্রি হচ্ছে ১৮শ’ থেকে ২ হাজার টাকা দরে। তবে কোন কোন এলাকায় ২২শ’ থেকে ২৫শ’ টাকা দরেও ডাল বিক্রি হচ্ছে বলে জানা গেছে।

কৃষি বিভাগের নিয়মিত তত্ত্বাবধানের মাধ্যমে পটুয়াখালীর উর্বর জমিকে কাজে লাগিয়ে মুগডাল চাষের মাধ্যমে এ অঞ্চলের কৃষকরা তাদের ভাগ্যের পরিবর্তনের পাশাপাশি ডাল রফতানি করে জাতীয় অর্থনীতিতেও ভূমিকা রাখতে পারবেন বলে মনে করেন কৃষি বিশেষজ্ঞরা।

শিল্পমন্ত্রীর রানার গ্রুপের কারখানা পরিদর্শন

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ দেশীয় উদ্যোক্তাদের আমদানি নির্ভশীলতা বাদ দিয়ে রপ্তানির মানষিকতা তৈরি করার আহ্বান জানিয়েছেন শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু।

সোমবার বিকালে ভালুকা উপজেলার পাড়াগাঁও গ্রামে রানার অটো মোবাইলস লিঃ এর কারখানার পেইন্টসপ উদ্বোধন ও কারখানা পরিদর্শনে এসে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেছেন।

রানার অটো মোবাইলস লিঃ-এর চেয়ারম্যান হাফিজুর রহমান খানের সভাপতিত্বে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন নওগাঁ ২ আসনের এমপি হুইপ আলহাজ শহিদুজ্জামান সরকার, অধ্যাপক ড. এম আমান উল্লাহ এমপি, রানার অটো মোবাইলস লিঃ-এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অব) এম সফিকুজ্জামান প্রমুখ।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন ময়মনসিংহ জেলা প্রশাসক মোস্তাকিম বিল্লাহ ফারুকী, পুলিশ সুপার মঈনুল হক, ভালুকা উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আলহাজ গোলাম মোস্তফা, উপজেলা পরিষদ সাবেক চেয়ারম্যান আলহাজ কাজিম উদ্দিন আহম্মেদ ধনু প্রমুখ।

প্রকাশিত : ১৬ জুন ২০১৫

১৬/০৬/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: