মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
১১ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

জোড়া সেঞ্চুরিতে কিউইদের জয়

প্রকাশিত : ১৬ জুন ২০১৫
  • তৃতীয় ওয়ানডেতে ৩ উইকেটে হার স্বাগতিক ইংলিশদের, সিরিজে ২-১এ এগিয়ে নিউজিল্যান্ড

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ কেন উইলিয়ামসন ও রস টেইলরের জোড়া সেঞ্চুরির ওপর ভর করে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে তৃতীয় ওয়ানডেতে ৩ উইকেটের নাটকীয় জয় পেয়েছে সফরকারী নিউজিল্যান্ড। এ জয়ে পাঁচ ম্যাচের সিরিজে ২-১এ এগিয়ে গেল বিশ্বকাপের ফাইনালিস্ট কিউইরা। সাউদাম্পটনের রোজ বোলে ৪৫.২ ওভারে অলআউট হলেও ৩০২ রানের চ্যালেঞ্জিং স্কোর গড়ে স্বাগতিক ইংলিশরা। জবাবে ৭ উইকেট হারিয়ে ১ ওভার বাকি থাকতে লক্ষ্যে পৌঁছে যায় ব্রেন্ডন ম্যাককুলামের দল। ১১৮ রানের অনবদ্য ইনিংস উপহার দিয়ে ম্যাচসেরা প্রতিভাবান উইলিয়ামসন। নটিংহামে পাঁচ ম্যাচ সিরিজের চতুর্থ ওয়ানডে বুধবার।

টস জিতে ব্যাটিং নেয়া ইংল্যান্ড শুরুতেই উইকেট হারিয়ে চাপে পড়ে। দলীয় ৩৪ রানের মধ্যে সাজঘরে ফেরেন দুই ওপেনার এ্যালেক্স হেলেস (২৩) ও জেসন রয় (৯)। এরপর টপঅর্ডারে চমৎকার ব্যাটিং করেন জো রুট, ইয়ন মরগান ও বেন স্টোকস। তিনজনেই তুলে নেন হাফ সেঞ্চুরি। অধিনায়ক মরগান করেন সর্বোচ্চ ৭১ রান। স্টোকস ৬৮ ও রুট ৫৪ রানে আউট হন। যার ফলে নিজেদের ওয়ানডে ইতিহাসে প্রথমবারের মতো টানা তিন ওয়ানডেতে ৩শ’ বা তার বেশি রানের দলীয় স্কোর গড়তে সক্ষম হয় ইংল্যান্ড। আগের দুই ম্যাচে যথাক্রমে ৪০৮/৯ ও ৩৬৫/৯ রান করেছিল তারা। কিউইদের হয়ে তিন পেসার টিম সাউদি ৩, অভিষিক্তি বেন হুইলার ৩ ও ম্যাট হেনরি নেন ২ উইকেট।

জবাবে নিউজিল্যান্ডের শুরুটাও ভাল ছিল না। ৩৬ রানের মধ্যে আউট হয়ে যান অধিনায়ক ব্রেন্ডন ম্যাককুলাম (১১) ও মার্টিন গাপটিল (২)। এরপরই ধুরন্ধর ব্যাটিংয়ে দৃশ্যপট বদলে দেন উইলিয়ামসন-টেইলর। ২০৬ রান যোগ করেন তারাÑ নিউজিল্যান্ডের হয়ে তৃতীয় উইকেট জুটিতে যা সর্বোচ্চ রানের নতুন রেকর্ড। নিজেদের ওয়ানডে ইতিহাসে কিউদের মাত্র চতুর্থ ২শ’ বা তার বেশি রানের জুটি এটি। সিরিজে দারুণভাবে ফর্মে ফেরা টেইলর ১২৩ বলে ১২ চারের সাহায্যে ১১০ রান করে উইলির বলে বোল্ড হন। ক্যারিয়ারের ১৪তম সেঞ্চুরি তুলে নেয়া সাবেক অধিনায়ক আগের ম্যাচে খেলেছিলেন অপরাজিত ১১৯ রানের ইনিংস। নিউজিল্যান্ডের হয়ে টেইলরের চেয়ে বেশি সেঞ্চুরি আছে কেবল সাবেক তারকা নাথান এ্যাস্টলের (১৬)।

তবে তরুণ উইলিয়ামসন ছিলেন আরও আক্রমণাত্মক। ১১৩ বলে ১২ চার ও ১ ছক্কায় ১১৮ রান করে ম্যাচসেরা হন তিনি। ৭৭তম ম্যাচে এটি তার সপ্তম সেঞ্চুরি। দলীয় ২৮৪-৩০০ রানের মধ্যে ৩ উইকেট হারিয়ে অবশ্য চাপে পড়েছিল সফরকারীরা। মিচেল স্যান্টনারের ১৬ বলে ২১ ও লুক রনকির ১৪ বলে ১৩ রান করে আউট হন। ৪৯তম ওভারের শেষ বলে চার মেরে জয় এনে দেন ৫ রানে অপরাজিত থাকা টিম সাউদি।

স্কোর কার্ড

ইংল্যান্ড ইনিংস ৩০২/১০ (৪৫.২ ওভার; মরগান ৭১, স্টোকস ৬৮, রুট ৫৪, বিলিংস ৩৪, হেলেস ২৩, রয় ৯, উইলি ৮; সাউদি ৩/৪৪, হুইলার ৩/৬৩, হেনরি ২/৬৪, উইলিয়ামসন ১/১২)

নিউজিল্যান্ড ইনিংস ৩০৬/৭ (৪৯ ওভার; উইলিয়ামসন ১১৮, টেইলর ১১০, স্যান্টনার ২১, রনকি ১৩, ম্যাককুলাম ১১, সাউদি ৫*, হুইলার ৩*; উইলি ৩/৬৯, স্টোকস ২/৩৫, উড ১/৪৮)

ফল ॥ নিউজিল্যান্ড ৩ উইকেটে জয়ী

ম্যাচসেরা ॥ উইলিয়ামসন (নিউজিল্যান্ড)

সিরিজ ॥ পাঁচ ওয়ানডের সিরিজে নিউজিল্যান্ড ২-১এ এগিয়ে।

প্রকাশিত : ১৬ জুন ২০১৫

১৬/০৬/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

খেলার খবর



ব্রেকিং নিউজ: