আংশিক মেঘলা, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৮ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, বৃহস্পতিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

রাজধানীতে সড়ক দুর্ঘটনায় পথচারী নিহত

প্রকাশিত : ১৬ জুন ২০১৫

স্টাফ রিপোর্টার ॥ রাজধানীর সবুজবাগ ও তেজগাঁওয়ে তরুণ-তরুণী আত্মহত্যা করেছে। পুরনো ঢাকার ওয়ারীতে বাসের ধাক্কায় এক পথচারী নিহত হয়েছে। হাসপাতালের জরুরী বিভাগের মর্গ থেকে লাশ বের করে নিয়ে যাওয়ার সময় এক বহিরাগত এ্যাম্বুলেন্সের চালককে আটক করেছে পুলিশ। এদিকে বনানী ফ্লাইওভারে ছিনতাইকারীরা তিন ভাইকে কুপিয়ে একটি মোটরসাইকেল ছিনিয়ে নিয়েছে। এছাড়া আশুলিয়া এলাকার ত্রাস ও ভূমিদস্যু সাত্তারসহ চারজনকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব। এ সময় তাদের কাছ থেকে ৫টি বিদেশী পিস্তল, ১টি শটগান, ১টি ডিবিবিএল রাইফেল ও গোলবারুদ্ধ উদ্ধার করেছে। সোমবার পুলিশ ও মেডিক্যাল সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

স্থানীয় সূত্র জানায়, রবিবার গভীররাতে সবুজবাগে আঁখি ম-ল (২০) নামে এক গৃহবধূ আত্মহত্যা করেছে। ওদিন মধ্যরাতে পুলিশ পূর্ব রাজারবাগ এলাকার একটি দোতলা বাসা থেকে তার ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করে। পরে তার লাশের সুরতহাল প্রতিবেদন তৈরি করে ময়নাতদন্তের জন্য সোমবার সকালে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ মর্গে পাঠায়। নিহতের গ্রামের বাড়ি ঝিনাইদহ জেলার শৈলকূপা থানার কালিগঞ্জ গ্রামে। সবুজ থানার ওসি তদন্ত মুস্তাজিরুল জানান, খবর পেয়ে পূর্ব রাজারবাগের ওই ভবনের দ্বিতীয় তলার একটি কক্ষের দরজা ভেঙে আঁখি নামে ওই গৃহবধূর ফ্যানের সঙ্গে গলায় পেঁচানো ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করা হয়। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, ওই গৃহবধূ আত্মহত্যা করেছে। বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। ময়নাতদন্তের রিপোর্ট হাতে পেলে আসল ঘটনা জানা যাবে। এদিকে একইদিন তেজগাঁওয়ের আওলাদ মার্কেট সংলগ্ন বিজয় সরণির প্রিজন ছাত্রাবাসে ইমরান আলম (১৯) নামে এক মেডিক্যাল ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থী গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করেছেন। নিজ কক্ষ ফ্যানের সঙ্গে গলায় গামছা পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করেছে। নিহতের বাবার নাম আবুর খায়ের মিয়া। গ্রামের বাড়ি ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার নবীনগর থানার শিবপুর গ্রামে। ছাত্রবাসের বাসিন্দারা জানান, নিজ কক্ষে ইমরান গামছা দিয়ে ফ্যানের সঙ্গে আত্মহত্যা করেন। বিষয়টি টের পাওয়ার পর তাকে উদ্ধার করে প্রথমে স্থানীয় আল রাজি হাসপাতালে। পরে সোহরাওয়ার্দী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হয়। সেখানে অবস্থার অবনতি হলে গভীররাতে ইমরানকে ঢামেক হাসপাতালের জরুরী বিভাগে আনা হয়। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। নিহতের সহপাঠী সাব্বির জানান, গত ২০১৪ সালে স্থানীয় হামদর্দ কলেজ থেকে উচ্চ মাধ্যমিক পাস করেছেন ইমরান। মেডিক্যালে ভর্তির জন্যে ফার্মগেটে কোচিং করছিলেন তিনি। তবে আত্মহত্যার কারণ জানাতে পারেনি তিনি।

সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত পথচারী ॥ সোমবার সকালে পুরনো ঢাকার ওয়ারীর জয়কালী মন্দিরের সামনে রাস্তা পার হওয়ার সময় যাত্রীবাহী বাসের ধাক্কায় অজ্ঞাত (৪৫) এক ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে। ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল পুলিশ ফাঁড়ির পরিদর্শক মোজাম্মেল হক জানান, সোমবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে জয়কালী মন্দিরের সামনে রাস্তা পার হচ্ছিলেন অজ্ঞাত ওই পথচারী। এ সময় যাত্রীবাহী একটি বাস তাকে ধাক্কা দেয়। পরে মোরসালিন চৌধুরী নামে এক ব্যাংক কর্মকর্তা তাকে গুরুতর আহত অবস্থায় ঢামেক হাসপাতালের জরুরী বিভাগে আনেন।

এ্যাম্বুলেন্স চালক গ্রেফতার ॥ সোমবার সকালে ঢামেক হাসপাতালের জরুরী বিভাগের মর্গ থেকে লাশ বের করে নিয়ে যাওয়ার সময় মোঃ হাবিবুর রহমান হাবিব (২৫) নামে এক বহিরাগত এ্যাম্বুলেন্সের চালককে আটক করেছে পুলিশ। ঢামেক হাসপাতাল পুলিশ ফাঁড়ির সহকারী উপ-পরিদর্শক সেন্টু চন্দ্র দাস জানান, শনিবার জামালপুর থেকে সড়ক দুর্ঘটনায় আহত হয়ে ইব্রাহিম (২৭) নামে এক যুবক ঢামেক হাসপাতালে ভর্তি হন । চিকিৎসাধীন অবস্থায় সোমবার ভোর ৫টার দিকে তার মৃত্য হয়। তিনি জানান, লাশটি মেডিক্যাল কর্তৃপক্ষ জরুরী বিভাগের মর্গে রেখেছিল। আটক হবিবুর রহমান আট হাজার টাকার বিনিময়ে ময়নাতদন্ত ছাড়াই ইব্রাহিমের লাশ তার পরিবারের কাছে হস্তান্তর করবে বলে ঠিক করেন।

ছিনতাই ॥ সোমবার ভোরেরদিকে বনানী ফ্লাইওভারে ছিনতাইকারীরা মোঃ ওয়াহিদ (৩৯), মোঃ শাহ আলম (৩৫), মোঃ বাবর (৩২) নামে তিন ভাইকে কুপিয়ে একটি মোটরসাইকেল ছিনিয়ে নিয়ে পালিয়ে যায়। পরে তাদের ঢামেক হাসপাতালে নেয়া হয়। পরে এক ভাইকে পঙ্গু হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। আহত সুলতান শেখ জানান, তাদের বাসা তুরাগের বাউনিয়াবাদে। নীলক্ষেতে তিন ভাইয়ে বইয়ের ব্যবসা করেন। লালবাগে তাদের ছাপাখানা রয়েছে। রবিবার তিন ভাই মিলে বই ছাপানোর কাজে ছাপাখানায় আসেন। সারারাত কাজ শেষে তারা ভোরেরদিকে বাসায় ফিরছিলেন। মোটরসাইকেল নিয়ে বনানী ফ্লাইওভারে এলে প্রাইভেটকারে আসা ৫-৬ জন ছিনতাইকারী তাদের গতিরোধ করে।

চারজনকে অস্ত্রসহ গ্রেফতার ॥ সোমবার বিকেলে আশুলিয়া-সাভার এলাকার ত্রাস ও ভূমিদস্যু মোঃ আব্দুল সাত্তার (৪৮)সহ চারজনকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-১। গ্রেফতারকৃতরা হচ্ছে আব্দুল হামিদ (৩২), মোঃ একলাছ (৪২) ও আবু তাহের ওরফে শাহাজউদ্দিন (৩২)। এ সময় তাদের কাছ থেকে ৫টি বিদেশী পিস্তল, ১টি শটগান, ১টি ডিবিবিএল রাইফেল, গোলাবারুদ্ধ ও ধারালো অস্ত্র উদ্ধার করা হয়। র‌্যাব জানায়, সোমবার বিকেলে রাজধানীর উত্তরার র‌্যাব-১ একটি দল ঢাকা জেলার সাভার থানা এলাকায় একটি বিশেষ অভিযান পরিচালনা করে। দলটি গোপন সংবাদের ভিত্তিতে সাভার থানাধীন বিরুলিয়া ইউনিয়ন ছোট কালিয়াকৈর গ্রামে অভিযান চালিয়ে স্থানীয় চিহ্নিত সন্ত্রাসী ও ভূমিদস্যু সাত্তারসহ তার তিন সহযোগীকে আটক করে। এ সময় তাদের কাছ থেকে গুলিভর্তি ওই অবৈধ অস্ত্রগুলো উদ্ধার করে। এ ছাড়া পিস্তলের ৬টি ম্যাগজিন, ২০ রাউন্ড শটগানের কার্তুজ (লেড বল), ৫০ রাউন্ড পিস্তলের তাজা গুলি, এক রাউন্ড থ্রী নট থ্রী রাইফেলের এ্যামোঃ ও ৫টি রামদা জব্দ করা হয়। গ্রেফতারকৃতরা জিজ্ঞাসাবাদ র‌্যাবকে জানায়, সাত্তার ও তার বাহিনী ঢাকা ও আশুলিয়ার আশপাশের বিভিন্ন এলাকায় সংঘবদ্ধ অস্ত্রবাজি করে জমি দখল এবং অস্ত্র ভাড়া দেয়ার কাজে নিয়োজিত ছিল। তারা ওই এলাকায় ছিনতাই, চাঁদাবাজি,ঝুট ব্যবসা নিয়ন্ত্রণ করেন। বাস-টেম্পোস্ট্যান্ড নিয়ন্ত্রণসহ নানাবিধ অপরাধের সঙ্গে জড়িত। র‌্যাব জানায়, আশুলিয়া এলাকার ত্রাস আসামি “সাত্তার’ সবজি ব্যবসার আড়ালে দীর্ঘদিন ধরে বিভিন্ন ডাকাত ও অপরাধী চক্রের সঙ্গে মিলিত হয়ে নানাবিধ অপরাধ এবং অরাজকতার সাথে লিপ্ত ছিল।

প্রকাশিত : ১৬ জুন ২০১৫

১৬/০৬/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

শেষের পাতা



ব্রেকিং নিউজ: