মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
১১ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

সব মুক্তিযোদ্ধার ভাতা ১০ হাজার টাকা করার দাবি

প্রকাশিত : ১৬ জুন ২০১৫

বিডিনিউজ ॥ শুধু পঁয়ষট্টি বছরের বেশি বয়সী মুক্তিযোদ্ধাদের ভাতা বাড়ানোর প্রস্তাবের সমালোচনা করে মুক্তিযোদ্ধা সংসদের চেয়ারম্যান কবির আহমেদ খান বলেছেন, মুক্তিযোদ্ধাদের ঐক্যে ফাটল ধরাতে এটা করা হয়েছে।

ওই সিদ্ধান্ত থেকে সরে এসে সব মুক্তিযোদ্ধার ভাতা বাড়ানোর দাবি তুলেছেন তিনি।

সোমবার ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির সাগর-রুনি মিলনায়তনে ‘মুক্তিযোদ্ধাদের সম্মানী ভাতা নির্ধারণে বৈষম্য দূরীকরণ ও সম্মানীভাতা বৃদ্ধি’ নিয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন।

মুক্তিযোদ্ধা সংসদের চেয়ারম্যান বলেন, “একটি স্বাধীনতাবিরোধী চক্র মুক্তিযোদ্ধাদের ঐক্যে ফাটল ধরানোর ষড়যন্ত্র করছে। তাই বয়সের ভিত্তিতে মুক্তিযোদ্ধাদের সরকারী ভাতা প্রদানের উদ্যোগ নিয়েছে মন্ত্রণালয়।

বর্তমানে সব বয়সী মুক্তিযোদ্ধার মাসে পাঁচ হাজার টাকা করে ভাতা দেয়া হলেও ২০১৫-১৬ অর্থবছরের বাজেটে ৬৫ বছর ও তার বেশি বয়সী মুক্তিযোদ্ধাদের ভাতা বাড়িয়ে দ্বিগুণ করার প্রস্তাব করেছেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত।

এ নিয়ে অসন্তোষ জানিয়ে কবির খান বলেন, ‘আমরা যখন যুদ্ধে যাই তখন কিন্তু বয়স ছিল না। আজকে কেন স্বাধীন দেশে বয়সের বৈষম্য করা হচ্ছে। ‘বাজেটে সরকারী কর্তাদের বেতন দ্বিগুণ করা হলেও স্বাধীনতার এত বছর পরও মুক্তিযোদ্ধাদের ভাতার পরিবর্তন হয়নি।‘

সব মুক্তিযোদ্ধার সম্মানী ভাতা ১০ হাজার টাকা করার পাশাপাশি চিকিৎসা ভাতা দুই হাজার এবং দুই ঈদ ও অন্যান্য ধর্মীয় উৎসবে ২৫ হাজার টাকা করে উৎসব ভাতা চালুর জন্য প্রধানমন্ত্রীর কাছে আবেদন জানান তিনি।

মুক্তিযোদ্ধাদের দুই রকমের ভাতার প্রস্তাব আসায় মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব মোঃ আবদুল হান্নানের অপসারণ দাবি করা হয় সংবাদ সম্মেলন থেকে।

অন্যদের মধ্যে মুক্তিযোদ্ধা সংসদের ভাইস চেয়ারম্যান ব্রিগেডিয়ার (অব) মহিউদ্দিন দুদু, সাবেক মহাসচিব অবসরপ্রাপ্ত ক্যাপ্টেন মো. আবুল কাসেম, যুগ্মমহাসচিব কালী নারায়ণ লোধ, রুহুল আমিন, কেন্দ্রীয় নেতা আমির হোসেন মোল্লা প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

প্রকাশিত : ১৬ জুন ২০১৫

১৬/০৬/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

শেষের পাতা



ব্রেকিং নিউজ: