রৌদ্রজ্জ্বল, তাপমাত্রা ২৩.৯ °C
 
৮ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, বৃহস্পতিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

আদালতকে ধোঁকা ॥ দক্ষিণ আফ্রিকা ছেড়েছেন বশির

প্রকাশিত : ১৫ জুন ২০১৫, ০৮:০৪ পি. এম.

অনলাইন ডেস্ক ॥ যুদ্ধাপরাধের অভিযোগে আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালতের (আইসিসি) ‘ওয়ান্টেড’ তালিকায় থাকা সুদানের প্রেসিডেন্ট ওমর আল বশির দক্ষিণ আফ্রিকা ছেড়েছেন।

বশিরকে গ্রেপ্তারের জন্য আন্তর্জাতিক গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করা নিয়ে আদালতের সিদ্ধান্ত দেওয়ার আগেই তিনি দক্ষিণ আফ্রিকা ছাড়লেন।

দারফুরে যুদ্ধাপরাধের অভিযোগে বশিরকে আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালতে হস্তান্তর করার ব্যাপারে সিদ্ধান্ত দেয়ার কথা ছিল প্রিটোরিয়া হাই কোর্টের।

বশিরকে গ্রেপ্তারের বিষয়টিতে কোনো সিদ্ধান্ত না হওয়া পর্যন্ত তার দক্ষিণ আফ্রিকা ত্যাগের ওপর রোববার বিধিনিষেধ আরোপ করেছিল আদালত।

বশির আফ্রিকান ইউনিয়নের এক সম্মেলনে যোগ দেওয়ার জন্য দক্ষিণ আফ্রিকায় ছিলেন। তিনি সুদানে ফেরার পর একটি সংবাদ সম্মেলন হওয়ার কথা রয়েছে।

দারফুরে সংঘাতে মানবতার বিরুদ্ধে অপরাধ এবং গণহত্যার জন্য যুদ্ধাপরাধের অভিযোগ রয়েছে বশিরের বিরুদ্ধে। জাতিসংঘের হিসাবমতে, ২০০৩ সালে সুদানে লড়াই শুরুর পর থেকে প্রায় ৩ লাখেরও বেশি মানুষ নিহত হয়েছে এবং বাস্তুচ্যুত হয়েছে ২০ লাখেরও বেশি মানুষ।

প্রিটোরিয়া হাই কোর্টের শুনানিতে দক্ষিণ আফ্রিকা সরকারের প্রতিনিধিত্বকারী এক আইনজীবী বলেছেন, দক্ষিণ আফ্রিকা ছেড়ে যাওয়া বিমানে যাত্রী তালিকায় বশিরের নাম ছিল না।

কিন্তু বশিরের বিমান শিগগিরেই খার্তুমে অবতরণ করবে বলে জানিয়েছেন সুদানের তথ্যমন্ত্রী।

প্রিটোরিয়া থেকে বিবিসি’র সংবাদদাতা বলছেন, আদালতের নিষেধাজ্ঞা সত্ত্বেও বশিরকে দেশ ত্যাগ করতে দেয়ার জন্য দক্ষিণ আফ্রিকা নিষেধাজ্ঞার মুখে পড়ার সম্ভাবনা নেই।

কারণ, অতীতে আফ্রিকার অনেক দেশই আইসিসি’র সঙ্গে সহযোগিতা না করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। তারা আইসিসি’কে বর্ণবাদী প্রতিষ্ঠান হিসাবে দেখে এবং এ আদালত আফ্রিকান নেতাদের বিরুদ্ধে কাজ করে বলেই মনে করে।

আর একারণে বশির আফ্রিকা ইউনিয়নের ছত্রছায়াতেই দক্ষিণ আফ্রিকা ছেড়েছেন বলে মনে করছেন সংবাদদাতারা।

আইসিসি’র সদস্য দেশ হিসাবে দক্ষিণ আফ্রিকা এ আদালতের অভিযুক্ত যে কাউকেই গ্রেপ্তার করতে বাধ্য।

দক্ষিণ আফ্রিকায় সম্মেলনের আগে আইসিসি এক বিবৃতিতে দেশটিকে বশিরকে আটক করার কোনো সুযোগ হাতছাড়া না করার আহ্বান জানিয়েছিল।

প্রকাশিত : ১৫ জুন ২০১৫, ০৮:০৪ পি. এম.

১৫/০৬/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: