মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
১০ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শনিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ

সামাজিক সুরক্ষা খাতে ব্যয় হচ্ছে বাজেটের ১২ ভাগ ॥ পরিকল্পনামন্ত্রী

প্রকাশিত : ১৫ জুন ২০১৫

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ সরকার জিডিপির ২ দশমিক ২ ভাগ এবং বাজেটের ১২ ভাগ সামাজিক সুরক্ষায় ব্যয় করছে বলে জানিয়েছেন পরিকল্পনামন্ত্রী আহম মুস্তফা কামাল। রবিবার রাজধানীর ব্র্যাক সেন্টারে ‘অতি দারিদ্র্য দূরীকরণ : উন্নয়ন কৌশল ও মডেল’ শীর্ষক এক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে পরিকল্পনামন্ত্রী এ কথা বলেন। তিনি বলেন, এ বছর সামাজিক সুরক্ষা খাতের আওতায় বিভিন্ন মন্ত্রণালয় বিক্ষিপ্তভাবে ১৪০টি প্রকল্প বাস্তবায়ন করছে। ফলে একই ধরনের প্রকল্প বিভিন্ন মন্ত্রণালয় হাতে নিচ্ছে।

অপরদিকে, একজন সুবিধাভোগী একই ধরনের বিভিন্ন প্রকল্পে অন্তর্ভুক্ত হচ্ছেন। এ সমস্যা দূর করতে সরকার সামাজিক সুরক্ষা খাতকে ঢেলে সাজানো হচ্ছে। এখন থেকে একজন ব্যক্তির জীবনচক্র বিশ্লেষণ করে সামাজিক সুরক্ষা কৌশল হাতে নেয়া হবে। সামাজিক সুরক্ষা কার্যক্রম ঠিকমতো চলছে কিনা তা পর্যবেক্ষণ করতে জাতীয় পর্যায়ে মন্ত্রিপরিষদ সচিবের নেতৃত্বে কেন্দ্রীয় পরিবীক্ষণ ইউনিট থাকবে। সেই সঙ্গে এনজিও এবং উন্নয়ন সহযোগী সংগঠনগুলোও থাকবে।

সভায় পরিকল্পনা কমিশনের সাধারণ অর্থনীতি বিভাগের মনিরুল ইসলাম সামাজিক সুরক্ষা কৌশলের উপর কি নোট পেপার উপস্থাপন করেন। এছাড়া ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয়ের ইনস্টিটিউট অব গবর্নেন্স স্টাডিসের আয়োজনে আজকের সভায় সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয়ের সচিব তরিক উল ইসলাম, ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক মেজবাহ উদ্দিন হাসেমিসহ বিভিন্ন এনজিও ও এ সংশ্লিষ্ট দায়িত্বশীলরা উপস্থিত ছিলেন। এতে সভাপতিত্ব করেন ব্র্যাক চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা ড. আহমেদ মোস্তাক রেজা চৌধুরী। অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন ব্র্যাকের স্ট্রাটেজি বিভাগের সিনিয়র ডাইরেক্টর আসিফ সালেহ।

পরিকল্পনামন্ত্রী দরিদ্রতাকে একটি জাতির জন্য অভিশাপ উল্লেখ করে বলেন, এই অভিশাপ থেকে মুক্তি পেতে হলে বিভিন্ন কৌশলের সঙ্গে ‘ধর্মীয় মূল্যবোধ’ ও ‘সামাজিক বন্ধন’ এ দুটো মূল্যবান সম্পদকেও কাজে লাগাতে হবে। আপনারা দেখে থাকবেন আমাদের এখানে পাশের বাড়ির প্রতিবেশীকে অভুক্ত রেখে অপর প্রতিবেশী খায় না। অভুক্ত প্রতিবেশীকে খাবার দিয়ে সেও খায়। আমাদের সামাজিক বন্ধন দৃঢ় বলে ‘বৃদ্ধাশ্রম সংস্কৃতি’ এখানে গড়ে ওঠেনি’।

প্রকাশিত : ১৫ জুন ২০১৫

১৫/০৬/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: