কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৪ ডিসেম্বর ২০১৬, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

রোনাল্ডোর হ্যাটট্রিকে পর্তুগালের জয়

প্রকাশিত : ১৫ জুন ২০১৫

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ ক্লাবের হয়ে গোলের পর গোল করা ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো এবার দেশের জার্সিতেও জ্বলে উঠেছেন। শনিবার রাতে ইউরো বাছাই ফুটবলে আর্মেনিয়ার বিরুদ্ধে হ্যাটট্রিক করেন বর্তমান ফিফা সেরা ফুটবলার। ‘আই’ গ্রুপের ম্যাচে রোনাল্ডোর হ্যাটট্রিকে ভর করে পর্তুগাল ৩-২ গোলে পরাজিত করে আর্মেনিয়াকে। একই রাতে কোপা আমেরিকায় মাঠে নেমেছিলেন রোনাল্ডোর চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী লিওনেল মেসি। তিনিও ম্যাচে এক গোল করেন, কিন্তু নিজ দেশ আর্জেন্টিনাকে জয় উপহার দিতে পারেননি।

প্রীতি ম্যাচে যুক্তরাষ্ট্রের কাছে হারের জ্বালা ভালমতোই জুড়িয়েছে জার্মানি। বর্তমান বিশ্বচ্যাম্পিয়নরা ইউরো বাছাইপর্বে ‘ডি’ গ্রুপের ম্যাচে জিব্রাল্টারকে ৭-০ গোলে বিধ্বস্ত করে। জার্মানদের হয়ে হ্যাটট্রিক করেন আন্দ্রে শুরলে। জোড়া গোল করেন ম্যাক্স ক্রুজ। বাকি গোল দুটি করেন ইখাই গুনডোগান ও কারিম বেলারবি। এছাড়া অন্য ম্যাচে পোল্যান্ড ৪-০ গোলে জর্জিয়াকে, হাঙ্গেরি ১-০ গোলে ফিনল্যান্ডকে ও ডেনমার্ক ২-০ গোলে পরাজিত করে সার্বিয়াকে। অবিশ্বাস্য ঢংয়ে হ্যাটট্রিক করেন পোল্যান্ডের রবার্ট লেভানডোস্কি। ম্যাচের ৮৯ মিনিটে প্রথম গোল করার পর ৯০ মিনিটেই বাকি দুটি গোল করেন বেয়ার্ন মিউনিখ তারকা। গত নবেম্বরে আর্মেনিয়ার বিরুদ্ধে প্রথম লেগেও ঘরের মাঠে রোনাল্ডোর এক গোলে জিতেছিল পর্তুগাল। পরশু রাতে আর্মেনিয়ার মাঠে ১৪ মিনিটে গোল খেয়ে বসেছিল পর্তুগাল। অসাধারণ ফ্রিকিক থেকে গোল করেন স্বাগতিক মিডফিল্ডার মার্কোস পিজেলি। সমতায় ফিরতে বেশি সময় নেয়নি পর্তুগীজরা। ২৮ মিনিটে বল পায়ে ডি বক্সে ঢুকে পড়া অতিথি মিডফিল্ডার জোয়াও মাউটিনহোকে স্বাগতিক মিডফিল্ডার হেনরিখ মিখিটারিয়ান ফাউল করলে পেনাল্টি পায় পর্তুগাল। পরের মিনিটে স্পট কিক থেকে গোল করে পর্তুগালকে ম্যাচে ফেরান অধিনায়ক রোনাল্ডো। বিরতির পর তিন মিনিটের ব্যবধানে আরও দুই গোল করে হ্যাটট্রিক পূরণের পাশাপাশি দলের জয় নিশ্চিত করে সি আর সেভেন। ৫৫ মিনিটে ডি বক্সের ভেতর থেকে ডান পায়ের শটে লক্ষ্যভেদ করেন ফিফা সেরা তারকা। ৫৮ মিনিটে ডি বক্সের বাইরে দ্বিতীয় ও তিন নম্বর গোল করেন রিয়াল মাদ্রিদ তারকা। পর্তুগালের সর্বোচ্চ গোলদাতা রোনাল্ডোর এটি জাতীয় দলের হয়ে ৫৫ গোল।

ইউরোপের ব্রাজিল খ্যাত পর্তুগীজরা দুই গোলের ব্যবধানে এগিয়ে থাকলেও ৬২ মিনিটে দলটির মিডফিল্ডার থিয়াগো দ্বিতীয় হলুদ কার্ড দেখে মাঠ ছাড়লে নাটকীয়তার সম্ভাবনা জাগে। প্রতিপক্ষের এক জন কম থাকার সুযোগ কাজে লাগাতে আক্রমণের ধার বাড়ায় আর্মেনিয়া। দ্রুত সাফল্যও পায় তারা। ৭১ মিনিটে কর্নার থেকে বল পেয়ে খুব কাছ থেকে ব্যবধান কমান ডিফেন্ডার রায়ার মিকোয়ান। কিন্তু বাকি সময় আর গোল পায়নি স্বাগতিকরা। ফলে দারুণ জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে পর্তুগাল। এই জয়ে ‘আই’ গ্রুপের শীর্ষে থাকা পর্তুগালের পয়েন্ট ৫ ম্যাচে ১২। তলানিতে থাকা আর্মেনিয়ার পয়েন্ট ১। ম্যাচ শেষে রোনাল্ডো তার টুইটার এ্যাকাউন্টে নিজের অনুভূতি ব্যক্ত করেন। বলেন, ‘অসাধারণ মুহূর্ত। ফ্রান্সে আগামী বছরের টুর্নামেন্টে অংশগ্রহণের জন্য আমরা কোয়ালিফাই পর্বের শেষ পর্যায়ে চলে এসেছি। জিব্রাল্টারকে নিয়ে ছেলেখেলা করেছে বিশ্বচ্যাম্পিয়ন জার্মানি। প্রতিপক্ষের মাঠে আন্দ্রে শুরলের নৈপুণ্যে ২৮ মিনিটে প্রথম গোল পায় জোয়াকিম লোর দল। প্রথমার্ধে এক গোল পেলেও দ্বিতীয়ার্ধে মূলত বিধ্বংসী হয়ে ওঠে ইউরোপের পাওয়ার হাউসরা। দশ মিনিটের মধ্যে স্কোরলাইন ৪-০ করে জয় নিশ্চিত করে ফেলে জার্মানি। ৪৭ মিনিটে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন ম্যাক্স ক্রুজ। মেসুত ওজিলের কর্নার থেকে গোল করেন তিনি। চার মিনিট পর দলের তৃতীয় গোল করেন ইখাই গুনডোগান। ক্রুজের বাড়ানো বল নিয়ন্ত্রণে নিয়ে গোল করেন ২৪ বছর বয়সী এই মিডফিল্ডার। ৫৭ মিনিটে ওজিলের পাস থেকে গোল করেন মিডফিল্ডার কারিম বেলারবি। ৬৫ মিনিটে ব্যবধান আরও বাড়ান শুরলে। ছয় মিনিট পর হ্যাটট্রিক পূরণ করেন শুরলে। জার্মানি এগিয়ে যায় ছয় গোলে। ৮১ মিনিটে শুরলের হেড করে বাড়ানো বল পেয়ে দলের সপ্তম গোল করেন ক্রুজ। গ্রুপের আরেক ম্যাচে জর্জিয়াকে ৪-০ গোলে উড়িয়ে দেয় পোলিশরা। তাদের জয়ের নায়ক রবার্ট লেভানডোস্কি। হ্যাটট্রিক করেন বেয়ার্ন মিউনিখের এই স্ট্রাইকার।

প্রকাশিত : ১৫ জুন ২০১৫

১৫/০৬/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: