মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
১১ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

প্রকৃতিপ্রেমী দ্বিজেন শর্মার দিনব্যাপী জন্মোৎসব

প্রকাশিত : ১৩ জুন ২০১৫

স্টাফ রিপোর্টার ॥ প্রকৃতির সঙ্গে তিনি গড়েছেন বিশেষ সখ্য। বৃক্ষ কিংবা ফুল-লতাপাতার সঙ্গে জড়িয়ে আছে তাঁর জীবন অধ্যায়টি। নিভৃতপ্রিয় ও প্রচারবিমুখ প্রকৃতিপ্রেমীর নামটি হচ্ছে দ্বিজেন শর্মা। বাবা চন্দ্রকা- শর্মা ছিলেন ভিষক বা গ্রাম্যভাষায় কবিরাজ। সে কারণে ছেলেবেলা থেকেই বাড়িতেই দেখেছেন নানা লতা-পাতা আর বৃক্ষের সমাহার। প্রজাপতি ডানা মেলা দিনগুলোতে পাথারিয়া পাহাড়ের আরণ্যক নিসর্গে ঘুরে বেরিয়েছেন তিনি। সেখান থেকেই উদ্ভিদের প্রতি জেগেছে তাঁর প্রবল ভালবাসা আর মায়ামমতা। দেশের আনাচে-কানাচে ঘুরে বেড়ানে প্রকৃতির অমোঘ টানে। সম্প্রতি ৮৫ বছর বয়সে পদার্পণ করেছেন এই বরেণ্য নিসর্গবিদ। গত ২৯ মে ছিল এই প্রকৃতিপ্রেমীর জন্মদিন। বিলম্ব করে হলেও বরেণ্য এই ব্যক্তিকে নিয়ে দিনব্যাপী জন্মোৎসবের আয়োজন তার সুহৃদরা। প্রকৃতিবিষয়ক সংগঠন তরুপল্লবের উদ্যোগে শুক্রবার সুফিয়া কামাল জাতীয় গণগ্রন্থাগারের শওকত ওসমান স্মৃতি মিলনায়তনে জন্মোৎসবের আয়োজন করা হয়। দিনব্যাপী অনুষ্ঠানমালার মধ্যে ছিল প্রকৃতি মেলা, আলোকচিত্র প্রদর্শনী, প্রকৃতিবিষয়ক বইমেলা ও তাকে নিয়ে গ্রন্থ প্রকাশনা উৎসব। সকাল ও বিকেল দুই পর্বে অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

ছয় দশক ধরে বাংলাদেশের পরিবেশ সচেতনতা ও উদ্যানচর্চায় নিরলস ভূমিকা পালন করে চলেছেন দ্বিজেন শর্মা। জীবনের শেষ প্রান্তে বর্তমানে তিনি শারীরিকভাবে তেমন সুস্থ নন। কর্মসাধক এই মানুষটি সারা জীবন বৃক্ষ-পরিবেশপ্রেমী ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানকে নিরলস সহযোগিতা দিয়ে যাচ্ছেন। দেশের বর্তমান পরিবেশ-পরিস্থিতিতে তার মতো মহীরুহ সম্পর্কে নতুন প্রজন্মকে জানাতে এই উৎসবের আয়োজন করা হয়। বিকেলের আয়োজনে প্রধান অতিথি ছিলেন সংস্কৃতি মন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর। এ সময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বরেণ্য প্রকৃতিবিদ ও কথাশিল্পী বিপ্রদাশ বড়ুয়া, সংস্কৃতিজন আলী যাকের, ড. আইনুন নিশাত, আইইউসিএন-এর কান্ট্রি ডিরেক্টর ড. ইশতিয়াক উদ্দীন আহমেদ। সভাপতিত্ব করেন ড. হায়াৎ মামুদ। এর আগে স্বাগত বক্তব্য রাখেন তরুপল্লবের সাধারণ সম্পাদক প্রকৃতিবিষয়ক লেখক মোকারম হোসেন। এ সময় দ্বিজেন শর্মার সহধর্মিণী দেবী চক্রবর্তী উপস্থিত ছিলেন। প্রকৃতিবিদ দ্বিজেন শর্মাকে জন্মদিন উপলক্ষে নানা উপহার সামগ্রী প্রদান করা হয়। তাকে শুভেচ্ছা জানাতে এসেছিলেন কবি নির্মলেন্দু গুণ, প্রাবন্ধিক মফিদুল হক, পাখি বিশারদ ইনাম আল হক, শিশু সাহিত্য আখতার হুসেন, শ্রীমতি সাহা, প্রতিভা মুৎসুদ্দীসহ আরও অনেকে। প্রতিষ্ঠানগত পর্যায়ে শুভেচ্ছা জানায় বারসিকের পাভেল পার্থ ও সুকুমার সেন, কথাপ্রকাশের প্রকাশক জসীমউদ্দিন প্রমুখ। জন্মদিন উপলক্ষে আঁকা দ্বিজেম শর্মার প্রতিকৃতি তুলে দেন তরুপল্লবের পক্ষে শাহজাহান মৃধা বেণু ও ইমাম গাজী। দ্বিজেন শর্মা ও তাঁর সহধর্মিণী দেবী শর্মা বিয়ের একটি ছবি ফ্রেমে বাঁধাই করে উপহার দেন কথাপ্রকাশের প্রকাশক জসীমউদ্দিন। এ ছাড়া বিভিন্ন ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে বিভিন্ন উপহার সামগ্রী তুলে দেন দ্বিজেন শর্মার হাতে। একই সঙ্গে তার জীবনের দীর্ঘায়ু কামনা করেন।

জন্মোৎসবের শুরুতেই তাকে নিয়ে লেখা সৈকত হাবিব ও মোকারম হোসেন সম্পাদিত স্মারকগ্রন্থ ‘প্রকৃতিপুত্র দ্বিজেন শর্মা’ এবং তার প্রথম বই ‘শ্যামলী নিসর্গ’র তৃতীয় সংস্করণের মোড়ক উন্মোচন করে প্রধান অতিথি সংস্কৃতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর। দ্বিজেন শর্মা দীর্ঘায়ু কামনা করে বক্তব্য রাখেন মন্ত্রী। তিনি বলেন, তাঁর সঙ্গে প্রথম সাক্ষাত হয় দেশের বাইরে মস্কোতে। পরবর্তীতে তার আরও সখ্য বাড়ে প্রকৃতিবিষয়ক লেখালেখি ও কর্মকা-ের মধ্য দিয়ে। তিনি তার চোখ দিয়ে প্রকৃতির অপরূপ সৌন্দর্য আমাদের সামনে তুলে ধরেছেন। প্রকৃতিবিষয়ক তার কর্মপরিধি দিয়ে আমাদের সচেতন হতে শেখায়। প্রকৃতিতে ভালবাসতে শেখায়। তিনি আমাদের প্রেরণা উৎস।

অনুভূতি প্রকাশ করে দ্বিজেন শর্মা বলেন, আমি আপনাদের ভালবাসায় অভিভূত। তবে বেশি অভিভূত হব যদি প্রকৃতি বাঁচাতে ও সংরক্ষণ করতে আরও বেশি সচেতন হন।

জন্মোৎসবের আয়োজনে সকালে গণগ্রন্থাগারের উন্মুক্ত চত্বরে প্রকৃতিমেলার উদ্বোধন করেন শিল্পী হাশেম খান। মেলায় ১৫টি প্রতিষ্ঠান অংশ নেয়। এর মধ্যে ছিল প্রকৃতি ও জীবন ফাউন্ডেশন, বার্ডক্লাব, আরবান রুফ গার্ডেনার্স সোসাইটি, এনভায়রনমেন্ট কনসার্ন ফাউন্ডেশন, ন্যাচার স্টাডি, গার্ডেন সেন্টার। এ সব স্টলে প্রকৃতি বিষয়ক নানা কর্মকা- প্রদর্শন করেন প্রতিনিধিরা। মেলা উপলক্ষে অনুষ্ঠান প্রাঙ্গণ সাজানো হয় প্রকৃতির সাজে।

প্রকাশিত : ১৩ জুন ২০১৫

১৩/০৬/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

শেষের পাতা



ব্রেকিং নিউজ: