আংশিক মেঘলা, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৭ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, বুধবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

ভারতবিরোধিতার নতুন রূপে আবার ফিরছে বিএনপি ॥ হাছান মাহমুদ

প্রকাশিত : ১১ জুন ২০১৫, ০১:০০ এ. এম.

স্টাফ রিপোর্টার ॥ ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি চলে যাওয়ার পর বিএনপি আবার তাদের ভারতবিরোধিতার পুরনো রূপে ফিরে গেছে বলে মনে করে ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগ। দলের পক্ষ থেকে বলা হয়, বিএনপি এখনও ভারতবিরোধী অপরাজনীতি থেকে বেরিয়ে আসতে পারেনি। মোদি ভারতে ফিরে যাওয়ার পর বিএনপি ভারতবিরোধিতার পুরনো রূপে ফের ফিরে গেছে। আসলে বিএনপির রাজনীতির মূল প্রতিপাদ্য বিষয় হচ্ছে ভারতবিরোধী, জঙ্গীবাদ ও মৌলবাদ পোষণ।

বুধবার ধানম-ির আওয়ামী লীগ সভানেত্রীর রাজনৈতিক কার্যালয়ে দলের পক্ষে আয়োজিত এক সাংবাদিক সম্মেলনে আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ এ কথা বলেন। মঙ্গলবার বিএনপির মুখপাত্র আসাদুজ্জামান রিপনের সাংবাদিক সম্মেলনে মোদির বাংলাদেশ সফর নিয়ে প্রদত্ত বক্তব্যের জবাব দিতেই এ সাংবাদিক সম্মেলনের আয়োজন করা হয়।

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে হাছান মাহমুদ বলেন, ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে অভিনন্দন জানিয়ে বিএনপি তাদের পুরনো পরিচয়কে গোপন করার চেষ্টা করেছিল। কিন্তু মোদির ভারতে ফিরে যাওয়ার পরপরই বিএনপির চরিত্র স্পষ্ট হয়ে গেছে। বিএনপির জোটসঙ্গী জামায়াত মোদির সফরের বিপক্ষে বিক্ষোভ কর্মসূচী ঘোষণা করেছে। বিএনপি নেতারাও তাদের পুরনো চরিত্র অনুযায়ী এ সফর সম্পর্কে অসংলগ্ন কথাবার্তা অব্যাহত রেখেছেন।

লিখিত বক্তব্যে হাছান মাহমুদ বলেন, অনেক অনুনয়-বিনয় করে খালেদা জিয়া মোদির সঙ্গে দেখা করেছেন, সাক্ষাতের জন্য কাওরান বাজারে অপেক্ষাও করেছেন। এতে তাদের রাজনৈতিক দেউলিয়াপনাই প্রকাশ পেয়েছে। তিনি বলেন, ভারতের প্রধানমন্ত্রী যখন শেখ হাসিনা সরকারের সঙ্গে সন্ত্রাস ও জঙ্গীবাদ নির্মূলে একসঙ্গে কাজ করার ঘোষণা দিয়েছেন, তখনই বিএনপির মাথা খারাপ হয়ে গেছে। এজন্য মোদির সফল ও গুরুত্বপূর্ণ সফরকে প্রশ্নবিদ্ধ করার চেষ্টা করছে তারা। যে চুক্তিগুলো হয়েছে তার প্রশংসা না করে, তিস্তা চুক্তিসহ নানা বিষয় নিয়ে প্রশ্ন উত্থাপন করছে।

হাছান মাহমুদ বলেন, সন্ত্রাস ও জঙ্গীবাদ দমনে বলিষ্ঠ পদক্ষেপ ও জিরো টলারেন্সের জন্য শেখ হাসিনাকে ভারতের প্রধানমন্ত্রী প্রশংসা করায় বিএনপির গাত্রদাহ হয়েছে। ভারতের দৃষ্টিভঙ্গির কথা তুলে ধরে তিনি বলেন, নরেন্দ্র মোদির কথায় স্পষ্ট হয়েছে যে, তারা (বিএনপি) যে পেট্রোলবোমা মেরে, মানুষ পুড়িয়ে হত্যার রাজনীতি করছে এগুলোকে ভারত কখনই সমর্থন করে না। তিনি বলেন, বিএনপি শুধু যে সন্ত্রাস, জঙ্গীবাদ ও নৈরাজ্যকেই লালন করে তা নয়, তারা মিথ্যাচার এবং জালিয়াতির মাধ্যমে আন্তর্জাতিক মহলেও বিশ্বাসযোগ্যতা হারিয়েছে। বিএনপিকে সন্ত্রাস, নৈরাজ্যের পথ ছেড়ে জনগণের কাছে ক্ষমা চেয়ে নিয়মতান্ত্রিক ও গণতন্ত্রের পথে ফিরে আসার আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, মোদির বাংলাদেশে ঐতিহাসিক সফরের মধ্য দিয়ে বাংলাদেশ এবং ভারতের বন্ধুত্ব ও ভ্রাতৃপ্রতিম সম্পর্ক নতুন উচ্চতায় উন্নীত হয়েছে। দীর্ঘদিনের ঝুলে থাকা ছিটমহল সমস্যার সমাধান হয়েছে। তাই বিএনপি নেত্রীর প্রতি অনুরোধ, এ সফল ও যুগান্তকারী সফরকে প্রশ্নবিদ্ধ করার অপচেষ্টা চালাবেন না। মিথ্যাবাদিতার পরিচয় থেকে বেরিয়ে আসার চেষ্টা করুন।

সাংবাদিক সম্মেলনে আওয়ামী লীগের তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক এ্যাডভোকেট আফজাল হোসেন, দফতর সম্পাদক ড. আবদুস সোবহান গোলাপ, ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ সম্পাদক ফরিদুন্নাহার লাইলী, উপ-দফতর সম্পাদক এ্যাডভোকেট মৃণাল কান্তি দাস এমপি, কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদের সদস্য সুজিত রায় নন্দী প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

প্রকাশিত : ১১ জুন ২০১৫, ০১:০০ এ. এম.

১১/০৬/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: