রৌদ্রজ্জ্বল, তাপমাত্রা ২৩.৯ °C
 
৮ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, বৃহস্পতিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

চাঁপাইয়ে সরকারী মহিলা কলেজের ক্লাস নেয় পিয়ন

প্রকাশিত : ১১ জুন ২০১৫

স্টাফ রিপোর্টার, চাঁপাইনবাবগঞ্জ ॥ বিশাল একাধিক একাডেমিক ভবন থাকলেও ছাত্রী নেই কলেজটিতে। অনুরূপভাবে রয়েছে শিক্ষকের অভাব। সরকারী হওয়ার পরও ছাত্রীদের কোন আকর্ষণ নেই কলেজটির প্রতি। তাই কোন মৌসুমেই অভিভাবকদের কোন আগ্রহ থাকে না ছাত্রী ভর্তির ব্যাপারে। চাঁপাইনবাবগঞ্জের একেবারে প্রাণকেন্দ্রে সরকারী মহিলা কলেজটির অবস্থান হওয়ার পরও গত ৪৬ বছরে এর তেমন কোন উন্নয়ন হয়নি। এমনকি শিক্ষকের অভাবে ক্লাস চালিয়ে থাকে পিয়ন। অথচও প্রতি বছর মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক ফলাফলের পর হাজার হাজার ছাত্রী ভর্তির জন্য এদিক সেদিক দৌড়ঝাঁপ করলেও ভুলেও মহিলা কলেজটিতে একবারও উঁকি মেরেও দেখে না। তাই সারাবছর খালি পড়ে থাকে একাডেমিক ভবনের ক্লাসরুম। চাঁপাইনবাবগঞ্জ সরকারী কলেজে ১৪ বিষয়ে অনার্স ও ৩টি বিষয়ে মাস্টার্স কোর্স থাকলেও পিছিয়ে রয়েছে সরকারী মহিলা কলেজ। নেই কোন কলেজ হোস্টেল। ফলে বাইরের ছাত্রীরা ভর্তি হয় না এখানে। কলেজ প্রতিষ্ঠা ও সরকারী হওয়ার পরও উপাধ্যক্ষের পদ পূরণ করা হয়নি। এছাড়াও প্রতিটি বিষয়ে প্রভাষক, সহকারী অধ্যাপক, সহযোগী অধ্যাপক ও অধ্যাপক পদ সৃষ্টি করা হয়নি। পাশাপাশি কলেজের সাধারণ বিভাগে কলেজ সহকারী বা করণিকের দায়িত্ব পালন করে কলেজের পিয়ন। এমনকি ছাত্রীদের খুবই প্রিয় বিভাগ গার্হস্থ্য অর্থনীতি বিভাগ চালায় একজন পিয়ন। পিয়নেরও একাধিক পদ খালি রয়েছে। কলেজের অধ্যক্ষ স্থানীয় হওয়ার কারণে কলেজ উন্নয়নে তার কোন তৎপরতা বা তেমন কোন ভূমিকা নেই। অধ্যক্ষের সঙ্গে যোগাযোগ করলে তিনি জানান, কলেজ উন্নয়নে সব ধরনের চেষ্টা রয়েছে তাঁর।

বরিশালে সমাজসেবা অফিসের কার্যক্রম

স্টাফ রিপোর্টার, বরিশাল থেকে জানান, মেহেন্দিগঞ্জের সমাজসেবা অফিসারের অনুপস্থিতির কারণে একমাত্র পিয়ন দিয়েই চলছে সমাজসেবা অফিসের কার্যক্রম। ফলে অফিসের সকল কার্যক্রম ব্যাহত হওয়ার পাশাপাশি জনসাধারণের ভোগান্তি বৃদ্ধি পেয়েছে। বিষয়টি দেখার যেন কেউ নেই।

জানা গেছে, উপজেলা সমাজসেবা কার্যালয়ের অফিস সহকারীসহ ৯টি ইউনিয়ন সমাজ কর্মীর পদ দীর্ঘদিন থেকে শূন্য রয়েছে। সমাজসেবা অফিসার থাকলেও মাসে তিনি তিন দিনও অফিস করেন না। ফলে এ অফিসে সরকারের বয়স্ক ভাতা, বিধবা ভাতাসহ বিভিন্ন সেবা কার্যক্রম ব্যাহত হচ্ছে।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ তাজিম-উর- রহমান বলেন, বিষয়টি তার জানা ছিল না। সমাজসেবা অধিদফতরের জেলা উপ-পরিচালক মনোজ কুমার ঘরামী বলেন, আগামী এক সপ্তাহের মধ্যে অফিস সহকারী নিয়োগসহ কর্মকর্তার অনুপস্থিতির বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। অভিযুক্ত সমাজসেবা অফিসার আবদুর রশিদের ব্যবহৃত মোবাইল ফোনে একাধিকবার যোগাযোগের চেষ্টা করেও তা বন্ধ পাওয়া যায়।

প্রকাশিত : ১১ জুন ২০১৫

১১/০৬/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

দেশের খবর



ব্রেকিং নিউজ: