আংশিক মেঘলা, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৮ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, বৃহস্পতিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

ডায়রিয়ায় শিশু অপুষ্টি নিরূপণে ওজন নয়, বহু পরিধি মাপ বেশি নির্ভরযোগ্য ॥ আইস

প্রকাশিত : ১১ জুন ২০১৫

স্টাফ রিপোর্টার ॥ ডায়রিয়ায় অপুষ্টি শিশু নিরূপণে নতুন গবেষণা তথ্য দিয়েছে আইসিডিডিআর’বি। ডায়রিয়ায় আক্রান্ত অপুষ্টি শিশু নিরূপণে ওজন পদ্ধতির চাইতে ফিতা দিয়ে শিশুর বাহুর মধ্যভাগের গোলকার পরিধির পরিমাপ অনেক বেশি যথার্থ ও নির্ভরযোগ্য পদ্ধতি। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা বর্তমান গাইডলাইন অনুযায়ী ওজন পদ্ধতিতে অপুষ্টি পরিমাপ পদ্ধতির কথা বলা হলেও আইসিডিডিআর’বির সম্প্রতি প্রকাশিত নতুন গবেষণা ফলাফলে দেখা গেছে- ওজন পদ্ধতির চাইতে বাহুর পরিধি পরিমাপ পদ্ধতি বেশি নির্ভরযোগ্য।

গবেষণার ফলাফল ‘জার্নাল অব নিউট্রেশনে’ প্রকাশিত হয়েছে। গবেষণায় যৌথভাবে অর্থায়ন করেছে ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব হেলথ ফগারটি ইন্টারন্যাশনাল সেন্টার, ইউনিভার্সিটি ইমার্জেন্সি মেডিসিন ফাউন্ডেশন ও আইসিডিডিআর’বি। গবেষকরা ঢাকা শিশু হাসপাতালে ডায়রিয়া আক্রান্ত হয়ে আসা পাঁচ বছরের কম বয়সী শিশুদের চিকিৎসা ইতিহাস পর্যবেক্ষণ করে দেখেছেন, ওজন পরিমাপক পদ্ধতিতে শতকরা ১২ থেকে ১৪ ভাগ শিশুকে অপুষ্টির শিকার চিহ্নিত করা হলেও বাহু পরিমাপ পদ্ধতিতে ওই শিশুদের মাত্র ১ থেকে ২ ভাগ অপুষ্টির শিকার হয়েছে বলে চিহ্নিত করা গেছে। ডায়রিয়া দেশের একটি প্রচলিত রোগ। প্রতিদিন ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হয়ে অসংখ্য শিশু বিভিন্ন স্বাস্থ্যসেবা কেন্দ্রে যায়। বর্তমানে ওজন মেশিন দিয়ে মেপে তারা অপুষ্টির শিকার কিনা তা নির্ধারণ করা হয়।

আইসিডিডিআর’বি ৪ জুন তাদের নিজস্ব ওয়েবসাইটে গবেষণার বিষয়টি প্রকাশ করেছে। আইসিডিডিআর’বি এর সেন্টার ফর নিউট্রেশন এ্যান্ড ফুড সেফটি বিভাগের ডাঃ সাবিহা নাসরিন, নুর এইচ আলম, মোঃ ইকবাল হোসেইন ও যুক্তরাষ্ট্রের ব্রাউন বিশ্ববিদ্যালয়ের সিনিয়র লেখক ড. এ্যাডাম লিভাইন তাদের গবেষণায় দেখেছেন মধ্যভাগের বাহুর পরিধি মেপে পুষ্টিহীন শিশু নিরূপণ জনপ্রিয়তা লাভ করছে। সীমিত সম্পদ ও জনবল দিয়ে এ পদ্ধতিতে অধিক যথার্থভাবে পুষ্টিহীনতা নিরূপণ সম্ভব।

তাঁরা বলেছেন, পানিশূন্যতার কারণে ডায়রিয়া হলে শিশুর বাহুর পরিধির চাইতে ওজন কমে যায় এবং বিষয়টি চোখে পড়ে। ওজনের ওপর ভিত্তি করে তাকে অপুষ্টি শিশু চিহ্নিত করা হয়।

প্রকাশিত : ১১ জুন ২০১৫

১১/০৬/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

অন্য খবর



ব্রেকিং নিউজ: