মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
৯ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শুক্রবার, ঢাকা, বাংলাদেশ

সৌম্যর টেস্ট ভাবনা

প্রকাশিত : ১০ জুন ২০১৫

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ গত বছর ডিসেম্বরে অভিষেক। জিম্বাবুইয়ে সিরিজ, বিশ্বকাপ হয়ে পাকিস্তান সিরিজÑ ছয় মাসেই বাংলাদেশের ক্রিকেটে বড় নাম সৌম্য সরকার। অকুতোভয় ব্যাটিংয়ের জন্য ওয়ানডেতে এরই মধ্যে আলাদা একটা জায়গা করে নিয়েছেন। এবার লক্ষ্য টেস্ট। সাদা পোশাকেও নিজের জাত চেনাতে মরিয়া সাতক্ষীরায় জন্ম নেয়া এই ২২ বছর বয়সী ব্যাটসম্যান। আজ থেকে ফতুল্লায় শুরু হচ্ছে ভারতের বিপক্ষে একমাত্র টেস্ট। ইনজুরি ছিটকে দিয়েছে মাহমুদুল্লাহ রিয়াদকে। কিছুটা চোটগ্রস্ত সমস্যা নিয়ে নামছেন অধিনায়ক মুশফিকুর রহীম।

ভাল করার জন্য সৌম্যর সামনে এটাই সেরা সুযোগ। ওয়ানডেতে ন্যাচারাল ওপেনার সৌম্য। তবে তুখোড় তামিম ইকবাল ও ইমরুল কায়েস থাকায় সাদা পোশাকে সাত-আট নম্বরেই নামতে হচ্ছে তাকে। পাকিস্তানের বিপক্ষে খুলনায় অভিষেক টেস্টে ছয় নম্বরে নেমে ৩৩ রানের দুটি ইনিংস খেলেছিলেন। স্কোর বড় করতে পারেননি ন্যাচারাল স্ট্রোকমেকার। ঢাকায় দ্বিতীয় টেস্টে সাজঘরে ফিরেছেন ৩ ও ১ রানে। সুতরাং ওয়ানডের মতো টেস্টেও অবস্থান করে নেয়াটা সৌম্যর জন্য এখন চ্যালেঞ্জ। যেটি নিতে প্রস্তুত তিনি। ‘খুলনায় অভিষেকে দুই ইনিংসেই সেট হওয়ার পর আউট হয়েছিলাম। এরপর ঢাকায় একদমই ভাল করতে পারিনি। ওয়ানডের মতো টেস্টেও নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করতে চাই। ফতুল্লা টেস্ট আমার জন্য বড় সুযোগ।’ বলেন ওয়ানডে সিরিজে পাকিস্তানী বোলারদের নিয়ে ছেলে খেলা করা সৌম্য।

ঢাকায় শেষ ওয়ানডেতে ১১০ বলে অপরাজিত ১২৭ রানের দুর্দান্ত ইনিংস খেলে হয়েছিলেন ম্যাচসেরা। বিশ্বকাপ ইংল্যান্ডকে হারানো ঐতিহাসিক সেই ম্যাচে ৫২ বলে ৪০, নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ৫৮ বলে ৫১ রঙ্গিন পোশাকে উড়ন্ত শুরু। ১০ ম্যাচে ৪০ গড়ে রান ৩৫৯। সেঞ্চুরি ও হাফ সেঞ্চুরি ১টি করে। তবে টেস্ট সম্পূর্ন ভিন্ন ধরনের খেলা। এখানে জায়গা পাকা করতে আলাদা ধরনের এ্যাপ্রোচ নিয়েও ভাবছেন সৌম্য, ‘দীর্ঘ পরিসরের ম্যাচে ভাল করতে নেটে অতিরিক্ত অনুশীলন করেছি। ব্যাটিং এ্যাপ্রোচ স্বাভাবিক থাকলেও টেস্টের মেজাজের সঙ্গে মানিয়ে নিতে পরিশ্রম করেছি। আশা করছি সফল হব।’ ওয়ানডের মতো টেস্টেও নিয়মিত হতে চান তিনি। ‘ওয়ানডের মতো টেস্টেও আমি নিয়মিত ১১ জনে থাকতে চাই। শুধু থাকার জন্য থাকা নয়, দলের অপরিহার্য সদস্য হয়ে থাকতে চাই। জানি লম্বা ইনিংস খেলা ছাড়া টেস্টে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করার আর কোন বিকল্প পথ নেই। এ জন্য আমি সর্বোচ্চ প্রস্তুতিটাই নিয়েছি। পাকিস্তানের বিপক্ষে সিরিজের পরই এজন প্র্যাকটিস শুরু করেছি, তখন থেকেই চেষ্টা করছি টেস্টে যেভাবে রান পাওয়া যায়, সেভাবে মানসিকভাবে ফিট হওয়ার জন্য। কোন বল ছাড়তে হবে, কিভাবে টিকে থাকতে হবে, এসব নিয়েও আলাদা কাজ করেছি।’ ঘরের মাটিতে ভারতের বিপক্ষে সিরিজে বাংলাদেশকেই ফেবারিট মনে করেন সৌম্য। তিনি বলেন ‘পাকিস্তান সিরিজে আমরা সবাই ভাল খেলছি। সেটা যদি ধরে রাখতে পারি তাহলে ভারতের সঙ্গেও ভাল কিছু হবে। সবার পারফর্মেন্স এক হলেই রেজাল্ট আসবে। ভারতকে নিয়ে অত চিন্তা করছি না। সত্যি বলতে কি, মনে হচ্ছে আমরাই ফেবারিট! কারণ সার্বিক বিচারে আমরা ভারতের চেয়ে ভাল ক্রিকেট খেলছি। পারফর্মেন্সও ভাল হচ্ছে। এটা ধরে রাখতে পারলে অবশ্যই দারুণ কিছু সম্ভব।’

প্রকাশিত : ১০ জুন ২০১৫

১০/০৬/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

খেলার খবর



ব্রেকিং নিউজ: